তারিখ : ০১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গফরগাঁওয়ে ইউআরসির ইন্সট্রাক্টরে বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

গফরগাঁওয়ে ইউআরসির ইন্সট্রাক্টরে বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ
[ভালুকা ডট কম : ২৫ ফেব্রুয়ারী]
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের(ইউআরসি)ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।অভিযোগের মধ্যে রয়েছে কোর্স কোডিনেটর হিসেবে দ্ইু ব্যাচ থেকে সন্মানি এবং খাবার ভাতা টাকা উত্তোলন,অফিস সহায়কের ভূয়া নাম  দিয়ে বিল উত্তোলন,প্রশিক্ষণে শিক্ষকদের নিন্ম মানের ব্যাগ ও উপকরণ বিতরণ করে অর্থ আত্নসাৎ।এব্যাপারে ইউআরসির ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর অভিযোগ স্বীকার করে বলেন,অফিসে লোকবলের স্বল্পতা রয়েছে।অফিস চালাতে গিয়ে সাপোর্ট সার্ভিসের জন্য বাহির থেকে লোক এনে কাজ করতে হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের(ইউআরসি)ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর ২০১৭সালের ২৪ জানুয়ারি গফরগাঁও উপজেলায় যোগদান করেন।মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর ইন্সট্রাক্টর হিসেবে গফরগাঁওয়ে যোগদানেরর পর থেকেই কর্মস্থলে নিয়মিত অনুস্থিতসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠে তার বিরুদ্ধে।প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান্নোয়নের জন গত বছরের ১ডিসেম্বর পিইডিপি-৪এর অধীনে বিষয় ভিত্তিক প্রশিক্ষ শুরু হয়।প্রশিক্ষনের আয়োজক উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের(ইউআরসি)।প্রশিক্ষনে বাংলা তিন ব্যাচে-৯০জন,ইংরেজী-৯০জন,বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় সাত ব্যাচে-২১০ জন,প্রাথমিক বিজ্ঞান সাত ব্যাচে-২১০জন করে প্রশিক্ষনার্থী অংশ গ্রহন করেন।যাহা এখন চলমান রয়েছে।প্রশিক্ষনে প্রতি ব্যাচের প্রশিক্ষনার্থীদের জন্য উপকরণ বাবদ ৩০টাকা বরাদ্ধ থাকলেও ৫ টাকা মূল্যের বলপেন ৫ টাকা মূল্যের খাতা প্রদান করে বাকি টাকা আত্নসাৎ করছেন তিনি।

প্রশিক্ষনার্থীরা জানায়,৩০জানুয়ারি থেকে বিষয় ভিত্তিক প্রশিক্ষন বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় প্রথম ব্যাচ এবং একই দিনে একই ভ্যানুতে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক বিজ্ঞান দ্বিতীয় ব্যাচ প্রশিক্ষণেই কোর্স কো-অর্ডিনেটর হিসেবে ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বী ৬শ’টাকা সন্মানি এবং ২শ’৮০ টাকা খাবার ভাতা টাকা উত্তোলন করেন।অপর দিকে একই দিনে একই ভ্যানুতে অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষনের দুই ব্যাচেই অফিস সহায়ক হিসেবে শফিকুল এবং মোঃ মাহফুজ ভূয়া নাম দিয়ে বিল উত্তোলন করেন ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর।অথচ উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের(ইউআরসিতে)শফিকুল এবং মোঃ মাহফুজ নামে কোন অফিস সহায়ক হিসেবে  এখানে কর্মরত নেই।যা পরিপত্রের অর্থনৈতিক অনিয়ম।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রিসোর্স সেন্টারের(ইউআরসি)কর্মরত জনৈক ব্যক্তি জানান,ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বী গফরগাঁওয়ে যোগদানের পর থেকেই অর্থনৈতিক এসব অনিয়ম এখন নিয়মে পরিনত করেছেন।

অপর দিকে প্রশিক্ষনে অংশ গ্রহনকারী শিক্ষকদের অভিযোগ,সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রশিক্ষন কার্যক্রম চললেও ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বী প্রতিদিন ময়মনসিংহ হতে ব্রহ্মপুত্র ট্রেন যোগে সকাল সাড়ে ১০টা অফিসে আসেন এবং দুপুরে আন্তঃনগর অগ্নিবীনা ট্রেনে আবার বাসয় চলে যান।

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়,বিষয় ভিত্তিক প্রশিক্ষনে প্রশিক্ষক ডেপুটেশনের বিধান উপজেলা শিক্ষা অফিসের।শিক্ষা অফিস তালিকা প্রদানের পর ইউআরসি শুধু প্রশিক্ষনের আয়োজন করবেন।কিন্তু এসবের কিছুই মানা হচ্ছেনা।প্রশিক্ষনে প্রশিক্ষক ডেপুটেশনের জন্য ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর উল্টো উপজেলা শিক্ষা অফিসে তালিকা প্রেরণ করেন।

শিক্ষকদের অভিযোগ,প্রশিক্ষনে অংশ গ্রহনকারী প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে ৫শ’টাকা মূল্যের ব্যাগ বরাদ্ধ থাকলেও ২৫০-৩০০টকা দামের ব্যাগ সরবরাহ করে টাকা আত্নসাৎ করছেন তিনি।

ইন্সট্রাক্টর মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে মুঠোফোনে কথা হয় ময়মনসিংহ সুপারিটেন্ডন্ট(পিটিআই)রকিবুল ইসলাম তালুকদারের সাথে।তিনি জানান, কোর্স কো-অর্ডিনেটর হিসেবে মোহাম্মদ জবানুর রাব্বীর শুধু মাত্র একটি ব্যাচ থেকে আর্থিক সুবিধা গ্রহন করতে পারবেন।সাপোর্ট সার্ভিসের জন্য ভূয়া নাম দিয়ে বিল উত্তোলন করা হচ্ছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হবে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৩৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই