তারিখ : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

খালেদা জিয়াকে ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে সরকার-বিএনপি

খালেদা জিয়াকে ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে সরকার-বিএনপি
[ভালুকা ডট কম : ০৮ সেপ্টেম্বর]
সঠিক চিকিৎসা না দিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে সরকার, এমন অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসা দাবিতে নতুন আন্দোলন কর্মসূচিও ঘোষণা করেন তিনি।

আজ (রোববার) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ১১ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ও ১২ সেপ্টেম্বর সারাদেশে মানববন্ধন হবে। এছাড়া আগামী ২১ সেপ্টেম্বর সিলেট, ২৬ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ এবং ২৭ সেপ্টেম্বর রাজশাহীতে সমাবেশ করা হবে। রংপুরে সমাবেশের তারিখ পরে জানানো হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, গত পাঁচ মাস যাবত খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিসহ মেডিক্যাল বোর্ড বলেছে, খালেদা জিয়া এখন সুস্থ আছেন। তাদের এ বক্তব্য খালেদা জিয়াকে পুনরায় কারাগারে নেয়ার ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের অংশ। আমরা জানি খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে দেখা করে এসে বলেছেন, খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ। একা চলতে পারেন না। তিনি দীর্ঘদিন যাবত জটিল রোগে আক্রান্ত। আমরা অবিলম্বে তার মুক্তি দাবি করছি। তাকে তার পছন্দ মতো হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ দেয়ার দাবি করছি। অন্যথায় তার শারীরিক যে কোন অবনতির জন্য বর্তমান সরকার দায়ী থাকবে।

এদিকে, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাত বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ফের করা জামিনের আবেদন শুনানির জন্য হাইকোর্টে দাখিল করা হয়েছে। আজ (রোববার) এ আবেদন গ্রহণ করে কার্যতালিকায় রাখার আদেশ দিয়েছেন বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও বিচারপতি এএসএম আব্দুল মোবিনের হাইকোর্ট বেঞ্চ। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, আইনজীবী নিতাই রায় চৌধুরী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল ও ব্যারিস্টার মীর হেলাল। পরে ব্যারিস্টার মীর হেলাল সাংবাদিকদের বলেন, আমরা জামিন আবেদন দাখিল করেছি। আশা করছি, এ সপ্তাহে শুনানি হবে। যদি না হয়, আগামী সপ্তাহে কার্যতালিকায় আসবে ও শুনানি হবে।

গত ৩ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালেদা জিয়ার এ আবেদন জমা দেয়ার ক থা জানান ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। এর আগে, ৩১ জুলাই বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ তার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন। গেলো ২৯ অক্টোবর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক মো. আখতারুজ্জামান জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন। একইসঙ্গে, ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই