তারিখ : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

আমার এলোমেলো ভাবনা চতুর্থ পর্ব-হাজী সানি

আমার এলোমেলো ভাবনা চতুর্থ পর্ব-হাজী সানি
[ভালুকা ডট কম : ৩১ জুলাই]
দিগন্ত জুড়ে নীলিমার মাঝে এক-ই আকাশে গোধুলী সাথে হারানো সময় গুলো করছে পরিহাস, স্তব্ধ নিঃশ্বাস ঠেলে ঠেলে বারেবার হারানো হিয়ার নিকুঞ্জ পথে আসি আমি ফিরে অনন্ত পতন অনন্ত সময় একই ভাঙ্গনের ঢেউয়ে তবু যেতে চায় স্বপ্নেরা আলোয় সকল আঁধার ভেঙ্গে নীলিমার মাঝে এক-ই আকাশে গোধুলী সাথে হারানো হিয়ার নিকুঞ্জ পথে গোধুলী রাঙিয়ে ধরণী ঘন আবিরের রাগেসূর্যাস্তের দিকে হারানো সময় গুলো পরিহাস করে কৃষ্ণচূড়া শাল পিয়ালের ঘহিন থেকে রবির কিরণ বলছে আমায় ডেকে।-(হাজী সানি)
**
জীবন-জীবিকার কষাঘাতের তাড়নায় সাময়িক বিড়ম্বনায় অনেকটা সময় কাটছে তাই সময় করতে পারিনি আজ কিছুটা সময় বিড়ম্বনার কাছ থেকে ধার করে বসেছি মস্তিষ্ক টাকে একটুখানি ঠান্ডা করতে ।আমার ব্যক্তিজীবনের কিছু অদ্ভুত ঘটনা যা ইদানিং আমার সাথে ঘটেছে তা সবার সাথে শেয়ার করার জন্য বসলাম,আসলে বেশ কয়েকদিন যাবৎ কিছু লিখব লিখব চিন্তা করছি কিন্তু সেই সময়টুকু করতে পারছি না লেখার জন্য।
আজ আমার লেখা দীর্ঘায়িত করবো না কারণ কিছুদিন আগের একটি লেখায় আমার এক বন্ধু মন্তব্য করেছিল যেন লেখা বড় না হয় তাহলে পড়তে সবার অসুবিধা হয় সময় নষ্ট হয় তাই চেষ্টা করছি আজ শুধু মাত্র দুটি বিষয়ে সামান্য কিছু কথা লেখার জন্য যদিও তাতে কিছুটা সময় নষ্ট হবে তারপর লিখছি ।
সাধারনত দিনের অধিকাংশ সময় আমি অনলাইনে থাকি কারণ কর্মজীবনের পুরোটাই অনলাইন ভিত্তিক আর সেই সুবাদে বর্তমান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে অনেক প্রেম আর সবার মতো আমারও যখনই সময় হয় এর মধ্যে এসে এলাকার বন্ধু-বান্ধবের খোঁজ খবর রাখার চেষ্টা করি
যাই হোক মূলকথায় আসছে গত কিছুদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তখনকার আমার এক বন্ধু একটি গ্রুপ ছবি পোস্ট করে ছবির ক্যাপশন ছিল আলেম পরীক্ষার্থী বন্ধুদের নিয়ে, ছবিটাতে আমি একটি মন্তব্য করি একদিন পরে সেই মন্তব্যটি আমি আর ছবিতে পাইনি তারপর post কর্তাকে আমি জিজ্ঞাস করলাম সবিনয়ে জিজ্ঞাসা করলাম আপনি কি আমার মন্তব্যটি মুছে ফেলেছেন post korta উত্তরে বললেন জি ভাই কারন এখানে ভাই আমাদের মাদ্রসার শিক্ষা সফরের ছবি এটা হয়তো অনেকেই দেখবে আমাদের মাদ্রাসার শিক্ষকরাওতো আইডিতে আছে তাই হয়তো সন্মানটা আমাদের ধরে রাখার চেষ্টা করছি প্লিজ এটা নিয়ে আর মতামত দিয়েননা বিষটা আমিও বুঝতে পারছি ।
post কর্তা আমার মন্তব্য ডিলেট করলেন কিন্তু উনার ছবিটা সেই সময় ডিলেট করলেন না "মাদ্রাসার মান-সম্মানের আঘাত হচ্ছে" এখন আমার কথা হচ্ছে আপনি যখন পোস্ট করলেন তখন আপনার বুদ্ধিতে এই চিন্তাটি ছিল না এই নোংরা পোস্টে আপনার মাদ্রাসার আত্মসম্মানে আঘাত আসতে পারে শুধুমাত্র আমার মন্তব্যে আপনার মাদ্রাসার সম্মান নষ্ট হচ্ছে যখন আপনি পোস্ট করেছেন তখন চিন্তা করা প্রয়োজন পোস্টটি সার্বজনীন তাই যখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোন ছবি বা উক্তি আমরা পোস্ট করি তখন সার্বজনিক ভাবে সবার জন্য উন্মুক্ত করি ওএখানে সবাই তার নিজস্ব মন্তব্য ব্যক্ত করবে এই চিন্তা করে আমরা সাধারনত পোস্টগুলি করে থাকি এখানে post কর্তা প্রথমে চিন্তাই করেনি যে একজন আলেম কিভাবে চলাফেরা করতে হয় কিভাবে তাকে সমাজ দেখবে। আমি সেই post কর্তা ছবিটা পোস্ট করলাম যে ছবিতে নারী গুলো অর্ধ নগ্ন (এক জন আলেমের ভাষায়)এরা কোন অংশে আলেমের যোগ্য আলেম ,আমরা যে সমাজে বাস করি সেই সমাজে আলেমকে আমরা কোন দৃষ্টিতে দেখি সেই দৃষ্টিকোণ থেকে এইসব নারী কিভাবে আলেম হতে পারে আমার প্রশ্ন ছিল কিন্তু উনি আমার মন্তব্যটা মুছে ফেল।
যাই হোক এবার আমি দ্বিতীয় ছবিটি নিয়ে কথা বলতে চাচ্ছি এই ছবিটিতে আমি একটি মন্তব্য করেছিলাম তখন post korta আমাকে privately মেসেজ করে বলল ভাই আপনার মন্তব্যের উত্তর কি দিব বুঝে উঠতে পারছি না। তারপর আমি ওনাকে বললাম যাইহোক আপনি আমাকে জানতে চাইছেন অনেকে আমার মন্তব্য ডিলিটই করে । উত্তরে বললেন আমি করবো না আমি উনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে শেষ করলাম তারপর একদিন অথবা দুই দিন পর post korta আমার মন্তব্যটি ডিলিট করে দিলাম তখন আমি ওনাকে সবিনয়ে জানতে চাইলাম আপনি কি আমার মন্তব্য ডিলিট করে দিয়েছেন তখন পোস্ট korta উত্তরে বললেন যে অনেকেই মন্তব্য করছিল আপনার মন্তব্যটি নেই তাই ডিলেট করে দিয়েছি । আমার প্রশ্ন হচ্ছে আপনার পোস্টে আমার মন্তব্যে যদি আপনার বন্ধুরা আপনাকে সমর্থন না করে আমাকে সমর্থন করে তার জন্য যদি আপনি পোস্ট ডিলিট করে দেন বা মন্তব্য ডিলিট করে দেন তার মধ্যে কোনো পুরুষত্ব নেই তা কাপুরুষের মতো একটি কাজ যা আমার বন্ধুদের মধ্যে আমি আশা করি না তাই সবাইকে বলব পোস্ট করার আগে চিন্তা করুন কী মন্তব্য আসতে পারে ।
যাই হোক যারা মনে করেন আপনার যে কোন নাজায়েজ পোস্টে আমাকে আপনার সাথে তাল নিলিয়ে হা হা শব্দ করতে হবে তারা আমার কাছ থেকে দূরে থাকেন আর কোন পোস্ট করার আগে তার উত্তর সহ্য করার মতো ক্ষমতা নিজের মধ্যে গ্রহণ করুন তারপর পোস্ট করুন । পোস্ট এবং মন্তব্য সেই ব্যক্তির মুছে ফেলা উচিত যারা সমাজ থেকে নিষ্কাশিত,ভদ্রতা বজায় রাখে না তাদের মন্তব্য মুছে ফেলা উচিত এবং কি ঐসকল ব্যক্তিদেরকে বন্ধু তালিকা থেকে নিষ্কাশিত করা উচিত । ধন্যবাদ -হাজী সানি । Facebook Timeline Post April 19 •  at 07:22am • 2018 •
**
মানসিক সামাজিক অর্থনৈতিক নৈতিক পারিপার্শ্বিক পারিবারিক এক কথায় বলতে গেলে সময়ের শ্রেষ্ট খারাপ সময় অতিবাহিত করছি । যখন থেকে পৃথিবীতে এসেছি সেই সময় থেকে শুরু করে আজকের এই সময়টা সবচাইতে খারাপ চলতেছে যাহা ভাষায় বলে এবং লিখে প্রকাশ করা সম্ভব নয় তারপরও আলহামদুলিল্লাহ যখন ভালো সময় চিরস্থায়ী হয়নি তখন খারাপ সময়েও ইনশাআল্লাহ একদিন শেষ হয়ে যাবে আবারো সুন্দর সময় হয়তোবা আসবে, যাইহোক আশা কামনা প্রত্যাশা যেভাবেই বলি না কেন সেই সময়টির অপেক্ষায় ইনশাআল্লাহ আবার সবকিছু ঠিক হবে এই প্রত্যাশাই করছি । আমিন। সবাইকে ভালুকা ডট কম এর ৯ম বর্ষে পদার্পণ এর শুভেচ্ছা । -(হাজী সানি, সঞ্চালক ভালুকা মাল্টিমিডিয়া নেটওয়ার্ক) Facebook Timeline Post May 1  •  at 08:02am • 2018 •
**
আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম এখন অনেক বেশি হিংসা হচ্ছে দিন গুলোর জন্য ।ভালো সময়টার সবচেয়ে খারাপ দিক হচ্ছে সে অনেক তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যায় সব সময় সাথে থাকেনা আর খারাপ সময়ের ও একটা সবচেয়ে ভালো দিক সেও একদিন শেষ হয়ে যায়, চিরস্থায়ী হয়ে থাকেনা।-(হাজী সানি) Facebook Timeline Post May 3 . at 09:00am • 2018 •
**
মানির মান আল্লায় রাখে,সকালবেলা ০৭ মে এক বন্ধুর সাথে কথা সে জানালো তার ওখানে অনুষ্ঠান করবে আমাকে আসতে হবে আমার দাওয়াত আমি বললাম ঠিক আছে যদি হয় আমাকে জানাবেন উনি বললেন আমি সন্ধ্যার দিকে আপনাকে ফোনে জানাবো চিন্তা করলাম পার্টিতে যেতে হবে হাতে টাকা পয়সা নেই একজনের কাছ থেকে ১০০ রিয়েল ধার করলাম কারন কিছুত নিয়ে যেতে হবে পাটিতে, তারপর অপেক্ষায় রইলাম রাত দশটার দিকে অন্য এক বন্ধু জানাল বেশ জমকালো অনুষ্ঠান হয়েছে,মনে মনে চিন্তা করলাম যাইহোক যে ব্যক্তির কাছ থেকে ধার করেছিলাম উনাকে ফেরত দিয়ে দেই তাই টাকাটা ফেরত দিতে গেলাম ভদ্র লোক জিজ্ঞেস করল আজব ব্যাপার টাকা ফেরত দিচ্ছেন কেন এখনই কি হলো আমি মুচকি হেসে বললাম "মানির মান আল্লায় রাখে বাবাকে বাজারে পিটিয়েছে আমাকে কেউ কিছু বলেনি"। কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য্যের সুরে বলতে হয় ‌‌‌‍ক্ষুধার রাজ্যে পৃথিবী গদ্যময়, পূর্ণিমা চাঁদ যেন ঝলসানো রুটি। নাই কাইল্লা ১০০টা রিয়েল বেঁচে গেল। -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post May 7 . at 10:00am • 2018 •
**
জুতার মূল্য লাখ টাকা আর মজার মূল্য শ‌'দুই তারপরও জুতার স্থান চৌকাঠের বাহিরেই হয় আর লাখ টাকার বিছানাতে কম্বলের নিচে স্থান হয় শত টাকার মজার। জুতা ততক্ষণ নিষ্প্রয়োজন যতক্ষণ চৌকাঠের ভিতরে বাহিরে কথাটা চিন্তাতে আসতেই প্রথমেই চলে যায় জুতার দিকে পাটা। চৌকাঠের বাহিরে এক মিনিটের জন্যও জীবন অচল জুতা বিনা তারপরও চৌকাঠের ভেতরে সে মূল্যহীন।মানব জীবনটা সেই লাখ টাকার জুতা থেকে বেশি কিছু নয় প্রয়োজন ছাড়া কেউ কাউকে চৌকাঠের ভিতরে নিতে চায়না, প্রয়োজনে সবাই শুধু ব্যবহার করে চলাচলের জন্য আর প্রয়োজন শেষে জুতার মত চৌকাঠের বাহিরে রাখতেই পছন্দ করেন। -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post May 11 . at 11:00am • 2018
**
আমার কর্ম জীবনের প্রায় দুই যুগের বেশি সময় সৌদি আরবে এখানকার এই দীর্ঘ সময়ে হাজারো খারাপের মধ্যে কিছু ভালো আমার মনকে সবসময় ছুঁয়ে যায় যেগুলো হয়তো বিশ্বের অন্য কোন দেশে আছে কিনা আমার জানা নেই তবে ছোট ছোট হলেও এইসব কাজ গুলি আমার মনকে অনেক বেশি ছুঁয়ে যায় ।
প্রথমত যে কোনো জুমার দিন যদি কেউ জুমার নামাজ পড়তে বাসা থেকে বের হয় রাস্তাতে আসতেই অনেক গাড়ি তাঁকে মসজিদে নিয়ে যাওয়ার জন্য থামবে কোনো ভাড়ার প্রয়োজন নেই কোন কিছুর প্রয়োজন নেই মসজিদ পর্যন্ত স্বাচ্ছন্দে পৌঁছে দেবে।
দ্বিতীয়তঃ এখানে যে যেমনই হোক আজান হচ্ছে সকল প্রকারের ব্যবসা-বাণিজ্য দোকানপাট বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সবাই নামাজের জন্য মসজিদে যাচ্ছে সবাই বলতে আমি শতভাগ যাচ্ছে তা বলতে চাচ্ছি না তবে অধিকাংশ লোক মসজিদে যাচ্ছে নামাজ পড়ছে তারপরে সে কি করছে তা এখানে আমি আনতে চাচ্ছি না আমার কাছে এই জিনিসটা খুব ভালো লাগে।
তৃতীয়তঃ রাস্তা মধ্যে আমার ছবির সাইনবোড গুলো দেখে বোঝা যাচ্ছে যে মাহে রমজান খুব সন্নিকটে কারণ প্রতিটি দোকানে প্রত্যেকটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে রমজানের বিশেষ মূল্যছাড় দেওয়া হচ্ছে প্রত্যেক দোকানে রোজার জন্য ডিসকাউন্ট সামগ্রী বিক্রি হচ্ছে ।
যা আমাদের দেশে এর সম্পূর্ণ বিপরীত আমাদের দেশে রোজা আসলেই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য ঊর্ধ্বগতিতে থাকে আর সৌদিতে রমজানের আগ থেকেই সমস্ত খাদ্যদ্রব্যের দোকানে মাহে রমজানের জন্য বিশেষ মূল্য ছাড় দেওয়া হয় যা ঐ প্রতিষ্ঠানের মালিক একান্ত নিজস্ব ইচ্ছায় করে থাকেন প্রতিপালকের সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য।
সবাইকে মাহে রমজানের অনেক অনেক শুভেচ্ছা সবার জীবনে মাহে রমজান নিয়ে আসুক পবিত্রতা,সহিষ্ণুতা,ভ্রাতৃত্ববোধ এবং বন্ধু চারিতা মাহে রমজানের শুভেচ্ছা। - (হাজী সানি) Facebook Timeline Post May 14 . at 01:00pm • 2018
**
সমাজের কিছু অপরাধ যেমন ক্ষমার অযোগ্য তেমনি কিছু অপরাধীও ক্ষমার অযোগ্য ডাক্তারি পেশা একটি মহান পেশা এর সাথে প্রতারণা করা নিঃসন্দেহে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ ঠিক তেমনি যারা সাংবাদিক বা সমাজের স্বেচ্ছাসেবী তাদেরও অপরাধ ক্ষমার অযোগ্য দুজনে নিজ নিজ স্থান থেকে সমাজের জন্য কিছু করার অঙ্গীকার নিয়ে অঙ্গীকারবদ্ধ তাই এদের দুজনের অপরাধ ক্ষমার যোগ্য নয়।-(হাজী সানি) Facebook Timeline Post May 20 . at 02:00pm • 2018
**
শেষবার লিখেছিলাম কবে মনে নেই, তবে ঐ নীরব কথার মাঝে সৃষ্ট হয়েছে শুধু থমথমে জীবনের বাঁকে কিছু স্মৃতি সেই দিনের ভালো লাগা গুলো এখন আর আগের মত স্পর্শ করে না মনকে,মনটা আজ ভীষণ একা,লক্ষ্য,চাওয়া-পাওয়া,স্বপ্ন,ভবিষ্যত সব কিছুই “স্মৃতি” নামের একটি বিন্দুতে মিলিত হয়ে আছে। কিছুই আর আগের মত ঠাহর করে উঠতে পারেনা “মস্তিষ্ক” (মস্তিষ্ক হল কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের পুরোভাগ, যা মস্তকের অভ্যন্তরে অবস্থিত এবং দেহের প্রধান নিয়ন্ত্রণকেন্দ্র) আমার স্মৃতির ঘড়ির কাটা থেমে আছে কিন্তু স্মৃতি “স্মৃতি” পবিত্র আত্মা –অবিনশ্বর বার বার চলে যায় যে পথের গন্তব্য নেই তারপরও খুজে সেখানেই ঐ পথেই হাটে স্মৃতিটুকু বুকে তুলে, চেনা পথ গুলো ভুলে, এখন শুধু জীবন চলে মরিচিকারমত দোদুল্যমানতার ভিড়ে। কষ্ট দিয়ে,সুখে থাকার আশা বোকামি হয়ত এ থেকেও প্রখর কষ্ট হয়ত অপেক্ষা করছে..... পৃথিবীর সব কষ্ট সহ্য করা যায় কিন্তু ভালোবাসার মানুষ গুলোর কষ্ট সহ্য করার ক্ষমতা আমাদের নেই আমরা পারি ও না তাই কোনো স্মৃতি ভুলতে পারিনা। -(হাজী সানি) Timeline Post May 24 . at 01:00pm • 2018
**
মৃত্যুতে বিলীন হয়ে যাবে স্বপ্নগুলো দেহটা পড়ে রবে মাটিতে খেয়ে ফেলবে পোকায় কর্মগুলি পেয়ে যাবে অমরত্ব এই সেই জীবন যাকে নিয়ে আমাদের এত উল্লাস এত অহমিকা এত অহংকার যার সৃষ্টি একফোঁটা নাপাক থেকে আর যার শেষ পরিণতি মৃত্যুতে। -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post May 26 . at 11:00am • 2018
**
"সমাজ ব্যবস্থায় কে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর"
সমাজের কেউ কেউ নিজেদের সুশীল সমাজের সদস্য বলে ডাকে, পরিচয় দিতে পছন্দ করে। আমরাও কাউকে সুশীল বলি। বাংলা একাডেমীর সহজ বাংলা অভিধানে 'শীল' শব্দটির অর্থ স্বভাব, চরিত্র (সুশীল), আচার-আচরণ, রীতিনীতি, বৌদ্ধদের অবশ্যপালনীয় নীতি (পঞ্চশীল) ইত্যাদি। আবার, 'সুশীল' শব্দের অর্থ হিসেবে সুবোধ, সচ্চরিত্র, ভদ্র, স্বভাব-চরিত্র ভালো এমন বলে উল্লেখ রয়েছে। কিন্তু আমাদের চোখে অর্থাৎ এই প্রজন্মের কাছে 'সুশীল' শব্দটির অর্থ কি ?
আমাদের সমাজ ব্যবস্থার জন্য কে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর এমন প্রশ্নের উত্তর হয়তো অনেকের কাছে মনে হতে পারে খারাপ ব্যক্তিটি কিন্তু আমি যদি প্রশ্ন করি সমাজে কত শতাংশ ব্যক্তি খারাপ হতে পারে তবে সবাই এক বাক্যে বলবেন হয়ত মুষ্টিমেয় কয়েকজন ব্যক্তি শুধুমাত্র খারাপ, তবে বাকি তো সবাই সুশীলসমাজের সুশীল ব্যক্তি শিক্ষিত ব্যক্তি তাহলে কেন আর কি ভাবে হাতে গুনা মুষ্টিমেয় কয়েকজন ব্যক্তি সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠীর উপর নিজেদের প্রাধান্য বিস্তার করছে ?
মানুষের দৈনন্দিন জীবনে তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার অপরিসীম। তথ্য ও প্রযুক্তির দু’টি গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো ইতিবাচক ও নেতিবাচক। এ কথা সত্য যে, তথ্য ও প্রযুক্তি আধুনিক জীবনকে করে তুলেছে সহজ ও স্বাচ্ছন্দ্যময় কিন্তু কিছু অসৎ ব্যক্তি তথ্য ও প্রযুক্তির অপব্যবহার করে চলেছে। যার নেতিবাচক প্রভাব ব্যক্তিজীবন ও সামাজিক জীবনে এসে পড়ছে। সাধারণ মানুষের ঔৎসুক্য দেখেও মনে হয়, অন্যের সমস্যা, দুঃখ-দুর্দশা দেখলেই মানুষ এখন সবচেয়ে খুশি হয়।
যারা খারাপ তারা তাদের শতভাগ কর্ম সঠিকভাবেই সম্পন্ন করতেছে কিন্তু যারা সুশীলসমাজ সুশীল ব্যক্তি শিক্ষিত ব্যক্তি উনাদের নিজেদের যে সামাজিক দায়বদ্ধতা থাকা দরকার তার তা কোন অংশই সঠিকভাবে পালন করছে না, যেখানে কথা বলার প্রয়োজন যার বিরুদ্ধে বলার প্রয়োজন সেখানে সুশীলসমাজ তোষামুদে ব্যস্ত থাকেন এইজন্যই সমাজের খারাপ ব্যক্তি গুলি মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে যদি নিজেদের স্থান থেকে প্রতিবাদ সঠিক কথা সঠিক স্থানে বলতেন তবে মুষ্টিমেয় কয়েকজন ব্যক্তির জন্য সমাজের এত অধঃপতন হত না আর বর্তমানে সমাজে আমার মতে একজন মাদক ব্যবসায়ীর চেয়েও খারাপ সেই সুশীল সমাজ যারা প্রকৃত স্থানে কথা বলতে কার্পণ্যতা বোধ করে সঠিক স্থানে সঠিকভাবে নিজের অবস্থান তুলে ধরে না। সমাজে ১০ জন খারাপ ব্যক্তির জন্য সমাজ খারাপ হচ্ছেনা সমাজ খারাপ হচ্ছে বাকি ৯০ জন ভালো ব্যক্তির ভালো কাজ না করার জন্য- চিন্তা করার বিষয় ।
তথ্যপ্রযুক্তির বর্তমান সমাজে প্রচলিত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মধ্যে ফেসবুক সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় আর এই মাধ্যমটিতে প্রায়ই এমন স্থানে এমন ব্যক্তিদের মন্তব্য চোখে পড়ে যা সত্যিই নিজের কাছে লজ্জাজনক মনে হয় আমি যেহেতু ভালুকা কে নিয়ে কাজ করছি তাই ভালুকার এমন এমন ব্যক্তির এমন এমন স্থানে মন্তব্য চোখে পড়ে যা সত্যিই আশাব্যঞ্জক নয় এর চেয়ে ভালো বক্তব্য রাখতে পারেন তাঁরা সমাজের জন্য কিন্তু তাঁরা তা না করে প্রায় তোষামুদি তে ব্যস্ত থাকেন। একজন শিক্ষিত সুশীল সমাজের ব্যক্তি যখন তোষামুদি তে ব্যস্ত থাকে তখন সে হুমকি হয়ে দাঁড়ায় সমাজের জন্য কারন একজন মাদক ব্যবসায়ীর চায়তেও খারাপ পরিণতি ডেকে আনতে পারে একজন তোষামোদি ব্যক্তি আর সে যদি হয় শিক্ষিত সুশীল সমাজের তাহলে তো সোনায় সোহাগা । মাদক ব্যবসায়ীর জন্য খারাপ হচ্ছে সমাজের মুষ্টিমেয় কয়েকজন আর শিক্ষিত সুশীল সমাজের ব্যক্তিরা চুপকরে থাকাতে অথবা তোষামুদিতে নিমিষেই প্রভাবিত হয় সমাজের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠী তাই আমার দৃষ্টিতে একজন মাদক ব্যবসায়ীর চায়তেও সমাজের জন্য ক্ষতিকর শিক্ষিত সুশীল সমাজের ব্যক্তিরা যাদের চুপ করে থাকাতেই আজ সমাজ ধংস হচ্ছে।
একটি প্রতিষ্ঠানের প্রধান হতে পারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে পারে তা কোন ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান অথবা হতে পারে রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান, প্রতিষ্ঠান প্রধান যখনি কোথাও কোন কথা বলেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হোক অথবা কোন সমাবেশ তখন উনাকে মনে রাখা প্রয়োজন উনি কোন ব্যক্তিনন উনি একটি প্রতিষ্ঠান প্রধান উনি একটি প্রতিষ্ঠান তাই উনার বক্তব্যে নিজের আবেগ না থাকাই বাঞ্ছনীয় । ব্যক্তি ক্ষোভ তোষামোদি এই সকল ভাবনা উনার বক্তব্যে আশা বাঞ্ছনীয় নয় আমাদের প্রতিষ্ঠান প্রধানদের চিন্তা করা প্রয়োজন কারণ উনারা সমাজের দিক প্রদর্শন করে থাকেন উনাদের বক্তব্যে ব্যক্তি আবেগ,বন্ধু প্রেম সমাজের জন্য ক্ষতিকর । ধন্যবাদ -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post June 3  . at 07:00am • 2018
**
ভালো আছি না থাকার চেষ্টা করছি বুঝতে পারছি না, কেউ একজনকে বলেছিলাম ভালো থাকার প্রেসক্রিপশনটা হারিয়ে ফেলেছি যদি থাকে আপনার কাছে by order পোস্ট অফিসে পাঠিয়ে দিন সেও পাঠালো না আর অপেক্ষাও শেষ হচ্ছে, না বুঝতেই পারছি না আসলে আছি কোথায়। -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post June 14  . at 08:00am • 2018
**
মায়া-মমতা-সম্মান অর্থেই হোক আর প্রণয় অর্থেই হোক,ভালবাসা মানে হল কারো ভাল চাওয়া। ভাললাগা থেকেই জন্ম নেয় ভালবাসার। প্রাণীর মাঝে তৈরি হওয়া ভাল অনুভূতি ধীরে ধীরে রূপ নেয় ভালবাসায়, ভালবাসার কোন সীমানা থাকতেনেই কেবল পরিবারের প্রতি ভালবাসা এটা কোন ভালবাসার সংজ্ঞা হতে পারেনা তবে মাঝে মাঝে বুঝতে কষ্ট হয় কোন্টি ভাললাগা আর কোন্টি ভালবাসা। ভাললাগা আর ভালবাসা দুটার সৃস্টি অনুভূতি থেকে "অনুভূতি"একটি ক্ষুদ্র শব্দ হইলেও ইহার বিস্তৃতি বৃহৎ। অনুভূতিটাই মানব জীবনের সব কিছু। অনুভূতি দিয়েই সম্পর্ক বুঝাযায় অনুভূতির কারনেই নষ্ট হয় সম্পর্কটা। অনুভতি দিয়েই মন মনকে স্পর্শ করে। অনুভূতির কারনেই মন, মন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। মানুষের জীবন চলার গতি পথ সৃষ্টি হয় অনুভূতি দিয়ে। ভাল মন্দের বিচার হয় অনুভূতি দিয়ে। এই যখন আনুভূতির প্রকৃতি তখন যদি প্রশ্ন করি ভালোবাসার অনুভূতি কেমন ? অন্যর প্রতি কেয়ার,অভিমান,ঝগড়া,অনেক অনেক বিশ্বাস যাকে অসম্ভব আমি আমার ভাষায় ভালোবাসা বলতে পারি ।
Love encompasses a variety of different emotional and mental states, typically strongly and positively experienced, ranging from the most sublime virtue or good habit, the deepest interpersonal affection and to the simplest pleasure. (Wikipedia)।
পাগলী আমার ঘুমিয়ে পড়েছে মুঠোফোন তাই শান্ত, আমি রাত জেগে দিচ্ছি পাহারা মুঠোফোনের এই প্রান্ত । এ কথা যদি সে জানতো ? আমিও দিই না জানতে। এক প্রবাসী মজুর বাবা তার গ্রামের ষোড়শী কন্যাকে নিয়ে লেখা কোথায় যেন পড়েছিলাম কার লেখা তাও আজ আর মনে নেই তবে ভালবাসার যে অনুভূতিটা পেয়েছিলাম তা আজও মনে একটা বিশাল দাগ কেটে রেখেছে। জীবনের বিভিন্ন সময় নানা ঘটনায় বিশেষ কিছু অনুভূতি ও অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছি এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে প্রতিক্রিয়াশীল হয়েছে মানসিকতা,ভাবতাম মানুষ হবো, উত্তরাধিকারীদের শক্তিমত্তাকে ছড়িয়ে দেব মানবিক সৌন্দর্য্য,ঘৃণা কে প্রেমে আর পাওয়া নাওয়ার হিসাব না কষে নিজের মনের কিছু অব্যক্ত কথা,বাসনা ছড়িয়ে দিয়ে মানবতার মধ্যে তৃপ্তিবোধ নিয়ে দাড়িয়ে থাকার মতো কেমন যেন একটা অনুভূতি লক্ষ্য করতাম নিজের মাঝে তবে কে জেন বলেছিল এক চরম সত্য বাণী চাইলেই সব অনুভূতি প্রকাশ করা যায় না আর চাইলেই সব পরিণতি মনের মতো হয় না। -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post June 19  . at 09:00am • 2018
**
আজ একটু আগে ফেসবুকে এক বন্ধুর একটি পোস্ট দেখলাম দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকায় ২৫ জুন প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন যে পোস্টের ছবিটা দেখে পরিচিত কিছু মুখ মনে হল তাই পোস্টটি সম্পূর্ণরূপে দেখতে শুরু করলাম এক পর্যায়ে পোস্টার মধ্যে লেখাটি পড়ে সত্যিই অবাক হলাম যে মানুষ কতটা নির্লজ্জ হলে এইভাবে লিখতে পারে, অন্যথায় চাটুকারিতার নির্দিষ্ট একটা সীমাবদ্ধতা থাকা প্রয়োজন, দেশের একটি জাতীয় পত্রিকায় এত বড় একটি প্রতিবেদনে এত বড় ভুল কি করে হতে পারে আমার বোধগম্য হচ্ছে না।
প্রতিবেদনটিতে আমার বলার মতো অনেক কিছু ছিল কিন্তু সময় স্বল্পতার জন্য সামান্য কিছু কথা না বললেই নয় এখানে প্রথমত আমি আ'লীগের অংশ থেকে এক দুটি কথা উল্লেখ করব এখানে এমন এমন ব্যক্তিদের চাটুকারিতা,তোষামদী করেছেন প্রতিবেদক যা সত্যিই লজ্জাজনক এবং এমন এমন ব্যক্তিকে ছোট করার জন্য যেভাবে লিখেছেন তা সত্যি দুঃখজনক। বর্তমান এমপি কে তিনি যেভাবে মূল্যায়ন করেছেন তা দুঃখজনক আর জনাব আলহাজ্ব ওয়াহিদ সম্পর্কে যেসব কথার বাহার তিনি করেছেন তা সংবাদের ভাষা থেকে আমার কাছে চাটুকারিতা মূলক বেশি মনে হয়েছে ।
যাইহোক আমি মূলত লিখতে চেয়েছিলাম বিএনপি'র অংশ টুকু নিয়ে কারণ যেখানে আমার কাছে মনে হয়েছে প্রতিবেদক হয়ত পিতা ছাড়া কোন সন্তানের জন্মের কথাই কল্পনা করেছেন তা না হলে ভালুকা বিএনপি'র সভাপতি ফখরুদ্দিন আহমেদ এর নামেটি তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রাখা না রাখা কোন ব্যাপারই উনি মনে করেন নি ।
এখানে দুটি কথা হতে পারে কারন এত বড় মাপের পত্রিকাতে এই প্রতিবেদনটি করেছেন প্রতিবেদকে হয়ত ফখরুদ্দিন আহমেদ তাকে বলেছে তিনি রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস জীবন নিয়েছেন অন্যটি এই প্রতিবেদকেরচে বড় চাটুকার,তোষামদী,অক্ষম প্রাণী (কি ভাষায় বললে উনি আসলে বুঝবেন আমার ঠিক এই মুহূর্তে বোধগম্য হচ্ছে না) নেই।-(হাজী সানি) Facebook Timeline Post June 25  . at 12:00am • 2018
**
আমার ফেসবুকের সমস্ত পোস্ট সবার জন্য উন্মুক্ত তাই আমার পোস্টে মন্তব্য করতে বন্ধু হওয়ার প্রয়োজন পড়ে না অনুগ্রহ করে কেউ কোন পোষ্টের ব্যাপারে ইনবক্সে বিরক্ত করা থেকে বিরত থাকবেন কারণ তোষামোদী চাটুকারিতা আমার মোটেও পছন্দ নয় যখন আপনি আপনার মন্তব্য সবার সম্মুখে করার মত সৎ সাহস রাখেন না তখন ইনবক্সে তেলবাজি করার মোটেও মানানসই হয় না এতে আপনার চরিত্র আমার কাছে প্রশ্ন বোধক চিহ্ন হয়ে থাকে। আর যারা ইনবক্সে হুমকি-ধমকি দিয়ে থাকেন তাদেরকে আমি ব্লক করি না একটিমাত্র কারণে কারণ যদি ব্লক করে দেই তাহলে মনে করবে আমি তাকে ভয় করে ব্লক করে দিয়েছি আর আমার লেখা পড়তে পারবে না কিন্তু আপনার ইনবক্সে ব্লক করে দেওয়া হয় কারণ আমার কাছে সেই সব ব্যক্তি ঘৃণিত প্রাণীর সমতুল্য যারা জনসম্মুখে না প্রশংসা করতে পারে না প্রতিবাদ করতে পারে কিন্তু ইনবক্সে তোষামোদির বাহার তুলে প্রতিবাদের ঝড় উঠাই সেই সব ব্যক্তি আমার চোখে ঘৃণিত প্রাণীর চেয়েও অধম। গালি যদি দিতে হয় পোষ্টের মধ্যে সবার সম্মুখে পিতৃপরিচয় থাকা সন্তান এর মত গালি দিন পিতৃপরিচয়হীন ব্যক্তির মত ইনবক্সে হুমকি-ধমকি তেলবাজি চাটুকারিতা আমার পছন্দ না। ধন্যবাদ । -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post June 27  . at 08:00am • 2018
**
ময়মনসিংহ-১১ (ভালুকা) আসন থেকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ্ব এম.এ.ওয়াহেদ যার নামের সাথে আরও অনেক বিশেষণ যুক্ত হয়ে থাকে (দানবীর ক্ষেত বিশিষ্ট শিল্পপতি, পাপুয়া নিউগিনি আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগ নেতা ইত্যাদি ইত্যাদি ) যাই হোক ওটা আমার কোনো সমস্যা নয় আমার দৃষ্টিতেও উনি একজন ভালো মানুষ সবচেয়ে বড় কথা কিছুদিন পূর্বে উনি উনার এলাকায় একটি বিশাল মসজিদ নিজের অর্থায়নে নির্মাণ করেছেন যা অনেকের মধ্যেই কল্পনার অতীত যে কাজটি আমার কাছে নিঃসন্দেহে একটি মহৎ কাজ যাই হোক আমার এখনকার কথার সাথে উনার ব্যক্তিজীবনের কোন সম্পর্ক নেই লেখাটি গত কাল ২৬ জুন উনার আলহাজ্ব এম ওয়াহিদ নামক facebook আইডির একটি পোস্ট এর ভিত্তিতে যেখানে জনাব ওয়াহেদ কিছু ছবির সাথে ছোট্ট একটি ক্যাপশন ব্যবহার করেছেন আমার আজকের এই লেখা টি ঐ ক্যাপশনটাকে প্রশ্নবোধক করে।
জনাব আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদ উনার আইডিতে ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন আমার নির্বাচনী এলাকা ১৫৬ ময়মনসিংহ ১১ ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নে নৌকার পক্ষে গণসংযোগ। আমার প্রশ্ন হচ্ছে আমার নির্বাচনী এলাকা এই কথাটি কি করে লিখেছেন তিনি। আমি যতটুকু জানি ভালুকা থেকে উনি এখনো কোনো সময় জাতীয় সংসদের কোন পর্যায়ের নির্বাচনে এখন পর্যন্ত অংশগ্রহণ করেননি তাহলে এ এলাকাটি উনার নির্বাচনী এলাকা উনি কি করে বলতে পারেন, সে বর্তমান অথবা সাবেক কোন কালেই এই আসনের এমপি ছিলেন না তবে তিনি কি করে বলতে পারেন আমার নির্বাচনী এলাকা ১৫৬ ময়মনসিংহ ১১ ভালুকা।
এইজন্য গতকাল ২৬ জুন সারাদিন মোটামুটি ভালুকার বেশ কয়জন জ্ঞানী-গুণী সম্মানিত শিক্ষিত ব্যক্তি কে এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে (আমার নির্বাচনী এলাকা এই ভাষাটি কে ব্যবহার করতে পারে) তারা সবাই মোটামুটি এমন উত্তর দিয়েছেন যে এই কথাটি সাধারণত স্থানীয় এমপি নিজে ব্যাবহার করতে পারেন অথবা জাতীয় সংসদে ব্যবহৃত হয়ে থাকে । তারপর হয়তো বিষয়টি আমার ভুলও হতে পারে যদি কোন ব্যক্তির এই সম্পর্কে কোন ধারনা থেকে থাকে আমার কথাটা ভুল প্রমাণ করার মতো যথেষ্ট পরিমাণ যুক্তি থাকে তবে মন্তব্যে আমার ভুলটা সংশোধনের জন্য অনুরোধ রইল। -(হাজী সানি) Facebook Timeline Post June 28  . at 07:18am • 2018
**
I don't care what people think of me. At-least gratuity is attracted to me.It's enough encouragement to I love my work . hajee sunny Facebook Timeline Post July 18 at 1:31 AM  • 2018

Thanks to all those friends and followers on facebook who liked my writing and pictures and read the text with their valuable time and presented their own statement.(hajee sunny) Facebook Timeline Post July 20 at 9:31 AM  • 2018





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

কলাম বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৫ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই