তারিখ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

মুজিববর্ষে সারা দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করব-প্রধানমন্ত্রী

মুজিববর্ষে সারা দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করব-প্রধানমন্ত্রী
[ভালুকা ডট কম : ১৩ নভেম্বর]
শতভাগ বিদ্যুতায়নের পরিকল্পনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ দেশের আরো ২৩টি উপজেলায় ৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র ও ২৩টি বিশেষায়িত বিদ্যুৎ প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন। প্রধানমন্ত্রী আজ (বুধবার) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোর উদ্বোধন করেন।

নতুন ৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র হলো- রংপুরে আনোয়ারা ৩০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র, কর্ণফুলীতে ১১৩ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র, শিকলবহা ১০৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র, পটিয়া ৫৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র, তেঁতুলিয়া ৮ মেগাওয়াট সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র ও গাজিপুর ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র। নতুন ৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধনের ফলে দেশের সর্বমোট উৎপাদন সক্ষমতা দাঁড়ালো ২২ হাজার ৫৬২ মেগাওয়াট।

শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতা আসা নতুন উপজেলা হলো- বগুড়ার গাবতলী, শেরপুর ও শিবগঞ্জ, চট্টগ্রামের লোহাগড়া, ফরিদপুরের মধুখালী, নগরকান্দা ও সালথা, গাইবান্ধার ফুলছড়ি, গাইবান্দা সদর ও পলাশবাড়ী, হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর ও নবীগঞ্জ, ঝিনাইদহের কালিগঞ্জ ও মহেশপুর, কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ, নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম, লালপুর ও সিংড়া, নেত্রকোনার বারহাট্টা ও মোহনগঞ্জ এবং পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া, কাউখালি ও ইন্দুরকানী।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন,২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ এর মার্চ মুজিববর্ষ। এরই মধ্যে সারা দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করব। যেখানে গ্রিডলাইন পৌঁছেনি, সেখানে সোলার বিদ্যুতের মাধ্যমে আলোকিত করব। কেউ অন্ধকারে থাকবে না, সব ঘরে আলো জ্বলবে।

বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিদ্যুৎ উৎপাদনে যে পরিমাণ টাকা খরচ হয়, তার থেকে অনেক কম খরচে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়। এক্ষেত্রে সরকার ভর্তুকি দেয়। ওই বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হতে হবে। বিদ্যুতের অপচয় যেন না হয়, সেদিকে সবাইকে লক্ষ রাখতে হবে। সেই অনুরোধটা আমি সবার কাছে জানাচ্ছি।

উন্নয়ন সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার পূনর্ব্যাক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন,পরিকল্পিতভাবে আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদন, সরবরাহ ও সঞ্চালন করে যাচ্ছি। যার সুফল দেশের মানুষ পাচ্ছেন। তৃণমূল পর্যায়ের মানুষ যাতে উন্নয়নের ফল পায় সে লক্ষ্য সামনে রেখে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। উন্নয়ন মানে শুধু শহরের মানুষের উন্নয়ন না। গ্রামের তৃণমূল পর্যায়ের মানুষের উন্নয়ন আমরা নিশ্চিত করতে চাই। যাতে তাদের মৌলিক চাহিদা অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, খাদ্য, শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করা যায়।

শেখ হাসিনা বলেন,খাদ্য নিরাপত্তার জন্য আমাদের চাষযোগ্য জমি সংরক্ষণ করতে হবে। কারও কাছে ভিক্ষা বা হাত পেতে চলতে চাই না। বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই