তারিখ : ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গৌরীপুরে শাশুড়িকে আহত করল জামাতা

গৌরীপুরে মেয়েকে মারধরের প্রতিবাদ করায় শাশুড়িকে আহত করল জামাতা
[ভালুকা ডট কম : ০৯ আগস্ট]
যৌতুকের টাকার জন্য চোখের সামনে নিজ মেয়েকে অমানসিক নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় মাদকাসক্ত মেয়ে জামাতা আকবর আলীর (৩০) বেধড়ক মারধরে গুরুতর আহত হলেন বৃদ্ধা শ্বাশুড়ি ফাতেমা (৫৫) । বুধবার (৮ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়নের মেছিডেঙ্গি গ্রামে আব্দুল মুন্নাফের ছেলে আকবর আলীর বাড়িতে। আহত বৃদ্ধা ফাতেমাকে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ মারধরের ঘটনায় গৌরীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

উল্লেখিত একই ইউনিয়নের কাউরাট গ্রামের আবুল কাশেমের স্ত্রী ফাতেমা জানান তার মেয়ে নার্গিছকে ১২ বছর আগে আকবর আলীর সাথে বিয়ে দেন। বিয়ের পর তার মেয়ে এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক হয়। বিয়ের শুরু থেকেই আকবর আলী নানা অজুহাতে তার মেয়েকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে। মেয়ের সুখের কথা ভেবে বেশ কয়েকবার তাকে টাকাও দেয়া হয়। এক পর্যায়ে আকবর জুয়াসহ মাদক নেশায় আসক্ত হলে বাপের বাড়ি  থেকে পুনরায় টাকা আনার জন্য নার্গিসের ওপর প্রতিনিয়ত নির্যাতন চালাতো। ঘটনার দিন ফাতেমা মেয়ে জামাতার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে দেখেন, আকবর আলী তার মেয়েকে টাকার জন্য মারধর করছে । এসময় এর প্রতিবাদ করায় আকবর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে (শ্বাশুড়িকে) বেদম মারধর করে আহত করে।

স্থানীয় লোকজন জানান আকবর আলী একজন জুয়ারী ও মাদকসেবী। সে নার্গিছকে না জানিয়েই ২য় বিয়ে করেছে অভিযোগ রয়েছে। গৌরীপুর থানার এস আই রুহুল আমীন সাংবাদিকদের জানান উল্লেখিত ঘটনায় ফাতেমা বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্তের পর উক্ত বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৫ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই