তারিখ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা রবিদাস ফোরামের মানববন্ধন

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা রবিদাস ফোরামের মানববন্ধন ও প্রতিবাদী সমাবেশ অনুষ্ঠিত
[ভালুকা ডট কম : ২৯ জুন]
অনগ্রসর রবিদাস জনগোষ্ঠীকে “ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান আইন-২০১০” এর তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার প্রতিবাদ ও অনতিবিলম্বে অন্তর্ভূক্তির দাবীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৮ জুন ২০১৯ (শুক্রবার) গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মোড়ে সকাল ১০.৩০ টায় অনুষ্ঠিত এ কর্মসূচির আয়োজন করে বাংলাদেশ রবিদাস ফোরাম (বিআরএফ) ও বাংলাদেশ রবিদাস ছাত্র ফোরাম (বিআরএসএফ) এর গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

বাংলাদেশ রবিদাস ফোরাম (বিআরএফ)-গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি কৃষ্ণ রবিদাসের সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ রবিদাস ফোরাম (বিআরএফ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও মহাসচিব শিপন রবিদাস প্রাণকৃষ্ণ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি-গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি এম.এ. মতিন মোল্লা, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ-গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি তনয় কুমার দেব, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ-গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দাস রন্টু, বিআরএফ-গাইবান্ধা জেলা শাখার সভাপতি সুনীল রবিদাস, সাধারণ সম্পাদক খিলন রবিদাস।

আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ রবিদাস ফোরাম (বিআরএফ)-গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সহ সভাপতি কুকিল রবিদাস, সাধারণ সম্পাদক বাবুলাল রবিদাস, সাংগঠনিক সম্পাদক নারায়ন রবিদাস, দপ্তর সম্পাদক নয়ন রবিদাস, বাংলাদেশ রবিদাস ছাত্র ফোরাম (বিআরএসএফ)-গাইবান্ধা জেলা শাখার সহ সাধারণ সম্পাদক নিতাই রবিদাস, বিআরএসএফ-গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি কাজল রবিদাস, সহ সভাপতি কৃষ্ণ রবিদাস, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক সৈকত রবিদাস প্রমুখ।

মানবন্ধনে বক্তাগণ বলেন, “ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী হিসেবে বিবেচিত হবার মতো সকল যোগ্যতা ও বৈশিষ্ট্য রবিদাস জনগোষ্ঠীর মাঝে উপস্থিত। বিগত সময়ে বেশ কিছু জেলা প্রশাসক রবিদাসদের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী হিসেবে সনদপত্র প্রদান করেছেন। আইএলও সহ বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য সংস্থার নথিপত্রে বর্নিত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বৈশিষ্টানুযায়ী রবিদাস জনগোষ্ঠী প্রকৃত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী। এমনকি বর্তমানেও চলমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে প্রদত্ত “বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত) কর্মসূচি” এর তালিকায় রবিদাস জনগোষ্ঠী ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী হিসেবেই স্বীকৃত। কিন্তু“ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান আইন-২০১০” এর তালিকা হতে রবিদাস জনগোষ্ঠীকে বাদ রাখা সম্পূর্নরূপে অযৌক্তিক ও সরকারী নথিপত্রের সাথে সাংঘর্ষিকও বটে। বিগত সময়ে দায়িত্বরত সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নুর মহোদয়ও রবিদাসদের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর গেজেটে অন্তর্ভূক্ত করবার আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু সেটাও সর্বশেষ সংশোধিত গেজেটের তালিকায় ৫০টি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর স্থান হলেও রবিদাস জনগোষ্ঠী কেন স্থান পাবে না, তা একটি মৌলিক প্রশ্নের জায়গা। বিষয়টি পূনরায় বিবেচনাপূর্বক রবিদাস জনগোষ্ঠীকে গেজেটে অন্তর্ভূক্ত করতেই হবে। এ বিষয়ে আমরা সারা বাংলাদেশের ৮ লক্ষাধিক রবিদাস জনগণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়সহ সংশ্লিষ্ট সকলের সুদৃষ্টি কামনা করছি।”

বার্তা প্রেরক
কৃষ্ণ রবিদাস
সভাপতি
বাংলাদেশ রবিদাস ফোরাম (বিআরএফ)
গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শাখা, গাইবান্ধা।





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই