তারিখ : ০৪ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

ভালুকার করোনা আপডেট

২৯ জুলাই ২০২০, বুধবার
আক্রান্ত
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ২৮০ জন
সুস্থ
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ২১৯ জন
মৃত্যু
২৪ ঘন্টা মোট
০ জন ৩ জন

বিস্তারিত বিষয়

কালিয়াকৈরে বিষ প্রয়োগ করে চারা মেরে ফেলার অভিযোগ

কালিয়াকৈরে বন বিভাগের জমি জবর দখলের চেষ্টা রোপনকৃত চারায় বিষ প্রয়োগ করে মেরে ফেলার অভিযোগ
[ভালুকা ডট কম : ১২ জুলাই]
গাজীপুরের কালিয়াকৈরে সরকারি বন বিভাগের গেজেট ভুক্ত জমিতে রোপন কৃত গাছের চারায় বিষ প্রয়োগ করে নিধন এবং জমি জবর দখলের চেষ্টার অভিযোগ ওঠেছে।রবিবার সকালে কালিয়াকৈর রেঞ্জের চন্দ্রা বিট অফিসের আওতায় সিনাবহ এলাকায় এঘটনা ঘটেছে।এঘটনায় কালিয়াকৈর থানায় চন্দ্রা বিট অফিসার মনঞ্জুরুল ইসলাম বাদি হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

বন বিভাগ সূত্রে জানাযায়, কালিয়াকৈর রেঞ্জের চন্দ্রা বিট অফিসের অধিনে সিনাবহ  মৌজায় ২০১৫/১৬ অর্থ বছরে  সৃজত ৫ হেক্টর জমি বনায়নরের আওতায় এনে আকাশমনি চারাসহ ভিবিন্ন প্রজাতির গাছের চারা রোপন করে। এর মধ্যে ২০১৯-২০অর্থ বছরে সিনাবহ মৌজায় সিএস ৬৭ এবং ১৫৪ নং দাগে বন বিভাগের গেজেট ভুক্ত ১হেক্টর জমিতে আকাশমনি ,মেহগনি,চকরাশি,শিলকড়ই চারাসহ মোট ২৫০০ চারা চলতি মাসের ৯  জুলাই রোপন সম্পন করে।সিনাবহ বন বিভাগের গেজেট ভুক্ত জমিতে ওই এলাকার হাফিজুলের ছেলে শহিদুল ইসলাম রাতের আধারে রোপন কৃত গাছে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ২৩শতাধিক গাছের চারা মেরে ফেলে ওই জমি জবর দখল চেষ্ঠা চালাচ্ছে।

এঘটনা কালিয়াকৈর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক(এসআই)মাজহারুল ইসলাম  বলেন তদন্ত্র সাপেক্ষে অভিযুক্তদে বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।এ বিষয়ে কালিয়াকৈর চন্দ্রা বিট কর্মকর্তা মনঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, বন বিভাগের জমি যারা জবর দখল করছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।অভিযুক্ত ব্যাক্তির বিরুদ্ধে বন আইনের মামলার প্রস্তুতি চলছে।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৮৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই