তারিখ : ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

কালিয়াকৈরে ছাত্রীকে উত্যাক্তের প্রতিবাদে অভিভাবককে মারধর

কালিয়াকৈরে ছাত্রীকে উত্যাক্তের প্রতিবাদে অভিভাবককে মারধর
[ভালুকা ডট কম : ১২ নভেম্বর]
গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চাপাইর এলাকায় ইউনাইটেড স্কুলের পঞ্চম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে উত্যাক্ত করার প্রতিবাদ করায় অভিভাবককে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার সন্ধ্যায় চাপাইর ছাত্রীর নিজ বাড়ীতে ঢুকে ওই এলাকার ফারুক হোসেনের ছেলে ফাহিম হোসেন(১৮) দলবল নিয়ে ছাত্রীর মা তানিয়া ইসলামকে একা পেয়ে মারধর করে চলে যায়। পরে রবিবার রাতে  ছাত্রীর মা বাদী হয়ে তিন জনকে আসামী করে কালিয়াকৈর থানায় একটি  মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার চাপাইর এলাকার ফারুক হোসেনের ছেলে ফাহিম  ওই ছাতীকে প্রায়ই প্রেম প্রস্তাব দিয়ে উত্যাক্ত করে আসছিল। মেয়েটি ওই লম্পটকে বার বার তার প্রস্তাব প্রত্যাখান করে তাকে উত্যাক্ত না করার জন্য অনুরোধ করলেও ফাহিম তার কথায় কোন কর্নপাত করেনি। গত শুক্রবার বেলা ১২টার সময় ওই ছাত্রী বাড়ী ফেরার পথে কালিয়াকৈর ফুলবাড়িয়া রোডের কালিয়াকৈর পাল পাড়া এলাকায় তাকে একা পেয়ে জোড়পূর্বক রাস্তার পাশে নিয়ে ছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে জড়িয়ে ধরে মোবাইলে ছবি তুলে।

বিষয়টি বাড়ীতে গিয়ে তার মাকে জানালে ছাত্রীর মা ছবি তোলার কারন জানতে চায় এবং ভবিষ্যতে যাতে আর উত্যাক্ত না করে সে জন্য অনুরোধ করেন । সেই আক্রোসে ফারুক তার দলবল নিয়ে ছাত্রীর বাড়ীতে গিয়ে তার মাকে এলোপাথারী মারধর করে হুমকি দিয়ে চলে আসে।পরে ওই ছাত্রীর বিষয়টির  বিভিন্ন লোকজনের নিকট বিচার চেয়ে বিমুখ হয়ে রাতে এসে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এব্যাপারে কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই)আতিকুর রহমান রাসেল জানান,রবিবার রাতে পঞ্চম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে উত্যাক্তের ঘটনায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৪২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই