তারিখ : ২৬ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ক্রসফায়ারের নামে কোনো বাহিনী কাউকে হত্যা করছে না

ক্রসফায়ারের নামে কোনো বাহিনী কাউকে হত্যা করছে না-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
[ভালুকা ডট কম : ০৯ মার্চ]
আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ক্রসফায়ারে মৃত্যু নিয়ে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনের নিন্দা ও প্রতিবাদের মুখে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল আজ (শনিবার) দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁও বিজি প্রেস মাঠে আয়োজিত মাদকবিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন,আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নাকি নিরপরাধদের ক্রসফায়ারের নামে হত্যা করছে। আমি স্পষ্ট করে বলছি, ক্রসফায়ারের নামে কোনো বাহিনী কাউকে হত্যা করছে না।

আসাদুজ্জামান খান কামাল আরও বলেন, মাদক বিরোধী অভিযানে গেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। তখনই আত্মরক্ষার্থে গুলি করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কাউকে হত্যার উদ্দেশ্যে নয়। মাদক ব্যবসায়ীদের যারা আত্মসমর্পণ করবে, ব্যবসা ছাড়বে; তাদের শেষ সুযোগ দেওয়া হবে। না হয়, জেলে যেতে হবে। আর অস্ত্রের ব্যবহার করলে কী পরিণতি হয় সেটাও সবাই জানেন। মাদকের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে। মাদক ব্যবসায়ীদের লিস্ট তৈরি করা হয়েছে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। আশা করি, তারা মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেবে। নয়তো আমাদের ব্যবস্থা চলতেই থাকবে। বিজিবি ও কোস্টগার্ডকেও বলে দেওয়া হয়েছে, সীমান্ত দিয়ে যেন কোনও মাদক না ঢুকতে পারে।

এদিকে গতরাতেও খুলনায় মিরাজ (২৬) নামে এক ব্যক্তি গ্রেফতারের ঘণ্টাখানেকের মধ্যে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে মহানগরীর দৌলতপুর থানার কৃষি কলেজের পেছনে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত মিরাজুল ইসলাম মিরাজ ফুলবাড়িগেট জাব্দিপুর এলাকার মুজিবর রহমানের ছেলে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোস্তাক আহমেদ জানান, শুক্রবার রাতে মহানগরীর সেনপাড়া এলাকা থেকে ১০টি মামলার আসামি মিরাজকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী চুরি করা মালামাল উদ্ধারের জন্য রাত ১১টার দিকে তাকে নিয়ে কৃষি কলেজের পেছনে বড় মাঠ এলাকায় যাওয়া হয়। এ সময় সেখানে আগে থেকে ওঁৎপেতে থাকা তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। তখন আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। গুলি বিনিময়ের একপর্যায়ে মিরাজ গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়।

পুলিশ বলেছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি বন্দুকের ২ রাউন্ড গুলি, ২টি রামদা, একটি ছুরি, একটি স্ক্রু ড্রাইভার, চুরি করা বিভিন্ন মালামাল ও ৫০পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত মিরাজের বিরুদ্ধে একটি মাদক ও চুরি-ডাকাতির ৯টি মামলা রয়েছে বলে ওসি জানিয়েছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৬০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই