তারিখ : ১৫ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ

নান্দাইলে ১০টাকা কেজি মূল্যের চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ
[ভালুকা ডট কম : ০৭ নভেম্বর]
ময়মনসিংহের নান্দাইলে সরকারের জনবান্ধব কর্মসূচীর ১০টাকা কেজি মূল্যের চাল বিতরণে ওজনে কম দেওয়ার এক গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরকারের কঠোর হুশিঁয়ারী থাকা সত্বেও থেমে নেই  চাল বিক্রীর অনিয়ম ও দূর্নীতি।

জানাযায়, নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের কালেঙ্গা বাজারে জনপ্রতি ভোক্তভোগীকে ১০ টাকা কেজি মূল্যের ৩০ কেজি চাল দেওয়ার কথা। কিন্তুু ৩০ কেজি চাল বিতরণে ২৫/২৬ কেজি চাল দেওয়া হচ্ছে। এতে প্রতি ভোক্তভোগী ৪/৫ কেজি করে চাল ওজনে কম পাচ্ছে। এ নিয়ে এলাকায় জনমনে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। তাই উক্ত ক্রেতারা স্থানীয় ইউপি সদস্য আনিছুল হক আঞ্জু ও মো. জালাল মেম্বরসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি নতুন করে পরিমাপ করেন। এতে ওজনে কম পাওয়ায় হাতে-নাতে অনিয়ম ধরা পড়ে।

কালেঙ্গা বাজারের চাল বিতরণে দায়িত্ব প্রাপ্ত উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. নুরুল হক জানান, বুধবার সকালে চাল বিতরণ শুরু করে প্রশাসনিক কারনে তিনি নান্দাইল সদরে চলে আসেন। এই সুযোগে ডিলার মো. আবু এমরান ওজনে কম দিয়েছেন বলে আমি জানতে পারি।

ডিলার জানান, ৪/৫ জনের চাল ওজনে কম হয়েছিল। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উপস্থিতিতে তা পুরণ করা হয়েছে। মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের সদস্য আঞ্জু মিয়া ও জালাল মেম্বার জানান, উক্ত ডিলার প্রতি মাসেই চাল বিতরণে অনিয়ম ও দূর্নীতি করে থাকেন। তারা ডিলারশীপ বাতিল করে নতুন ডিলার নিয়োগের দাবী জানিয়েছেন।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই