তারিখ : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

যানজট ও পণ্যজটে স্থবির বেনাপোল স্থলবন্দর

যানজট ও পণ্যজটে স্থবির বেনাপোল স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানি বাণিজ্য
[ভালুকা ডট কম : ০৭ সেপ্টেম্বর]
দেশের বৃহত্তর স্থলবন্দর বেনাপোলে ভয়াবহ যানজট দেখা দিয়েছে। টানা তিন দিনের লাগামহীন যানজট ও পণ্যজটে বেনাপোল বন্দর স্থবির হয়ে পড়েছে। আমদানি-রফতানি বাণিজ্যে নেমে এসেছে অচলাবস্থা। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পচনশীল পণ্যসামগ্রী। এতে করে দুর্ভোগে পড়ছেন পথচারীসহ স্থানীয়রা।

ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকছে দূরপাল্লার পরিবহন, পাসপোর্ট যাত্রীসহ পণ্যবোঝাই শত শত  ট্রাক। ঢাকা-কোলকাতা মহাসড়কের বেনাপোলে প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকাজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে যানজটের। দিন দিন বাড়ছে পণ্য ও যানজট।প্রতিবছর স্থলবন্দর বেনাপোল থেকে সরকার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে ৬/৭ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব পেলেও বন্দরের অবকাঠামোগত উন্নয়ন তেমন হয়নি। জায়গা শেড ইয়ার্ড সংকট কমেনি। হাজারও ট্রাকের চ্যাচিসসহ আমদানি-রফতানিককৃত পণ্যবাহী ট্রাক বন্দরের প্রধান সড়কের উপরে রাখায় বাড়ছে যানজট ও পণ্যজট।

ট্রাকচালক রফিকুল ইসলাম বলেন, দুর্বল ট্রাফিক ব্যবস্থাসহ বন্দরের জায়গা স্বল্পতা, এখানে নেই কোন ট্রাফিক ব্যবস্থা, আছে চাঁদা কালেকশনের মহা-ব্যবস্থা। আমরা এইসব থেকে মুক্তি চাই।ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাল জানান, সম্প্রতি বেনাপোল বন্দর এলাকা যান ও মানব চলাচলে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। প্রতিনিয়ত ভয়াবহ যান ও পণ্যজটের কবলে পড়ে দুর্ভোগ বাড়ছে মানুষের। পাসপোর্ট যাত্রীসহ পথচারী ও বন্দর ব্যবহারকারীরা পড়ছেন বিপাকে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানসহ ব্যবসায়ীরা। পণ্যজটে আটকা পড়ে খালাসে বিলম্ব হওয়ার ফলে লোকশান গুনতে হচ্ছে।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন ও ভারত বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান বলেন, জায়গা ও ইকুপমেন্ট সমস্যা দীর্ঘদিনের। বন্দরে কমপক্ষে ৩শ’ একর জমি অধিগ্রহণ করে বাণিজ্যকে গতি ফেরাতে হবে। বেনাপোলে পণ্যজটের কারণে ইতোমধ্যে ব্যবসায়ীরা অন্য বন্দর ব্যবহার করতে শুরু করেছে ।

বেনাপোল বন্দর পরিচালক আমিনুর রহমান জানান, আমদানি-রফতানি বাণিজ্যে গতি ফেরাতে ও যানজট নিরসনে কাজ করছেন। দফায় দফায় প্রশাসন ও বন্দর ব্যবহারকারী বিভিন্ন সংগঠনের সাথে বৈঠক করে সমস্যা সমাধানে চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই