তারিখ : ২৯ মার্চ ২০২০, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের প্রতিবাদে গ্রামবাসির সাংবাদ সম্মেলন

ভালুকায় সন্ত্রাসী ভূমিদস্যূ,চাঁদাবাজ সালাউদ্দিনের নির্যাতন ও অত্যাচারের প্রতিবাদে গ্রামবাসির সংবাদ সম্মেলন
[ভালুকা ডট কম : ০৯ জানুয়ারী]
ভালুকায় সালাউদ্দিন সরকার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, চাঁদাবাজি ও ভূমিদস্যূতার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেল করেছেন গ্রামবাসি। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভালুকা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়।সংবাদ সম্মেলনে নির্যাতনের শিকার ইসলাম উদ্দিন মাতাব্বর লিখিত বক্তব্যে বলেন, সম্মানতি ভালুকা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকগণ-সকলে আমার সালাম গ্রহণ করবেন, আসসালামুআলাইকুম, আমি মোঃ ইসলাম উদ্দিন মাতাব্বর, আমার পিতা মৃত কলিম উদ্দিন, সং জামিরদিয়া (কুমারপাড়া), ভালুকা, ময়মনসিংহ।

আমি দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয়ভাবে ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। গত ৬ই জানুয়ারী রাত ১০টার দিকে আমি আমার নিজ বাড়িতে সুয়ে আছি, এমন সময় অপরিচিত একটি নাম্বার থেকে ফোন করে আমার বাড়ির গেইটের সামনে যেতে বলে। প্রথমে আমি বাসা থেকে বের হতে অনিহা প্রকাশ করলে অপর পাশের লোকটির খুব বিপদের কথা বললে আমি বের হই। বের হয়ে কাউকে বাসার সামনে না পেলে ওই নাম্বারে আমি ফোন দেই। কিন্তু লোকটি আমার ফোন রিসিভ করে নাই। আমি তার জন্য অপেক্ষা না করে বাসায় প্রবেশ করি। পরে আবার ওই নাম্বার থেকে ফোন করে আমাকে বাসা থেকে বের হতে কাকুতি মিনুতি করে। কিছুক্ষণ পর আমি বের হলে গেইটের সামনেই আমার মাথায় দুটি পিস্তল ঠেকিয়ে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে একটি মাইক্রো গাড়িতে উঠিয়ে আমার হাত পা চোখ বেঁধে ফেলে। আমি কোন প্রকার চিৎকার চেচামেচি করার সুযোগ পাইনি। গাড়িতে করে কিছুদূর নিয়ে আমাকে একটি বাড়ির সিড়ি বেয়ে একটি বাড়ির ২য় তলায় উঠানো হয়। পরে চোখ-মুখ, হাত-পা বাঁধা অবস্থায় আমাকে বেধরক পিটুনি দেয়।

অবস্থা নিরুপায় বুঝে আমি অজ্ঞানের ভান ধরি। পরে তারা আমার জ্ঞান ফিরাতে আমার মাথায় পানি দেয়। আমি এই সুযোগে স্থানীয় সন্ত্রাসী সালাউদ্দিন সরকার ও তার পালিত ক্যাডার সাদ্দাম হোসেন ও আনোয়ারের সলা-পরামর্শে তাদের চিনতে পারি। পরে আমি তাদের সাথে কথা বললে তারা আমার কাছে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে অন্যথায় আমাকে গুলি করে মেরে ফেলবে বরে হুমকি দেয়। পরে আমার চোখ বাঁধা অবস্থায় আমার বাড়ির লোকজনের সাথে কথা বলিয়ে দেয়। আমার পরিবারের লোকজন ১ লক্ষ টাকা ম্যানেজ করে তাদের দিতে প্রস্তুত হলে তারা বেশি লোকজন দেখে টাকা নিতে অনিহা প্রকাশ করে। পরে আমার ফোনে ভালুকা মডেল থানার ওসির ফোন গেলে তারা আইন শৃংক্ষলা বাহিনির উপস্থিতির ভয়ে আমাকে মাওনা ওভারব্রিজের নিচে ফেলে চলে যায়।

তিনি আরো উল্লেখ করেন, সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যূ ও মামলাবাজ সালাউদ্দিন সরকার আমাকে একাধিকরার হত্যার হুমকি দিয়েছে ও আমার উপর হামলা করেছে। ওইসব ঘটনায় তার বিরোদ্ধে একটি মামলা রয়েছে। উক্ত ঘটনায় আমি থানায় অভিযোগ করেও কোন প্রকার আইনি তৎপরতা দেখছি না। আমি বর্তমানে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি।এ ঘটনাগুলো আপনাদের স্ব স্ব গণমাধ্যমে সংবাদটি প্রকাশ করে আমাকে আইনি সহায়তা পেতে সাহায্য করবেন বিশ্বাস করি।

নির্যাতণের শিকার আলীম উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, উপজেলার জামিরদিয়া গ্রামের হোসেন আলী সরকারের ছেলে স্থানীয় সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যূ ও মামলাবাজ সালাউদ্দিন সরকারের বিরুদ্ধে বনবিভাগের জমি দখল, ভূমিদস্যূতা, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ভালুকা মডেল থানা ও আদালতে ২০ টির অধিক মামলা রয়েছে। তাছাড়া তার ও তার পালিত সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় বহুবার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

নির্যাতণের শিকার আজিজুল হক তার বক্তব্যে বলেন, সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যূ ও মামলাবাজ সালাউদ্দিন সরকার আমাকে একাধিকবার হত্যার হুমকি দিয়েছে ও আমার উপর দেশিয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করেছে। এই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা (নম্বর-২৪৯) রয়েছে। আমি বর্তমানে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি।

এ সময় ভূক্তভোগী মোকাদ্দস আলী খন্দকার, নুর মোহাম্মদ ও আলী হোসেন দাবি করেন, সালাউদ্দিন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী তাদের মালামাল লুটপাট, ভাঙচুর করলেও থানায় তাদের মামলা নেয়নি পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন, ভুক্তভোগী আব্দুল আজিজ, জুলফিকার, সাইফুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, আল আমীন, জাহিদুল, আজিজুল, মনিরুদ্দীন ওরফে মনো মেম্বার ও নায়েব আলী প্রমূখ।

উল্লেখ্য যে, উপজেলার জামিরদিয়া গ্রামের মৃত হোসেন আলী সরকারের ছেলে স্থানীয় সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যূ ও মামলাবাজ সালাউদ্দিন সরকারের বিরুদ্ধে বনবিভাগের জমি দখল, ভূমিদস্যূতা, সন্ত্রাস, চাদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ভালুকা মডেল থানা ও আদালতে ২০ টির উপরে মামলা রয়েছে। তাছাড়া তার ও তার পালিত সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে ইতমধ্যে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় বহুবার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। তার ভূমিদস্যূতা ও সন্ত্রাসী কর্মকতান্ডের সংবাদ প্রকাশের কারণে দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার ভালুকা প্রতিনিধি ও নয়া দিগন্ত পত্রিকার প্রতিনিধির বিরুদ্ধে আদালতে মিথ্যা মানহানী মামলাও দায়ের করেছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই