তারিখ : ২৫ মার্চ ২০১৯, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

এলপিজি সিলিন্ডার দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে করণীয়

এলপিজি সিলিন্ডার দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে করণীয়
[ভালুকা ডট কম : ২৩ ফেব্রুয়ারী]
বিজ্ঞান আমাদের জীবনে অনেক সাচ্ছন্দ্য দিয়েছে। সেইসাথে ভয়াবহ আতংকও দিয়েছে যদি বিজ্ঞানকে আমরা সঠিক নিয়মে ব্যবহার না করি। গত এক দশকে আমাদের দেশে ঘটে গেল কতগুলো ভয়াবহ দুর্ঘটনা। নিমতলি ট্রাজেডি, তাজরীন গার্মেন্টস ট্রাজেডি ও এবার ঘটে গেল চকবাজার ট্রাজেডি। এতে অগণিত মানুষ ও জানমালের ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। মর্মান্তিক এসব দুর্ঘটনায় সারাদেশের মানুষ খুবই মর্মাহত হয়েছেন।

ইদানীং হোটেল রেস্তোরাঁ, দোকানপাট ও বাসাবাড়িতে এলপিজি সিলিন্ডার ব্যবহারে অসতর্কতা বা ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতি না জানার কারণে অহরহই গ্যাস বিস্ফোরণ এবং অগ্নিদুর্ঘটনা ঘটছে। তাই এলপিজি সিলিন্ডারের সঠিক ব্যবহারে বেশ কিছু নির্দেশনা জানা জরুরী।

এসব দুর্ঘটনা এড়াতে নিন্মোক্ত নির্দেশনা অনুসরণ জরুরি।
১। আগুন বা অন্য কোনোভাবে সিলিন্ডার গরম হলে তরল এলপিজি দ্রুত গ্যাসে রূপান্তরিত হয়ে অসাভাবিক চাপ বৃদ্ধির ফলে সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হতে পারে। সিলিন্ডার কোনোভাবেই চুলার বা আগুনের পাশে রাখা যাবে না, এতে বিস্ফোরণ ঘটতে পারে। অতিরিক্ত গ্যাস বের করার জন্য সিলিন্ডারে তাপ দেয়া যাবে না।
২। রান্না শেষে চুলা ও এলপিজি সিলিন্ডারের রেগুলেটরের সুইচ অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। গ্যাসের গন্ধ পেলে ম্যাচের কাঠি জ্বালানো যাবে না, ইলেকট্রিক সুইচ এবং মোবাইল ফোন অন বা অফ করা যাবে না।
৩। ঘরে গ্যাসের গন্ধ পেলে দ্রুত দরজা-জানালা খুলে দিতে হবে এবং এলপিজি সিলিন্ডারের রেগুলেটর বন্ধ করতে হবে। রান্না শুরু করার আধাঘণ্টা আগে রান্নাঘরের দরজা-জানালা খুলে দিতে হবে। সিলিন্ডার খাড়াভাবে রাখতে হবে, কখনই উপুড় বা কাত করে রাখা যাবে না।
৪। চুলা সিলিন্ডার থেকে নিচুতে রাখা যাবে না, কমপক্ষে ৬ ইঞ্চি ওপরে রাখতে হবে। চুলা হতে যথেষ্ট দূরে বায়ু চলাচল করে এমন স্থানে সিলিন্ডার রাখা উচিত। রান্নাঘরের ওপরে ও নিচে ভেন্টিলেটর রাখা উচিত। সিলিন্ডারের ভাল্বের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ রেগুলেটর ব্যবহার করা উচিত।
৫। কিছুদিন পরপর সিলিন্ডারের যন্ত্রাংশ ত্রুটি আছে কি না খেয়াল   করে তা সারাতে হবে।
৬। রান্নাঘর, হোটেল রেস্তোরাঁয় চুলার পায়াএই কমপক্ষে একটি অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র (এক্সটিংগুইসার) ও এক ড্রাম পানি রাখতে হবে।
৭। বৈদ্যুতিক লাইন নিরাপদ রাখতে হবে।
৮। দৃশ্যমান স্থানে ফায়ার স্টেশনের নাম্বার ঝুলিয়ে রাখতে হবে।
৯। রান্নাবান্নার সময় ঢিলেঢালা কাপড় থেকে অসচেতনতাবশত অগ্নি দুর্ঘটনার সুত্রপাত হতে পারে।
১০। সবাইকে অগ্নি নির্বাপন প্রশিক্ষণ নেওয়া জরুরী।





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৬০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই