তারিখ : ২০ জানুয়ারী ২০২১, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাণীনগরে অবৈধ চিকিৎসালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত

রাণীনগরে হাতুড়ে ডাক্তারের পায়ুপথের চিকিৎসালয়ে দ্বিতীয়বার ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৪০হাজার টাকা অর্থদন্ড
[ভালুকা ডট কম : ০৬ জানুয়ারী]
নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার কুজাইল বাজার সংলগ্ন হিন্দু পাড়ায় অনুমোদন বিহীন ছয় শয্যার অবৈধ চিকিৎসালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দ্বিতীয় বারের মতো এই সব অবৈধ চিকিৎসালয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

চিকিৎসালয় স্থাপন করে অর্শ্ব (পাইলস) রোগের ঝুঁকিপূর্ণ শল্য চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করার অপরাধে অমলা সরকার নামক হাতুড়ে ও স্বঘোষিত নারী ডাক্তারকে এবং নিজের বাড়িকে অনুমোদনবিহীন চিকিৎসা কেন্দ্র হিসেবে ভাড়া দেওয়ায় বাড়ির মালিক লিয়াকত আলীকে মোবাইল কোর্টের আওতায় যথাক্রমে দশ হাজার ও ত্রিশ হাজার টাকা অর্থদ- প্রদান করা হয়েছে। পাশাপাশি এসকল অবৈধ চিকিৎসা কার্যক্রম সম্পূর্ণভাবে বন্ধ রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

স্থানীয় বিভিন্ন পর্যায়ের মাধ্যমকে ম্যানেজ করে দীর্ঘ প্রায় ১০বছর ধরে নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে এ ধরনের জটিল চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন মৃত-খোকনের স্ত্রী অমলা সরকার। যে কোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে গত বছরের নভেম্বর মাসের ২৪তারিখে প্রথম সেখানে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওই অভিযানে কুজাইল গ্রামের মৃত শিমন ডাক্তারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে চিকিৎসার কিছু আলামত উদ্ধার করা হয়। এই জন্য শিমন ডাক্তারের স্ত্রী জয়া সরকারকে ৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই স্থানে মৃত খোকন ডাক্তারের স্ত্রী অমলা সরকারের ভাড়া করা চিকিৎসালয়ে অভিযান চালিয়ে চিকিৎসার কাজে ব্যবহৃত কিছু উপকরন উদ্ধার করা হয়। ওউ অভিযানে অমলা সরকার ফোন বন্ধ করে পালিয়ে যান। তাই বাড়ির মালিক লিয়াকত আলী মোল্লাকে ৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সঙ্গে এই দুই চিকিৎসালয়ে যেন আর কোন দিন কোন প্রকারের চিকিৎসা সেবা দেওয়া না হয় সেই মর্মে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করা হয়। অভিযানের পর কিছুদিন এই অবৈধ কর্মকান্ডগুলো বন্ধ রাখা হলেও সম্প্রতি আবার তারা অপারেশনের কর্মকান্ড পুরোদমে শুরু করেন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দ্বিতীয়বারের মতো এই দুটি অবৈধ চিকিৎসালয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করে ৪০হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও সহকারি কমিশনার (ভ’মি) রাশেদুল ইসলাম।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও সহকারি কমিশনার (ভ’মি) রাশেদুল ইসলাম বলেন প্রথমবার ওই দুটি হাতুড়ে ডাক্তারের অবৈধ চিকিৎসালয়ে অভিযান পরিচালনা করে অর্থদন্ডের পাশাপাশি তাদের এই সকল কর্মকান্ড পুরোদমে বন্ধ রাখার কঠোর নিদের্শনা প্রদান করা হয়েছিলো। কিন্তু তারা আবার তাদের অবৈধ কর্মকান্ডগুলো শুরু করেছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অফিসের একজন স্টাফকে ছদ্মবেশে অমলার চিকিৎসালয়ে চিকিৎসা গ্রহণের জন্য পাঠানো হয়। এতে নতুন করে তাদের শুরু করা কর্মকান্ডের সত্যতা পাওয়া গেলে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় মৃত খোকন ডাক্তারের স্ত্রী অমলা সরকারের ভাড়া করা চিকিৎসালয়ে অভিযান চালিয়ে পুনরায় চিকিৎসার কাজে ব্যবহৃত কিছু উপকরন উদ্ধার করা হয়। সেই সঙ্গে বাড়ির মালিককে পুনরায় বাড়ি ভাড়া দেওয়ার অপরাধে ৩০হাজার ও অমলা সরকারকে ১০হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছে। অপরদিকে আরেক হাতুড়ে ডাক্তার মৃত শিমন ডাক্তারের স্ত্রী জয়া সরকার উপস্থিতি টের পেয়ে তার বাড়িতে রাখা অপারেশনের রোগীদের অন্য স্থানে রেখে বাড়িতে তালা দিয়ে পালিয়ে যান। তাই তার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব হয়নি। পরবর্তি যদি তারা আবার এই সব কর্মকান্ড শুরু করেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। #



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩০০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই