তারিখ : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

পোরশায় তিনদিন ব্যাপী আম মেলা উপলেক্ষ সাইকেল র‌্যালী

পোরশায় তিনদিন ব্যাপী আম মেলা উপলেক্ষ সাইকেল র‌্যালী
[ভালুকা ডট কম : ২৭ জুন]
‘ফলের রাজা আম, আর আমের রাজা পোরশা’ স্লোগানে নওগাঁর পোরশায় তিনদিন ব্যাপী আম মেলা শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে উপজেলার নীতপুর থেকে সাইকেল র‌্যালী বের হয়। প্রায় ৮ কিলোমিটার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে সারাইগাছীতে আম মেলায় এসে শেষ হয়। র‌্যালীতে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় পাঁচশ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ মাহমুদ এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, নওগাঁ-১ আসনের সাংসদ সাধন চন্দ্র মজুমদার। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বকত্ব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহফুজ আলমসহ প্রমূখ।

আমের ব্যাপক প্রচার ও প্রসারে লক্ষে আম মেলায় দেশী ও বিদেশী বিভিন্ন প্রজাতির আমের প্রদর্শণে ব্যবসায়ী ও আম চাষী ২০টি স্টল অংশ নেয়। তিনদিন ব্যাপী আম মেলা আগামী ২৯ জুন শেষ হবে।জেলার সাপাহার, পোরশা, নিয়ামতপুর উপজেলা এবং পত্নীতলা ও ধামইরহাট উপজেলার আংশিক বরেন্দ্র এলাকা হিসেবে খ্যাত। পানি স্বল্পতার কারণে বছরের বেশির ভাগ সময় জমি অনাবাদি পড়ে থাকত। ফলে সেখানে ধানের আবাদ না হওয়ায় প্রতি বছরই বাড়ছে আম বাগান। লাভ বেশি হওয়ায় অনেক কৃষক এখন ধান ছেড়ে আম চাষে ঝুকেছেন। প্রতি বছর প্রায় ১ হাজার হেক্টর অধিক জমিতে আম বাগান গড়ে উঠছে। এঁটেল মাটি হওয়ার কারণে এ এলাকার আম বেশ সুস্বাদু। সুস্বাদু হওয়ায় আমের রাজা চাঁপাইনবাবগঞ্জকে ছাড়িয়ে গেছে নওগাঁর আম।

এ জেলায় উৎপাদিত প্রায় সব আম আধুনিক প্রজাতির। আমের কোনো পরিচিতি না থাকায় ব্যবাসায়ীরা সেগুলোকে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম বলে চালিয়ে দিচ্ছেন। আমের ব্র্যান্ডিং (প্রচার-প্রচারণা)-এর অভাবে অনেকটাই পিছিয়ে আছে নওগাঁ জেলা। নওগাঁর আমকে ব্রান্ডিং হিসেবে পরিচিত করার জন্য এক ব্যক্তিক্রম উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে।

সরকারি নির্দেশনায় ও প্রশাসনের নজরদারী থাকায় গত ২৫ মে  গোপালভোগ আম নামানোর মধ্য দিয়ে বাজারে আম আসতে শুরু করে। এ বছর প্রচুর আমের উৎপাদন হয়েছে। তবে উৎপাদনের তুলনায় দাম তুলনা মূলক কম।

পোরশা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহফুজ আলম বলেন, এ উপজেলায় প্রায় ৯ হাজার হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে। এতে প্রতি হেক্টরে লক্ষ্য মাত্রা ধরা হয়েছে সাড়ে ১০ থেকে ১১ মেট্রিকটন। এ উপজেলার আম স্বাধে-গন্ধে-মানে-মিষ্টিয়তায় অতুলনীয়। আমের ব্যাপক প্রচার ও বিভিন্ন তথ্য প্রদানের জন্য ‘উপজেলা কৃষি অফিস পোরশা’ নামে একটি ফেসবুক আইডি ও ‘পোরশার আম’ নামে একটি ফেসবুক পেজ খুলা হয়েছে। আমের ব্যাপক প্রচারের জন্য এলাকাবাসীকে এগিয়ে আসতে হবে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

বিনোদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই