তারিখ : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় আজও অবহেলিত দুই শহীদ পরিবার

ভালুকায় আজও অবহেলিত দুই শহীদ পরিবার,সরকারী স্বীকৃতির অপেক্ষায়
[ভালুকা ডট কম : ০৯ এপ্রিল]
ভালুকা উপজেলার মল্লিকবাড়ি ইউনিয়নের ভান্ডাব (বয়ডাপাড়া) গ্রামে ডাঃ আব্দুস ছামাদ ও তার বড় ভাই ছফির উদ্দিনের পরিবারের ৫ সদস্যকে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে পাক সেনা ক্যাম্পে ও রাজাকাররা নির্মম ভাবে হত্যা করার পরও অদ্যাবধি দুটি পরিবার সরকারী স্বীকৃতি পাননি। বর্তমানে দুটি পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

শহীদের পারিবারের সাথে কথা বলে জানাযায়, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ১৯৭১ সালের ১৮ জুলাই মঙ্গলবার ফজরের নামাজের সময় ভালুকা উপজেলার মল্লিকবাড়ি ইউনিয়নের ভান্ডাব (বয়ডাপাড়া) গ্রামের আ’লীগ নেতা ডাঃ আঃ ছামাদ, খাদিজা বেগম, ভাই ছাত্রনেতা আঃ করিম, ছামাদের বড় ভাই ছফির উদ্দিন ও ভাবি নছিমন্নেছাকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও রাজাকাররা নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করে বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। অন্যান্য জীবিতদেরকে স্থানীয় রাজাকারদের সহযোগিতায় পাকিস্তানি ক্যাম্পে ধরে নিয়ে নির্যাতন করে। ডাঃ আঃ ছামাদের বড় ছেলে কিশোর রফিকুল ইসলাম লাল মিয়া মাটির ঘরের খিড়কি দিয়ে পালিয়ে গিয়ে বেঁচে যায়।

স্বাধীনতার ৪৮ বছর পেরিয়ে গেলেও আব্দুস ছামাদ ও ছফির উদ্দীনের পরিবারের বেঁচে থাকা সদস্যরা সরকারের কোনো প্রকার সাহায্য সহযোগিতা পাননি। হয়নি তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন। এখনও তাদের খোঁজ নেননি কোন সরকারী  ও বেসরকারী কোনো সংস্থা। শহীদদের তালিকায় নাম না থাকায় প্রমানের অভাবে স্বাধীনতা পরবর্তী সরকারি সব সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন তারা। বর্তমানে দুটি পরিবারের লোকজন ছেলে, মেয়েদের নিয়ে খুবই দ্বৈন্য দশায় জীবন যাপন করছেন।

এ ব্যাপারে মল্লিকবাড়ি ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আশরাফ উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান এই আ’লীগ পরিবারের সদস্যরা পাক হানাদার বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে নিহত হয়ে ছিলেন । তারা যেহেতু যুদ্ধ করে মারা যাননি হয়তো সে জন্যই শহীদ তালিকায় তাদের নাম উঠেনি।

ভালুকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদ কামাল জানান খোঁজ নিয়ে এই ২ পরিবারকে সার্বিক সহযোগীতা করা হবে। তাদের বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ রির্পোট চাইলে সঠিক তথ্য দেয়া হবে। শহীদ পরিবারকে বসবাসের জন্য সরকারী খরচে আধাপাকা ঘর নির্মাণ করে দেয়ার ব্যবস্থা করবেন। উপজেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই