তারিখ : ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

সখীপুর সড়কের বেইলী সেতুর পাটাতন ভেঙে যান চলাচল বন্ধ

সখীপুর- সীডস্টোর সড়কের বেইলী সেতুর পাটাতন ভেঙে যান চলাচল বন্ধ
[ভালুকা ডট কম : ১২ জানুয়ারী]
টাঙ্গাইলের সখীপুর-বাটাজোর সড়কে কীর্ত্তনখোলা ধুমখালি এলাকায় বেইলী সেতুর পাটাতন ভেঙে গত দুই সপ্তাহ ধরে সকল ধরনের ভারী যানবাহন চলাচল  প্রায় সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে। গত দুই সপ্তাহ আগে একটি মালবাহী ট্রাকের চাপে জরাজীর্ণ ওই সেতুর পাটাতন ভেঙে দুর্ভোগে পড়েছেন ওই সড়কে চলাচলকারী।

জানা যায়, সখীপুর সদর থেকে সীডস্টোর হয়ে ময়মনসিংহের ভালুকা, গফরগাঁও, গাজীপুরের শ্রীপুর ও মাওনা যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি। এছাড়াও সখীপুর  সদর থেকে রাজধানী শহর ঢাকা যাতায়াতের বিকল্প  সড়কও এটি। প্রতিদিন ওই সড়কে মালবাহী ট্রাক, পিকআপ, প্রাইভেট, মাইক্রোবাসসহ প্রায় হাজার খানেক সিএনজি চালিত অটোরিকশা চলাচল করে থাকে। সেতুটি ভেঙে পড়ায় ওইসব এলাকার পন্যবাহী ট্রাক, পিকআপ ও যাতায়াতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন ব্যবসায়ী ও সাধারণ লোকজন ।

ওই সড়কে নিয়মিত চলাচলকারী আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রায় ২০-২৫ বছর আগে কীত্তণখোলা ধুমখালি এলাকায় ওই ব্রিজটি নির্মিত হয়েছে। গত ২/৩ বছর ধরে সেটুটির অবস্থা খুবই জরাজীর্ণ। বছরে ২/৩ বার সেটুটির মেরামত করতে হয় । শিগগিরই বেইলি সেতুর পরিবর্তে পাকা ব্রিজ নির্মাণ করা না হলে যে কোনো মুহুর্তে প্রাণহাণির মত ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল (এলজিইডি) কাজী ফাহাদ কুদ্দুস বলেন, ওই ব্রিজটি ভেঙ্গে একটি নতুন ব্রিজ নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে প্রকল্প পাঠানো হয়েছে। আশা করছি, জুন মাসের মধ্যেই অনুমোদন পাব। চলাচল স্বাভাবিক করতে শিগগিরই সেতুর ভেঙে যাওয়া পাটাতনটি সংস্কার করে দ্রুত সড়কটি চলাচলের উপযোগী করা হবে বলেও তিনি জানান।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই