তারিখ : ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ডের লড়াই আজও অম্লান-মোস্তফা

ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ডের লড়াই আজও অম্লান-মোস্তফা
[ভালুকা ডট কম : ২৪ এপ্রিল]
১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল খাপড়া ওয়ার্ডে কমিউনিস্ট-বিপ্লবীরা লড়াই করতে করতে অকাতরে জীবন উৎসর্গ করেছিলেন, তা আমাদের দেশের গণতান্ত্রিক ও বিপ্লবী আন্দোলনের ইতিহাসের এক গুরুত্বপূর্ণ ও তাৎপর্যপূর্ণ পর্ব বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

তিনি বলেন, ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ডের লড়াই আজও অম্লান, বিপ্লবীদের পথ দেখায়। খাপড়া ওয়ার্ডের লড়াকু কমরেডরা বিপ্লবের স্বপ্ন দেখেছেন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য তাঁরা জেলের মধ্যেও লড়াই করেছেন, জীবন দিয়েছেন। তাঁদের মতো তেজ, দৃঢ়তা, কমিটমেন্ট নিয়ে কমিউনিস্টদের দাঁড়াতে হবে। সব ধরনের দ্যোদুল্যমানতা, সুবিধাবাদ, আপসকামিতার বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে বিপ্লবের লাল ঝাণ্ডা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। বুধবার শাহজাহানপুরস্থ দলীয় কার্যালয়ে খাপড়া ওয়ার্ড শহীদ দিবস উপলক্ষে জাতীয় গণমুক্তি আন্দোলন আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, খাপড়া ওয়ার্ডের লড়াই আজও আমাদের উজ্জীবিত করে, পথ দেখায়। ভবিষ্যতের দিশা পাবার জন্য খাপড়া ওয়ার্ডের বিপ্লবী ইতিহাস জানা এবং অনুধাবন করা জরুরি। খাপড়া ওয়ার্ডের শহীদ-যোদ্ধাদের আদর্শ, লড়াই ও আত্মত্যাগ থেকে নতুন প্রজন্মকে শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। আমাদের স্বাধীনতা-অধিকার অর্জনের সকল লড়াইয়ের ইতিহাসই আগামী প্রজন্মের জন্য পাঠ্যপাঠ্যপুস্তকে অর্ন্তভুক্ত করা উচিত। সেই ক্ষেত্রে খাপড়া ওয়ার্ডের বিপ্লবী ইতিহাস তুলে ধরা সময়ের দাবী।

সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সমন্বয়কারী এডভোকেট তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন এনডিপি ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, সংগঠনের সমন্বয় কমিটির সদস্য আবদুল হালিম, আবদুল কাইয়ূম মাহমুদ, আফরোজা বেগম, ইমরুল হাসান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজশাহী জেলের খাপড়া ওয়ার্ডে কমিউনিস্ট রাজবন্দীদের ওপর পুলিশ গুলিবর্ষণ করে। তৎকালীন মুসলিম লীগ সরকারের রক্তের হোলি খেলায় ঝরে যায় ৭টি বিপ্লবী প্রাণ। বন্দী অবস্থায় পুলিশের গুলিতে শহীদ হন কমিউনিস্ট পার্টির কর্মী সুধীন ধর, বিজন সেন, হানিফ শেখ, সুখেন্দু ভট্টাচার্য, দেলোয়ার হোসেন, কম্পরাম সিং ও আনোয়ার হোসেন। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই