তারিখ : ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ত্রিশালের মেধাবী শিক্ষার্থী সাদী বাঁচতে চায়

ত্রিশালের মেধাবী শিক্ষার্থী সাদী বাঁচতে চায়
[ভালুকা ডট কম : ২৪ ফেব্রুয়ারী]
ময়মনসিংহের ত্রিশালের মেধাবী শিক্ষার্থী  শেখ সাদী  মরণব্যাধি গুলেন ব্যারি সিনড্রোম(জিবিএস) রোগে আক্রান্ত হয়েছে ।  মেধাবী সাদী বাঁচতে চায় ।ব্যয়বহুল চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগীতা  চাচ্ছেন  তার অসহায় পরিবার।

ত্রিশাল  পৌরসভার  ৯ নং ওয়ার্ড দরিরামপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত শাহজাহান সিরাজের একমাত্র ছেলে মেধাবী শেখ সাদী। বাবার মৃত্যুর পর সরকারী  নজরুল ডিগ্রি কলেজে ডিগ্রিতে পড়াশুনার পাশাপাশি দেখাশুনা করত বাবার রেখে যাওয়া একমাত্র সম্বল ফ্রেক্সিলোডের দোকানটি। দোকানের স্বল্প আয় দিয়ে চলতো নিজের লেখা পড়া মা ও একমাত্র ছোট বোনের লেখাপড়া ও  সংসারের  খরচ।

০৮ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার সকালে হটাৎ সাদীর হাত-পা অবশ ও ব্যথা অনুভব করলে তার মা শিরিন আক্তার দ্রুত তাকে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে।  পরেদিন সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা  ঢাকা আগারগাঁও ন্যাশনাল ইনষ্টিটিটিউট অব নিউরো সাইন্স ও হাসপাতালে দ্রুত সময়ের মধ্যে ভর্তির পরামর্শ দেন।

পরে ওইদিন বিকেলে তাকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করে তার পরিবার। পরীক্ষা-নিরিক্ষার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান সাদী গুলেন ব্যারি সিনড্রোম রোগে আক্রান্ত হয়েছে। চিকিৎসক আরো জানান, ওই রোগের চিকিৎসার জন্য ২১ দিনের অধিক সময় সাদীকে ভর্তি রেখে পর পর ৫টি ভ্যাকসিন দিতে হবে যার মূল্য সাড়ে ৭ লাখ টাকা। বর্তমানে সে ওই হাসপাতালের আইসিইউ ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে।

ব্যয়বহুল এই চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা সাদীর বিধবা অসহায়  মা শিরিন আক্তারের পক্ষে কোন ভাবেই সম্ভব না। তাই সাদীকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতা কামনা করেন তার মা। পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদের মেধাবী শিক্ষার্থী সাদীর চিকিৎসার সাহায্যের জন্য  এগিয়ে আসার অসহায় নিরুপায় মা শিরিন আক্তার ও স্বজনরা আবেদন জানাচ্ছেন।সাহায্য পাঠাতে নগদ ক্যাশ বিকাশ ০১৭৯১৪৮৪৪৪৪ এ নাম্বারে পাঠাতে অনুরোধ করা হইলো।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

পাঠক মতামত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই