তারিখ : ২০ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গৌরীপুরে শ্রমিকলীগের অভ্যন্তরীন কোন্দলে মঞ্চ ভাংচুর,দফায় দফায় সংঘর্ষ

গৌরীপুরে শ্রমিকলীগের অভ্যন্তরীন কোন্দলে মঞ্চ ভাংচুর,দফায় দফায় সংঘর্ষ
[ভালুকা ডট কম : ০১ মে]
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে উপজেলা শ্রমিকলীগের আব্দুস সামাদ ও বিল্লাল হোসেন গ্রুপের মাঝে অভ্যন্তরীন কোন্দলে সোমবার (৩০ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে স্থানীয় বঙ্গবন্ধু চত্বরে মে দিবস উদযাপনের মঞ্চ ভাংচুর করে একটি পক্ষের নেতা-কর্মীরা।

এর আগে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে পৌর শহরে বেগ প্লাজার সামনে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হাবিব উল্লাহ’র মটর বাইকসহ ৪ টি বাইক ভাংচুর করে অপরপক্ষের নেতা-কর্মীরা। এদিকে এ কোন্দলের জেরে রবিবার রাত ৮ টার দিকে পৌর শহরে কালিপুর মধ্যমতরফ এলাকায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এমদাদুল হক খোকনের দোকান ভাংচুর করে সামাদ গ্রুপের সমর্থকরা। এ ঘটনার প্রায় এক ঘন্টা পরে শহরের হারণ পার্ক এলাকায় বিল্লাল গ্রুপের সমর্থকরা উপজেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ন আহবায়ক আহসান উল্লাহ’র ওপর হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে।দলীয় অভ্যন্তরীন কোন্দলকে কেন্দ্র করে গৌরীপুরে বেশ কয়েকদিন ধরে চলে আসা সংঘর্ষ, ভাংচুর ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় বর্তমানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গৌরীপুর উপজেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ন আহবায়ক আহসান উল্লাহ জানান তার কমিটির যুগ্ন আহবায়ক বিল্লাল হোসেন তৃতীয় পক্ষের এজেন্ডা বাস্তবায়নে বেশ কিছুদিন ধরে দলীয় শৃংখলা বিরোধী কর্মকান্ডের মাধ্যমে সংগঠনে অভ্যন্তরীন কোন্দলের সৃষ্টি করেছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন বিল্লালের নেতৃত্বে দলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলাসহ মহান মে দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে স্থানীয় বঙ্গবন্ধু চত্বরে উপজেলা শ্রমিকলীগের মঞ্চ ভাংচুর করা হয়েছে। এজন্য মে দিবস উপলক্ষ্যে উপজেলা শ্রমিকলীগ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভাটি ভেস্তে যায়।

এদিকে উপজেলা শ্রমিকলীগের অপর যুগ্ন আহবায়ক মোঃ বিল্লাল হোসেন সদ্দার জানান উপজেলা শ্রমিকলীগের আহবায়ক আব্দুস সামাদ ও যুগ্ন আহবায়ক আহসান উল্লাহ সংগঠনের কর্মকান্ড পরিচালনায় স্বৈরাচারী ভূমিকা পালন করে আসছেন। এক্ষেত্রে তারা সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সাথে কোন প্রকার সমন্বয় করেননা। এনিয়ে শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। তিনি বলেন আব্দুস সামাদ ও আহসান উল্লাহ’র বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দের নিকট অভিযোগ দেয়ায় বর্তমানে তাদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালানো হচ্ছে।

এসময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আহসান উল্লাহকে মারধর করার অভিযোগ অস্বীকার করে বিল্লাল হোসেন বলেন কালীপুর মধ্যমতরফ এলাকায় খোকনের দোকান নিজেরাই ভাংচুর করে তার দায় অন্যের ওপর চাপানোর চেষ্টা চালাচ্ছে।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপিসহ উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য উপজেলা শ্রমিকলীগের উভয়পক্ষের সাথে মতবিনিময় করেছেন।

উপজেলা শ্রমিকলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে অস্থিতিশীল পরিবেশে সৃষ্টির হওয়ার কথা স্বীকার করে গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহাম্মদ সাংবাদিকদের জানান অতিরিক্তি পুলিশ মোতায়নের মাধ্যমে উত্তপ্ত পরিবেশ শান্ত করা হয়েছে। #






সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই