তারিখ : ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলের ঐতিহ্যবাহি ঢেঁকি শিল্প আজ বিলুপ্তির পথে

নান্দাইলের ঐতিহ্যবাহি ঢেঁকি শিল্প আজ বিলুপ্তির পথে
[ভালুকা ডট কম : ০৩ ডিসেম্বর]
ময়মনসিংহের নান্দাইল সহ প্রত্যন্ত গ্রাম্যঞ্চলে এখন আর ঢেঁকির চিহ্ন খোঁজে পাওয়া যায় না। শোনা যায় না ঢেঁকির ঢেঁকুর ঢেঁকুর শব্দ। অথচ ১৫/২০বছর আগেও গ্রাম অঞ্চলে প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই ঢেঁকি ছিল। ছিল ঢেঁকির ঘর। আধুনিকতার ছোঁয়ায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি ঢেঁকি শিল্প আজ বিলুপ্তির পথে। শবেই-বরাত ঈদ, পূজা পার্বন সহ নতুন ধান গড়ে উঠার আগেই গ্রাম্য বধুরা ঢেঁকি মেরামতে ব্যস্ত হয়ে পড়তেন।

ঢেঁকি ঘর লেপে মুছে প্রস্তুত করে রাখতেন তারা। ঘরে ঘরে চিড়া কোটা, চাল ও চালের গুড়া করার প্রস্তুতি চলত। বাড়িতে আত্মীয় স্বজন এলে শীত মৌসুমে পিঠা তৈরির জন্য ধূম পড়ে যেত।  গ্রামের বধুরা ভিড় জমাতেন ঢেঁকিঘরে। এম এক সময় যখন ঢেঁকি গৃহস্থালির নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর মধ্যে অন্যতম উপকরণ ছিল। এটি ছিল গৃহস্থ বাড়ির একটি গুরুম্বপূর্ন উপকরণ। গৃহিণীরা ঢেঁকিতে ধান ভেঙে চাল তৈরি করতেন। ভোর থেকে সারাদিন পর্যন্ত পালাক্রমে চলতো তাদের ধানভাঙ্গা ও চালের গুড়াঁ করার কাজ। এসব কাজে গৃহিণীদের সহযোগিতা করতেন গ্রামের নারী শ্রমিকরা। বিনিময়ে তারা পেতেন কিছু চাল।ঢেঁকির ঢেঁকুর ঢুঁকুর মিষ্টি মধুর শব্দৈর সঙ্গে তাল মিলিয়ে মনের সুখে গুনগুনিয়ে গান গাইতেন ও চলতো পান খাওয়ার আড্ডা। এখন আধুনিকতার যান্ত্রিক যুগে ঢেঁকির সঙ্গেই হারিয়ে গেছে গ্রাম্য বধূদের মনের আনন্দে গান-গীতি গাওয়া ও পান খাওয়ার আড্ডা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় যে, নাখেরাজ গ্রামে সাইফুল বাড়িতে ও আচারগাঁও ইউনিয়ন সহ নান্দাইল উপজেলা প্রায় ১০/১২টি পরিবারের লোকজন শৌখিনতার বসে অতিযত্মে এখনো রেখে দিয়েছেন ঢেঁকি। মাসে অথবা বছরে তৈরির কাজে ব্যবহার করছেন ঢেঁকি। আচারগাঁও ইউনিয়নের আনছার আলীকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, মূলত ৭০দশকের পর ইঞ্জিনচালিত ধানভাঙ্গা কল আমদানির পর গ্রাম্যঞ্চলে থেকে ঢেঁকি বিলীন হওয়া শুরু হয়েছে। ক্রমান্বয়ে ঐতিহ্যবাহি ঢেঁকি প্রায় বিলুপ্তি হয়ে গেছে। যান্ত্রিক সভ্যতা গ্রাস করে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি কাঠের ঢেঁকি শিল্পকে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

লাইফস্টাইল বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৪২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই