তারিখ : ২৭ জানুয়ারী ২০২১, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

শ্রীপুরে ভোটের মাঠে চাচা-ভাতিজা,ভাই-ভাইয়ের লড়াই

শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটের মাঠে চাচা-ভাতিজা,ভাই-ভাইয়ের লড়াই
[ভালুকা ডট কম : ০২ জানুয়ারী]
গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে কেউ কারো ছাড় দিতে রাজি নন। এ নির্বাচনে এ নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ড থেকে আপন চাচার প্রতিপক্ষ হয়েছেন আপন ভাতিজা, ৪নং ওয়ার্ড থেকে আপন চাচাতো ভাই ও ৭নং ওয়ার্ডে খালাতো ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বি হয়েছেন অপর খালাতো ভাই। কিন্তু সম্পর্ক যাই থাকুক না কেন ভোটের লড়াইয়ে কাউকে ছাড় দিতে নারাজ তাঁরা।

শ্রীপুর পৌরসভার নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন আপন চাচা-ভাতিজা। পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে লড়ছেন চাচা বর্তমান কাউন্সিলর ইজ্জত আলী ফকির ও তাঁর আপন ভাতিজা অ্যাডভোকেট মো. কামাল ফকির। এছাড়াও ৪নং ওয়ার্ড থেকে আপন চাচাতো ভাই বর্তমান কাউন্সিলর মো: শাহজাহান মন্ডল ও সাবেক কাউন্সিলর কামরুজ্জামান মন্ডল। অপরদিকে, ৭নং ওয়ার্ড থেকে বর্তমান কাউন্সিলর মো: হাবিবুল্লাহ্ ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হোসেন কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন। তারা দুজনই সম্পর্কে খালাতো ভাই। তাদের দুজনে মা সম্পর্কে চাচাতো বোন।

৮নং ওয়ার্ডের ভাতিজার প্রতিদ্বন্ধী চাচা বর্তমান কাউন্সিলর ইজ্জত আলী ফকির বলেন, এর আগেও তিনি একাধিকবার নির্বাচন করেন। গত নির্বাচনে জনগণ তাকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়ী করে ওয়ার্ডবাসীর উন্নয়ন করার সুযোগ দেন। তিনি অগণিত ভোটারদের মন জয়ী করতে পেরেছেন বলে জানান।

এদিকে, একই ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করছেন তার আপন ভাতিজা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. কামাল ফকির। তিনি বলেন, আমি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি হিসেবে সৎ ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেছি। বিশ্বাস করি ৮নং ওয়ার্ডের জনগণ আমার সততার বিচারে আমাকে কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত করবেন বলে আমি শতভাগ আশাবাদী।

৪নং ওয়ার্ড থেকে আপন চাচাতো ভাই বর্তমান কাউন্সিলর মো: শাহজাহান মন্ডল ও সাবেক কাউন্সিলর কামরুজ্জামান মন্ডলের মধ্যে হবে ভোটের লড়াই। এলড়াইয়ে জিততে কেউ কাউকেই ছাড় দিতে নারাজ। জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী বর্তমান কাউন্সিলর মো: শাহজাহান মন্ডল বলেন, গত নির্বাচনে তাকে ওয়ার্ডের ভোটাররা ভোট দিয়ে কাউন্সিলর হিসেবে এলাকার উন্নয়নে সুযোগ তৈরী করে দিয়েছিলেন। এখনো তাঁর অনেক কাজ অসমাপ্ত থাকায় এবারের নির্বাচনে তিনিও প্রার্থী হয়েছেন। অন্যান্য প্রার্থীর চাইতে তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে আশা করছেন। তবে সাবেক কাউন্সিলর কামরুজ্জামান মন্ডল জানান, গত পাঁচ বছর জনগণের আশার চাইতে প্রাপ্তি ছিল খুব নগণ্য, তিনি কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে জনগণের জন্য কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন, কিন্তু তার পরিকল্পনা অনুুযায়ী এখনো অনেক কাজ বাকী রয়ে গেছে। তাই বাকী কাজগুলো জনগণকে সাথে করতে শ্রীপুর পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন এবং সাধারণ ভোটারের ব্যাপক সমর্থন পাচ্ছেন বলে জানান।

অপরদিকে, পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড থেকে বর্তমান কাউন্সিলর মো: হাবিবুল্লাহ্ ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হোসেন কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন। তারা দু’জনই আপন খালাতো ভাই। তবে জয়ের ব্যাপারে দুজনই আশাবাদী।

বর্তমান কাউন্সিলর যুবলীগ নেতা মো: হাবিবুল্লাহ্ জানান, জনগণের প্রাপ্তিটুকু সঠিক ভাবে পৌঁছে দিতে পারায় পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর হিসেবে তাকে বেছে নিবে বলেন জানান। অপর প্রার্থী আবুল হোসেন বলেন, পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডে প্রত্যাশার তুলনায় প্রাপ্তি গুলো খুব কম ছিল। তাই এবার সাধারণ ভোটার তাদের প্রার্থী বাছাইয়ে খুব ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নিবেন। আর নির্বাচনে জনগণকে দেয়া কথা জয়ী হলে তা অক্ষরে অক্ষরে পূরণ করবো।

উল্লেখ্য, ২৬টি কেন্দ্রের ১৯০টি বুথে আগামী ১৬ জানুয়ারী এ পৌরসভায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে ৬৭হাজার ৯২৭জন ভোটারের মন জয় করতে ৬৪জন প্রার্থী ভোটের মাঠে লড়ছেন। সবগুলো কেন্দ্রেই ভোট ইভিএমে নেয়া হবে জানা গেছে। আওয়ামীলীগ-বিএনপি প্রার্থীসহ মেয়র পদে ৪জন, কাউন্সিলর পদে ৪৯জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১১জন প্রতিন্ধীতা করছেন।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

নির্বাচন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩০১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই