তারিখ : ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁ পৌরসভার স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল

নওগাঁকে ডিজিটাল মডেল পৌরসভা বির্নিমানে কাজ করতে চান স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল
[ভালুকা ডট কম : ২৪ জানুয়ারী]
আগামী ৩০জানুয়ারী তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নওগাঁ পৌর সভা নির্বাচন। তীব্র শীত আর ঘনকুয়াশাকে উপেক্ষা করে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা দিন-রাত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। প্রচার মাইকের শব্দে মুখরিত পুরো পৌর এলাকা। পোষ্টারে পোষ্টারে ছেঁয়ে গেছে পুরো তিলোত্তমা শহর নওগাঁ।

আসন্ন নওগাঁ পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে খেজুরগাছ প্রতিক নিয়ে মাঠে নেমেছেন নওগাঁ চেম্বারের সভাপতি ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল। এছাড়াও মাঠে রয়েছেন আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ শাহা ও বিএনপি মনোনিত প্রার্থী আলহাজ্ব নজমুল হক সনি।

নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রতিদিন রাসেল বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, পথ সভা, মিটিং ও সিটিং করছেন। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের বার্তা পৌছে দিচ্ছেন সাধারন মানুষদের কাছে। দলের প্রতি আনুগত্য, বিশ্বস্ততা এবং জনসেবায় রাসেল এক অনন্য দৃষ্টান্ত। তিনি সব সময় পৌর সভার পিছিয়ে পড়া, ছিন্নমূল, অসহায়, গরীব, খেটে-খাওয়া মানুষদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। করোনা ভাইরাসের মধ্যে তিনি ব্যক্তিগত ও চেম্বারের পক্ষ থেকে বেকার হওয়া কর্মচারী ও ব্যবসায়ীদের জন্য বিভিন্ন প্রণোদনা প্রদান করেছেন। ব্যবসা বান্ধব হিসেবে ইকবাল শাহরিয়ার রাসেলের জুড়ি মেলা ভার।

ইকবাল শাহরিয়ার রাসেল বলেন, পৌরবাসী মেয়র পদে পরিবর্তন চায়। ছোট যমুনা নদীর তীরে গড়ে ওঠা ব্যবসা প্রধান কেন্দ্র এই তিলোত্তমা শহর নওগাঁ। কিন্তু বিগত সময়ের কোন মেয়রই ব্যবসায়ীদের জন্য কোন কাজ করেন নাই। তাই পৌরবাসী এবার একজন ব্যবসায়ী বান্ধব প্রার্থীকে মেয়র হিসেবে দেখতে চান বলেই আমি নির্বাচনের মাঠে নেমেছি। দলমত নির্বিশেষে সকল বিভেদ ভুলে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারায় সবাইকে সম্পৃক্ত করতে চাই। পৌরবাসীর নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে আমি কয়েকটি পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। আলোকিত নওগাঁ উপহার দিতে পৌর এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ডে থাকবে ল্যামপোষ্ট স্থাপন ও শহরের যানজট নিরসনই হবে আমার প্রথম কাজ। পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, উন্নত রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎ, বিনোদন কেন্দ্র, খেলাধুলাসহ সব ধরনের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করা। প্রতিটি ওয়ার্ডে থাকবে অভিযোগ বাক্স। যেখানে এলাকাবাসী তাদের দুঃখ ও দূর্দশাসহ বিভিন্ন অনিয়মের কথা তুলে ধরবেন। পৌরবাসীকে মশার হাত থেকে রক্ষার জন্য নিয়মিত মশক নিধন অভিযান অব্যাহত রাখাসহ নওগাঁ পৌর সভাকে একটি আধুনিক ও মডেল পৌর সভা হিসেবে বির্নিমানে যা যা করা প্রয়োজন তা আমি পৌরবাসীকে নিয়েই করতে চাই। এখন পর্যন্ত কোন মেয়র প্রার্থীই নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেননি কিন্তু আমি পৌরবাসীর কাছে আমার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্বলিত নির্বাচনী ইশতেহার পৌছে দিয়েছি। আমি মেয়র নির্বাচিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ২০৪১সালের ভিশন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নওগাঁ পৌরবাসীর পাশে থাকার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য পৌরবাসী আমাকেই ভোট দিয়ে বিজয়ের মালা আমার গলায় পড়িয়ে দিবেন বলে আমি শতভাগ আশাবাদি। যদি ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে শান্তিপূর্ন ভাবে ভোট দিতে পারেন তাহলে আমার বিজয় শতভাগ নিশ্চিত হবে ইনশাল্লাহ।

১৯৬৩সালের ৭ডিসেম্বর ৩৮দশমিক ৩৬বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে যাত্রা শুরু করা নওগাঁ পৌরসভাটি প্রথম শ্রেণির পৌরসভায় উন্নীত হয় ১৯৮৯সালে। বর্তমানে ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১লাখ ১৬হাজার ৯১জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৭ হাজার ১৭৫ জন এবং নারী ভোটার ৫৮ হাজার ৯১৬ জন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

নির্বাচন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩০৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই