তারিখ : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

হালুয়াঘাটের শাপলা গ্রাম হিসেবে পরিচিত ঘোষবেড়

হালুয়াঘাটের শাপলা গ্রাম হিসেবে পরিচিত ঘোষবেড়
[ভালুকা ডট কম : ০৫ ফেব্রুয়ারী]
হালুয়াঘাট উপজেলার ছোট্ট একটি গ্রাম ঘোষবেড়। শাপলা গ্রাম হিসেবে পরিচিত। এই ঘোষবেড়  গ্রামের অন্যতম একটি আকর্ষণ হিসেবে বিশেষ খ্যাতি রয়েছে লাল শাপলার। এই গ্রামের আব্দুল করিমের পুকুরে প্রাকৃতিকভাবেই লাল শাপলার অবারিত রঙ্গিন রূপে সাজিয়ে শাপলা গ্রাম হিসেবে ইতিমধ্যে  বিশেষ পরিচিতি লাভ করেছে।

স্থানীয়রা জানান, সাধারণত সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে অক্টোবর ও নভেম্বর মাস পর্যন্ত এই পুকুরে লাল শাপলা ফুল ফুটে। আর এই ফুটন্ত লাল শাপলা দেখতে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রাকৃতিপ্রেমীরা  আসতে শুরু করেছেন। পুকুরের  চারপাশে গাঢ় সবুজের ধান ক্ষেত। মাঝে যেন শাপলার এক “লালস্বর্গ” যা দেখে সত্যিই চোখ জুড়ায়।

পুকুরের মালিক আব্দুল করিম জানান, পুকুরটিতে প্রায় ৫০ বছর পূর্ব থেকে প্রাকৃতিকভাবেই ফুটে শাপলা ফুল। বর্তমানে লাল শাপলা জন্মালেও প্রথমদিকে জন্মাতো সাদা শাপলা।

ঘোষবেড়ের মধ্য দিয়ে বাস চলাচলের জন্য বয়ে যাওয়া হালুয়ঘাট-বাঘাইতলা রোড় গ্রামটিকে এনে দিয়েছে গতিময়তা। আর রাস্তার পাশেই ফুটন্ত লাল শাপলা গ্রামটিকে করেছে পরিপাটি। ঘোষবেড়ের এই রূপের প্রশংসা এখন গ্রাম ছাড়িয়ে দেশ-দেশান্তরে। শাপলার ফুটন্ত অবস্থা ও আসল সৌন্দর্য উপভোগের সবচেয়ে উপযুক্ত সময় হলো সকাল। কারণ সূর্যের উপস্থিতির সঙ্গে সঙ্গে শাপলা তার আপন সৌন্দর্যকে গুটিয়ে নেয়। তাই ফুটন্ত শাপলার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখতে চাইলে ভোর সকালই ঘোষবেড় শাপলার পুকুরে আসতে হবে বলে পুকুরের মালিক করিম মিয়া জানান। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

পরিবেশ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই