তারিখ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকা বিএনপির নেতা বাচ্চু কর্তৃক ভূমি জালিয়াতি,সংবাদ সম্মেলন

ভালুকা বিএনপির নেতা বাচ্চু কর্তৃক ভূমি জালিয়াতির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
[ভালুকা ডট কম : ০৫ সেপ্টেম্বর]
ভালুকায় ভূয়া ভোটার আইডি আর্ড ব্যবহার করে দাতা বানিয়ে ভালুকা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও ময়মনসিংহ জেলা বিএনপির নেতা ফখর উদ্দিন আহম্মেদ বাচ্চু জালিয়াতির মাধ্যমে অসহায় সাধারণ মানুষের শতকোটি টাকা মূল্যের প্রায় ২৪বিঘা জমি আত্মসাতের প্রতিবাদে শনিবার সকালে(০৫সেপ্টেম্বর) ভালুকা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ভূক্তভোগি অসহায় পরিবারের সদস্যরা সংবাদ সম্মেলন করেন।এ সময় ক্ষতিগ্রস্ত ও ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলার বাশিল গ্রামের মো. আব্দুল বারেকের ছেলে ইলিয়াস আহাম্মেদ।

তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন,ভূয়া ভোটার আইডি কার্ড ও ভূয়া কাগজপত্র ব্যবহার করে বাশিল মৌজার আর ও আর ৩৪০,৩৩৯,৭৪ও৬০নং দাগের সাড়ে ৪একর জমি উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও জেলা বিএনপি‘র যুগ্ম আহবায়ক মো. ফখর উদ্দিন আহাম্মেদ বাচ্চু আমাদের পরিবারের বর্তমান বিআরএস রেকর্ডভূক্ত জালিয়াতি ও কৌশলে নিজ নামে লিখিয়ে নেন। সেই জমি তিনি নাম জারি করে বন্ধক দিয়ে মোটা অংকের টাকা ব্যাংক ঋণ করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি আরও জানান,ভালুকা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখকের সহযোগীতায় তৎকালীন সাব-রেজিস্ট্রার জাহাঙ্গীর আলমকে ম্যানেজ করে বাশিল এলাকার বাসিন্দা মৃত রিয়াজত আলী সেখের ছেলে  আব্দুর রশিদকে আব্দুল খালেক বানিয়ে ভূয়া ভোটার আইডি কার্ড বানিয়ে ১১৫৯ ও ৬৫২৯ নম্বর দলিলের আমমোক্তা নামা দলিল করান আব্দুল খালেকের মেয়ে সালমা আক্তারের নামে। পরে ২৪২১,২৪২২ ও ৬৬৫৯ দলিল মূলে সালমা আক্তারের কাছ থেকে ফখর উদ্দিন আহাম্মেদ বাচ্চু ওই জমি নিজ নামে দলিল করে নেন। এসব জমির মাঝে সরকারী রাস্তা, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও জামে মসজিদের জমিও রয়েছে।

এ ছাড়াও আরওআর খতিয়ান নং ৯৮এর জমির মালিক ইছমত আলীর মোট ১৩টি দাগে ৪একর সাড়ে সত্তোর শতাংশ জমি জনৈক আফাজ উদ্দিন সাফকবলা দলিল  করেন। ইসমত আলী জীবদশায় ওই মৌজার ১৯৮ ও ১৮৯ নম্বর খতিয়ানে সাবেক ৮৫, ৮৮, ১৮৪, ২৬৯ নম্বর দাগে সমুদয় জমি বিক্রি করে মারাযান। ২০১৮সালে বিএনপি নেতা ফখর উদ্দিন আহাম্মেদ বাচ্চু ইসমত আলীর ছেলে শহিদুল্লাহ ও সাহেদুল্লাহর কাছ থেকে ৩একর৪১শতাংশ জমি ক্রয় করেন। বাচ্চুর ক্রয় কৃত জমি পুরোটাই আফাজ উদ্দিন,আমীর আলী শেখ ও বারেক গং এর নামে বর্তমান বিআরএস রেকর্ড হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ভূক্তভোগী সহিদ সেখ, আব্দুল বারেক, আব্দুর রাজ্জাক, লেবু সেখ, এমদাত সেখ, শিখা আক্তার, বাসির সেখ, আশ্রাব উদ্দিন, আজিজুল, রেজত আলী, মুঞ্জুরুল ইসলাম, আবুল কালম,মোহাম্মদ আলী ও নুরুল ইসলাম প্রমূখ।

এই বিষয়ে বিএনপি নেতার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ফখর উদ্দিন আহাম্মেদ বাচ্চু বলেন, যারা সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন তাদের কোনো দলিল তল্লাশি দিয়ে খোঁজে পাওয়া যায় না। তাদের কোনো সঠিক কাগজ পত্র নেই। আমি ওই জমি কোনো জালিয়াতির করে জমি ক্রয় করিনি।

আজকের ভালুকা প্রেসক্লাব মিলনায়তনের সংবাদ সম্মেলনটি তার বিরুদ্ধে বি এন পির মধ্যে অনুপ্রবেশকারী কিছু ভূমিদস্যুর সাজানো বিরোধী গ্রুপের সাজানো নাটক উল্লেখ করে ভালুকার সাংবাদিকদের প্রতি ক্ষুব প্রকাশের মনোভাব পোষণ করে বলেন সংবাদ সম্মেলনে কি হবে আমি ভালুকার সর্বজনপ্রিয় বি এন পির একমাত্র নেতা যা জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ এবং কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এ বিষয়ে অবহিত আছেন আমার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করে কিছু হবে না।

এক প্রশ্নের জবাবে বি এন পির এই নেতা বলেন যে সকল নেতার বিরুদ্ধে ভূমিদস্যু খেতাব আছে তারাই আমাকে বদনাম করার জন্য এ মনগড়া কাহিনী লিখে সংবাদ সম্মেলন করছেন কিছু দালাল সাংবাদিকদের মাধ্যমে।

তিনি আরো বলেন আমি কোনো সাংবাদিককে মাসোহারা দিয়ে রাখি না তাই উনারা আমার প্রতি একটু মনঃক্ষুণ্ণ আমি রাজনীতি করি সাংবাদিকদের দিয়ে প্রচারের আমার প্রয়োজন পড়ে না, ভালুকার আপামর জনগণ আমাকে পছন্দ করে আমি ভালুকার একমাত্র বিএনপি নেতা। সংবাদ সম্মেলন করে কি হবে যদি উনারা পারে আমার বিরুদ্ধে কোর্টে গিয়ে তার প্রমাণ করুক আমি জালিয়াতির মাধ্যমে জমি দখল করেছি।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৯৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই