তারিখ : ৩০ মে ২০২০, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গৌরীপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি সঞ্জিত দাস

গৌরীপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী অসহায় মানুষের হাতে পৌঁছে দিচ্ছি ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত দাস

[ভালুকা ডট কম : ১৫ মে]
করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন, দুস্থ, দারিদ্রপীড়িত মানুষের আশার প্রদীপশিখা সঞ্জিত চন্দ্র দাস। মানবতার এক মহান ফেরিওয়ালা। প্রতিদিন অসহায় মানুষের ডাকে ছুটছেন তিনি। তুলে দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা'র উপহার সামগ্রী।

বুধবার গভীররাতে কাঁধে আর মাথায় ত্রাণ ব্যাগ নিয়ে ছুটছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। গন্তব্য পৌর শহরের গোলকপুরে। স্বামী হারা, তিন সন্তানের জননীর ঘরে খাদ্য নেই! সেহরীতে খাওয়ার ব্যবস্থাও নেই। খবর পেয়ে ছুটে চললেন তিনি। আরেক ব্যাগ নিয়ে যেতে হবে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম ঘেঁষে আরেক মহল্লায়। সেখানেও অনুরূপ অবস্থা। তাই রাতেই ত্রাণ নিয়ে যাচ্ছেন। সঙ্গী তার বন্ধু রানা সাহা। ওর দুথহাতেও দুথটো ব্যাগ। সঞ্জিত প্রসঙ্গে রানা সাহা তার ফেসবুকে লিখেছেন,বাবার চায়ের দোকানে চা বানিয়ে যে তৃপ্তি পেতেন, সেই তৃপ্তি এখনো খুঁজে ফেরেন সঞ্জিত। তাই এত মাতৃভুমির বোধ লালন করেন তিনি। যে মাটির সংস্পর্শে বড় হয়েছেন বলেই মাটির ঋণ পরিশোধে তার এই আপ্রাণ প্রচেষ্টা।

অসহায়দের মাঝে শুধু খাদ্য সামগ্রী নয়  চিকিৎসাপত্রের ওষুধও সাথে নিয়ে যাচ্ছেন। ইফতার, দৈনন্দিন খাদ্য পণ্যের সাথে যাচ্ছে শিশু খাদ্য। ঝড়-বৃষ্টি, দিনরাত বিরামহীন ছুটছেন সঞ্জিত বাহিনীর ভলান্টিয়ার। দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে অসহায়দের সহায় হয়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, আলেম-উলামা, ইমাম-মুয়াজ্জিন, পুরোহিত-ঠাকুর, দু:স্থ, অন্নহীন, ওষুধ নেই, শিশু খাদ্য নেই, কাঁদছে শিশু; সবার কান্নার শব্দ শোনে ছুটছেন করোনা যোদ্ধা । তিনি হলেন ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস। তার নিজ জন্মভূমি ময়মনসিংহের গৌরীপুর।

করোনা ভাইরাসের কারণে মানুষের সেবায় সার্বক্ষনিক কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। শুরু করেছেন শহরের ভাসমান ও কর্মজীবী মানুষের জন্য নিয়মিত ইফতারের আয়োজন। ‘পথের ইফতারথ  এ টিমের স্বেচ্ছাসেবকের দায়িত্ব পালন করছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ফজলে রাব্বী খান রিফাত, গৌরীপুর পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি উত্তম সরকার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আলী আসকর সোহাগ, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি রানা সাহা, অচিন্তপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ মজিবুর রহমান খান সুমন, সাব্বির আহমেদ রাসিক, শরিফুল ইসলাম চৌধুরী, রিয়াদ হোসেন, রাসেল খান পাঠান, নাইম মিয়া।

এদিকে ত্রাণ সামগ্রী প্রেরণের জন্যও তৈরি করা হয়েছে দেশজুড়ে  সঞ্জিত চন্দ্র দাস এর বিশাল নেটওয়ার্ক। এ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবারের জন্যও পাঠানো হচ্ছে ত্রাণ সামগ্রী ও ওষুধ। উপজেলার দুরবর্তী স্থানে ত্রান পাঠাতে আরো রয়েছে  জয়বাংলা বাইসাইকেল নামে একটি টিম।

এ প্রসঙ্গে সঞ্জিত চন্দ্র দাস বলেন, সারাদেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের যে ত্রাণ সামগ্রী দেয়া হচ্ছে তা দিচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। আর এলাকা ভিত্তিক ত্রাণ সামগ্রী দিচ্ছেন সমাজের বিত্তবান মানুষ। আমরা শুধু অসহায় মানুষের হাতে তা পৌঁছে দিচ্ছি।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৬০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই