তারিখ : ২৩ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গফরগাঁওয়ে মেম্বারের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে সংখ্যালঘু পরিবার

গফরগাঁওয়ে ইউপি মেম্বারের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্যরা
[ভালুকা ডট কম : ১৬ মে]
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় যশরা ইউনিয়নের গন্ডগ্রাম গ্রামে সন্ত্রাসীদের ভয়ে বসবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ৩টি সংখ্যালঘু পরিবারের পুরুষ সদস্যরা।সন্ত্রাসীরা কয়েক দফায় হামলা করে মারধর করেছে ওই ৩ টি সংখ্যালঘু পরিবারের নারী ও পুরুষ সদস্যদের ।হামলায় আহত স্কুলছাত্রী মনি রাজভরকে বুধবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।এঘটনায় বুধবার রাতে শ্রী ভজন রাজভর বাদী হয়ে পাঁচ জনকে আসামী করে গফরগাঁও থানায় মামলা দায়ে করেছে।

জানা গেছে,উপজেলার গন্ডগ্রাম সহায় সম্বলহীন ভজন রাজভর, গনেশ রাজভর ও দীনেশ রাজভরের পরিবার গত তিন যুগ ধরে তুষার চক্রবর্ত্তীর জায়গায় বসত ঘর তুলে বসবাস করে আসছে।এর আগে পাশের শৈলেন্দ চক্রবতীর জায়গায় এই রাজভর পরিবারগুলো যুগের পর যুগ ধরে বসবাস করত।১৯৮৫ সালে শৈলেন্দ চক্রবর্তী জমি বিক্রি করে দেশত্যাগ করে ভারত চলে যায়। জমি ক্রয় করে স্থানীয় ইউপি সদস্য বেলাল মিয়ার পরিবারের সদস্যরা ।এরপর রাজভর পরিবারগুলো পাশেই তুষার চক্রবর্ত্তীর জায়গায় আশ্রয় নেয়।

ভজন রাজভর জানায়, বেশ কয়েক বছর যাবত বাদল মেম্বার ও তার লোকজন এই জায়গা থেকে রাজভর পরিবারের সদস্যদের উচ্ছেদের জন্য হুমকি ও চাপ দিচ্ছে।এই ভিটা থেকে বাড়িঘর না সরালে ঘরে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মারার হুমকিও দেয় তারা।কারনে-অকারনে সুযোগ পেলেই রাজভর পরিবারের উপর চড়াও হয় বাদল মেম্বার ও তার ছেলে আশরাফুল। মারধরসহ নানা ধরনের অত্যাচার-নির্যাতন করে রাজভর পরিবারের সদস্যদের ।

গত সোমবার বিকাল সোয়া ছয়টার দিকে বেলাল মেম্বারের বাড়িতে “কামলা না দেওয়ার অপরাধে’ স্থানীয় ইউপি সদস্য বেলাল (৪৫),তার ছেলে আসাদুল (২২),তার ভাই হেলাল (৫০) ও তার আত্মীয় ইয়াহিয়ার (৩৮)নেতৃত্বে একদল সশস্ত্র লোক নিয়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ভজন রাজভর,গনেশ রাজভর ও দীনেশ রাজভরের বাড়িতে হামলা চালায়।ভজন রাজভর (৩৫),দীনেশ রাজভর (৪৫), দীনেশ রাজভরের ছেলে বলরাম রাজভর (২১) ও গনেশ রাজভরের ছেলে কৃষ্ণ(২৫) ও রুপমকে (১৫) পিটিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয় । আবার বাড়িতে আসলে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয় । এ সময় দীনেশ রাজভরের দুই মেয়ে শুভা রাজভর (১৭) ও মনি রাজভরকে (১৫)পিটিয়ে আহত করে সন্ত্রাসী বাহিনী । এরপর থেকে রাজভর পরিবারের পুরুষ সদস্যরা বাড়িতে যেতে পারছেনা, পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে ‘বাড়ি ছেড়ে চলে না যাওয়ার অপরাধে’ বসত ঘরে ঢুকে স্কুলছাত্রী মনি রাজভরকে রড দিয়ে এলাপাথারী পিটিয়ে গুরুতর আহত করে বাদল মেম্বারের সন্ত্রাসী বাহিনী।হামলায় আহত মনি রাজভরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ।ইউপি সদস্য বাদল মেম্বারের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে,তিনি বলেন,বৃষ্টিতে ধান ভিজে যাওয়ার কারনে আমাদের সাথে রাজভর পরিবারে কথাকাটাকাটি হয়েছে।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাকির হোসেন বলেন,আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৭৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই