তারিখ : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

যশোরের নওয়াপাড়ায় ডক্টরস্ ক্লিনিকে রোগীর পেটে গজ রেখে সেলাই

যশোরের নওয়াপাড়ায় ডক্টরস্ ক্লিনিকে রোগীর পেটে গজ রেখে সেলাই
[ভালুকা ডট কম : ১৪ আগস্ট]
যশোরের নওয়াপাড়া উপজেলার ডক্টরস্ ক্লিনিকে রোগীর পেটে ‘গজ-ব্যান্ডেজ রেখেই সেলাই’ করবার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিষ্ঠানের দোষ ঢাকতে ভুক্তভোগী রোগী ও রাজনৈতিক নেতাদের কাছে দৌড় ঝাঁপ করছেন ক্লিনিক মালিক ডাক্তার আব্দুল গফফার।ভুক্তভোগি আকলিমা খাতুন যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ভরতপুর গ্রামের তাজামুল দফাদারের স্ত্রী ও নওয়াপাড়া ষ্টেশন এলাকার ওহাবের মেয়ে।

ভুক্তভোগির স্বজন সূত্র জানায়, ১৭ জুলাই নওয়াপাড়া হাসপাতাল রোডস্থ ডক্টরস্ ক্লিনিকে আব্দুল গফফার তার স্ত্রীকে সিজার করেন। এক মাস পরে স্ত্রীর সিজার করা ক্ষতস্থান থেকে রক্তপাত হয়। ৯ আগস্ট আকলিমা যশোর শহরের জনতা হাসপাতালে ভর্তি হয়। এরপর ডাক্তার ওয়াহিদুজ্জামান আসাদ তাকে ব্যবস্থাপত্র দেয়া শুরু করেন। পরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ধরা পড়ে পেটের মধ্যে কিছু একটা রয়েছে। পরে উভয়ের সিদ্ধান্তে অপারেশনের পরামর্শ দেয়া হয়। পরিবারের সদস্যরা রোগীর কথা বিবেচনা করে অপারেশন করাতে রাজিও হন। পরে গত ১০ আগষ্ট হাসপাতালের অপারেশন করে রোগীর পেট থেকে গজ-ব্যান্ডেজ বের করা হয়।

ডাত্তার আব্দুল গফফার জানান, মানুষ মাত্রই ভুল হয়। ভাই আমার ভুল স্বীকার করছি। এ বারের মতো ক্ষমা করে দেন। এমন ভুল আর কখনো হবেনা।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই