তারিখ : ০১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং বন্ধের দাবিতে মানব্বন্ধন

জড়িত ৩ শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিস্কার
কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং বন্ধের দাবিতে মানব্বন্ধন ও প্রতিবাদ
[ভালুকা ডট কম : ০৯ ফেব্রুয়ারী]
ময়মনসিংহের ত্রিশালে  অবস্থিত  জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং বন্ধের দাবিতে মানব বন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। রোববার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জয় বাংলা ভাস্কর্যের সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে সাধারণ শিক্ষার্থী ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানরা।ঘটনার সাথে জড়িত তিন শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে ।চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত সেন্টিকেট সভায়।

এসময় র‌্যাগিংয়ের নামে শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতনকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে প্রতিবাদ  জানানো হয়।মানব বন্ধনে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বলেন, নবীনদের পদচারণায় ক্যাম্পাস চঞ্চল হয়ে  উঠলেও র‌্যাগিং নামক অমানবিক নির্যাতন তাদের ভেতরে সৃষ্টি করে আতঙ্ক। নবীনরা নির্ভয়ে ক্যাম্পাসে চলাফেরা করবে, আমরা তা দেখতে চাই। যারা নবীনদের ম্যানার শেখানোর নামে নির্যাতন চালিয়েছে তাদের আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দোষীদের  দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.এএইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান জানান-ঘটনার সাথে জড়িত সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের তোয়াবা মোশরাত মীম, সায়রা তাসনিম আনিকা, ও চারুকলা বিভাগের মৌমিতা পারভিনকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হয়েছে।

প্রশাসনিকভাবে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থাও করেছি। যাতে করে এমন ধরনের ন্যক্কারজনক ঘটনা ভবিষ্যতে আর কেউ করার সাহস না পায়। আগামী ১৩ তারিখের সেন্ডিকেট সভায় ঘটনার সাথে জড়িতদের ব্যাপারে  চুড়ান্ত সিন্ধান্ত নেয়া হবে।

প্রক্টর উজ্জ্বল কুমার প্রধান বলেন, ঘটনা তদন্তের জন্য  ৪সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি বিশ্ববিদ্যালয় শৃংখলা বডির কাছে লিখিতভাবে সুপারিশ করেন।পরে শৃংখলা কমিটি রোববার বিকেলে ঘটনার সাথে জড়িত তিন শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করেন। র‌্যাগিং করায় তিন শিক্ষার্থীদের সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। তারা ২০১৮-১৯ শিক্ষা বর্ষের শিক্ষার্থী।

গত বৃহস্পতিবার ৬ ফেব্রুয়ারি রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ফারহানা রহমান লিয়োনা ও কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ইমরান র‌্যাগিংয়ের শিকার হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও অবস্থা গুরুতর হলে তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই