তারিখ : ১২ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকবাসীর থানায় অভিযোগ

ভালুকায় এক পরিবারের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে এলাকবাসী বিক্ষোভ করে থানায় অভিযোগ
[ভালুকা ডট কম : ০৫ নভেম্বর]
ভালুকা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা রিপন ও তার পরিবারের লোকজনের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে থানায় উপস্থিত হয়ে গণস্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ ওসি বরাবর দায়ের করেন। তাৎক্ষণিক ওসি একজন এস,আইকে নির্দেশদেন আজকের মাঝে রিপনকে ধরে আনার জন্য। পরে মঙ্গলবার রাত ৯টার সময় তার বাসা থেকে রিপনকে পুলিশ থানায় নিয়ে আসে।

অভিযোগে জানাযায়, ৯নং ওয়ার্ডের মৃত মোছলেম উদ্দিনের ছেলে রিপন মিয়া, তার মা নাজমা আক্তার ওরফে আনার ও তাঁর বোন তাবাসুম শিশির এলাকার খারাপ প্রকৃতির লোক। রিপন একজন মাদক সেবি এবং মাদক ব্যবসায়ী। সে এলাকার ভাড়াটিয়া ও বিভিন্ন মিলের শ্রমিকদেরকে নানা ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়, যদি কেউ টাকা দিতে অস্বীকার করে তাদের মারধর করে। এলাকায় ছিনতাই ও ভূমি দস্যুতার করে থাকে।

নাজমা আক্তার ওরফে আনার একজন মামলা বাজ নারী লোকজনের জমি জোরপূর্বক দখল করে মামলা দিয়ে হয়রানী করে, সে সব ধরণের অপকর্মের ওস্তাদ। তাবাসুম শিশির তারই মেয়ে সে ছেলেদেরকে সাথে প্রেমের অভিনয় করে ফুঁসলিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা কাবিন দিয়ে বিয়ে বসে। কয়েক দিন আনন্দ ফুর্তি করে স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করে কাবিনের টাকাসহ বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা অভিযোগ তুলে আদালতে মামলা করে। পরবর্তীতে মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করে আপস মীমাংসা করে ডিভোর্স করে ফেলে। শিশির চার সন্তানের জননী,চার সন্তানের জনক তার চার স্বামী। সে একজন দুশ্চরিত্রা নারী। আশপাশের লোকজনের সাথে ছোট খাট কোনো ঘটনা নিয়ে বিবাদ হলে তারা তিন জনে মিলে এসে ওই লোকদের উপর হামলা করে।

পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদার নজরুল ইসলাম অভিযোগ জানান, আমি যখন আমার বাসার বিল্ডিং নির্মাণ করি,তখন রিপন আমার বিল্ডিং এর রডসহ বিভিন্ন ধরনের মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। তাঁর অত্যাচারে স্থানীয় বাসিন্দা ও ভাড়াটিয়ারা অতিষ্ট হয়ে আজকের এ বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়। এখানে যারা মিছিল অংশগ্রহন করেছে তারা কেউ না কেউ এ তিনজন দ্বারা অত্যাচারিত।

ভাড়াটিয়া ফল বিক্রেতা রেজাউল করিম জানান, কয়েক দিন পূর্বে রিপন তার দুই সহযোগি নিয়ে আমার ভাড়া বাসায় জিম্মি করে রাখে। সেখান থেকে ৯৯৯এ ফোন করে কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে এসে তাদের বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ দেই।

তাবাসুম শিশির জানান,আমার মামাদের সাথে আমার মায়ের ওয়ারিশান জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। কয়েক দিন পূর্বে আমার খালাতো ভাই জুয়েলের উপর হামলা করে তাঁর মোটর সাইকেল ভাংচুর করে উল্টো আমার বাবা,জুয়েল সহ ৪জনের নামে মামলা করে। আজকে যে লোক গুলো অভিযোগ নিয়ে থানায় এসে ছিল তারা কয়জন স্থানীয় বাসিন্দা? অধিকাংশ লোকজনই ভাড়াটিয়া।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, আমার কাছে যদি এলাকার কোনো লোক অভিযোগ নিয়ে অসতো তাতেই যথেষ্ট ছিলো। আমি থানায় যোগদানের পর কেউ আমার কাছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে আসেন নি। আসলে যাঁচাই করে ব্যবস্থা নেয়া হতো। অভিযোগের ধরণ দেখে মনে হচ্ছে এটি পারিবারিক বিরোধের জের হিসাবে দেয়া হয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগে প্রেক্ষিতে রিপনকে রাতে থানায় ডেকে আনা হয়।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই