তারিখ : ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ডেঙ্গু জ্বর ও করণীয় সম্পর্কে ডাক্তারি পরামর্শ

ডেঙ্গু জ্বর ও করণীয় সম্পর্কে ডাক্তারি পরামর্শ
[ভালুকা ডট কম : ২০ জুলাই]
ডেঙ্গুজ্বর ভাইরাস জনিত একটি রোগ। এটি এডিস মশা কামড়ে ছড়ায়। সাধরণ চিকিৎসাতে অধিকাংশ ক্ষেত্রে ডেঙ্গু জ্বর ভালো হয়ে যায়। তবে হেমোরেজিক ডেঙ্গু জ্বর ও ডেঙ্গু শক্ সিনড্রোম মারাত্মক হয়ে প্রাণহানিও  ঘটতে পারে।

বেশিরভাগ ডেঙ্গুজ্বর সাত দিনের মধ্যে সেরে যায়। অনেক ক্ষেত্রে তিন চারদিন উচ্চমাত্রার জ্বর থাকে তারপর ভাল হয়ে যায়। তবে কখনও কখনও জ্বর ভাল হবার পর আবারও আসতে পারে। জ্বর কমে গেলে অনেক রোগী মনে করেন রোগ সম্পূর্ণ ভাল হয়ে গেছে। কিন্তু মনে রাখতে হবে ডেঙ্গু জ্বরের মারাত্মক সমস্যা হওয়ার সময় এটাই। এইসময় অণুচক্রিকার সংখ্যা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কমে যায়। শরীরে  রক্তক্ষরণ সহ নানা রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। ডেঙ্গু জ্বর ১০৪-১০৫º ফারেনহাট মাথা ব্যথা, মাংসপেশীতে, চোখের পিছনে ও হাঁড়ে প্রচন্ড ব্যথা চামড়ায় লালচে ছোপ (র‍্যাশ) হয়ে থাকে।

ডেঙ্গু জ্বরে রোগীকে প্রচুর পরিমাণে তরল খাবার খাওয়াতে হবে। । *  মশারীর ভিতরে বিশ্রামে রাখতে হবে। । * শিশুদের একটু পর পর বুকের দুধ, ডাবের পানি, স্যালাইন, জুস এছাড়াও ভিটামিন 'সি' সমৃদ্ধ ফল যেমন- মাল্টা, কমলা লেবু, পেয়ারা, পেঁপে, আনার ইত্যাদি খেতে দিন। । *  জ্বরে শুধুমাত্র প্যারাসিটামল ব্যবহার করা। । *  কোনো অবস্থাতেই এসপিরিন, NSAID জাতীয় ঔষধ সেবন করা যাবে না।

ডেঙ্গু শনাক্তকরণের জন্য এখন NS-1 পরীক্ষার মাধ্যমে উচ্চমাত্রার জ্বর শুরু হবার পরেই ডেঙ্গু জ্বর শনাক্তকরণ সম্ভব। ।  হেমোরেজিক ডেঙ্গু জ্বর ও ডেঙ্গু শক্ সিনড্রোম হলে দাঁতের মাড়ি, নাক, মুখ ও পায়খানার রাস্তা দিয়ে রক্তপাত হতে পারে। সেক্ষেত্রে রোগীকে দ্রুত নিকটস্থ হাসপাতালে নিতে হবে।

এডিস মশা সাধারণত বাড়ির ভেতরের ফুলের টব, এসি ও ফ্রিজের তলায়,আশেপাশে পরিত্যক্ত টায়ার,ডাবের খোসায় জমাকৃত পানিতে ডিম পাড়ে। এ মশা সাধারণত দিনের বেলায়, সূর্যোদয়ের পর এবং সূর্যাস্তের পূর্বে কামড়ায়।

মশার বিস্তার রোধে ফুলের টব, পরিত্যক্ত টায়ার,ডাবের খোঁসা এসি ও ফ্রিজের তলা ইত্যাদিতে পানি জমতে দেয়া যাবে না। বাড়ির আঙিনা, নির্মাণাধীন ভবন,পানির চৌবাচ্চার পানি নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে,দিনেও ঘুমানোর সময় মশারী ব্যবহার করতে হবে। আসুন ডেঙ্গু সম্পর্কে জানি,সচেতন হই এবং এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলি। #








 





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই