তারিখ : ৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

মদনে কুড় বিলের দখল নিয়ে সংঘর্ষের আশঙ্কা

মদনে কুড় বিলের দখল নিয়ে সংঘর্ষের আশঙ্কা
[ভালুকা ডট কম : ০৮ ফেব্রুয়ারী]
নেত্রকোনার মদন উপজেলার তিয়শ্রী ইউনিয়নের ধুবাওয়ালা গ্রামের দক্ষিণপাশের সরকারি কুড় বিলের দখল নিয়ে সংঘর্ষের আশষ্কায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে সোমবার এলকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এলাকায় বার বার এ নিয়ে শালিসী বৈঠক বসলেও কোন সুরাহা হয় না। কুড় বিলের মালিকানা গ্রামের একাধিক পরিবার দাবি করায় বিষয়টি নিষ্পত্তি করা সম্ভব হচ্ছে না বলে শালিসের মাতাব্বরগণ জানান। এলকার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখার লক্ষ্যে কুড়বিল সরকারি হেফাজতে রাখার দাবি জানান সাধারণ জনগণ।

অভিযোগে জানাযায়, ধুবাওয়ালা গ্রামের দক্ষিণ পাশের ১৭৬১ নং দাগে (১১ একর) কুড়বিল নামের একটি সরকারি জলাশয় রয়েছে। গত কয়েকবছর ধরে ধুবাওয়ালা গ্রামের আব্দুল হাই ভূইয়া, আসাদুজ্জামান ছন্নু, শামীমসহ কয়েকজন উশৃঙ্খল প্রভাবশালী ব্যাক্তি তাদের নামে বিআরএস করে মালিক দাবিতে ভোগদখল করে আসছে। এতে একই  গ্রামের শাহ আলম ভূইয়া, জহিরুলসহ কয়েকজন বিআরএস এর মালিকানা দাবি করে বিলে মাছ ধরতে গেলে প্রায় সময়েই মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ কয়েকদফা সালিশ করেও কোনো রকম সুরাহা করতে পারছে না। কুড়বিল নিয়ে শাহ আলম ভূইয়া কোর্টে একটি মামলা দায়ের করলে আদালত এ বিলের উপড় ১৪৫ ধারা জারি করেন। কিন্তু আদালতের আদেশ অমান্য করে প্রভাবশালী মহলটি তাদের কার্যক্রম বহাল রাখায় এলকায় চরম উত্তেজনা দেখা দেয়। বিষয়টি সুরাহার জন্য গত (০৬ ফেব্রুয়ারি) শনিবার বিকালে আব্দুল হাই ভূইয়ার বাড়িতে মদন পৌর মেয়র, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানসহ গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে শালিসে বসেন। তখন আসাদুজ্জামান ছন্নু ও শামীম ধারালো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দলের লোকজনকে নিয়ে শালিসের স্থানে উত্তেজনার সৃষ্টি করে। এক পর্যায়ে টিপন মিয়াকে মারপিট করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে শালিস বৈঠক ভেঙ্গে যায়। আহত টিপন মিয়াকে মদন হাসপাতালে ভর্তি করার পর থেকেই এলাকায় আরো উত্তেজনা বেড়েছে। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর সোমবার একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ দিকে আসাদুজ্জামান ছন্নুর লোকজন প্রতিপক্ষকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার পায়তারা করছে বলে অভিযোগে উল্লেখ রয়েছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আব্দুল হাই ভূঁইয়ার  জানান,  ১৯৫৯ সনে আমরা  সরকারি এ জমিটি বন্দোবস্ত নিয়ে এ যাবৎ ভোগ দখল করে আসছি এবং সরকারি বিধিমোতাবেক খাজনা দিয়ে আসছি। যারা আমাদের নামে অভিযোগ করেছে তাদের নামে কোন জমি নেই। তারা মূলত জোড়পূর্বক জমি দখলের পায়তারা করছে। সালিশ বেঠকে আমার ভাতিজাকে মারপিঠ করেছে বর্তমানে  সে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে তার অবস্থা আশষ্কা জনক।

এ ব্যাপারে সালিশ বৈঠকের মাতাব্বর উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান ধুবাওয়ালা গ্রামের বানিসন্দা তোফায়েল আহমেদ জানান, ধুবাওয়ালা গ্রামে পাশে সরকারি কুড় বিলের মালিকানা দাবি নিয়ে গত শনিবার আব্দুল ভূইয়ার বাড়িতে শালিসে বসলে দু-পক্ষের উত্তেজনায় মারপিটের ঘটনা ঘটায় তা মীমাংসা করতে সম্ভব হয়নি।

ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা  খুররম জাহ্মুরাদ জানান, কুড়বিল নিয়ে ধুবাওয়ালা গ্রামের শাহ আলম ভূইয়া কোর্টে একটি মামলা দায়ের করলে আদালত এ বিলের উপড় ১৪৫ ধারা জারি করেন। মামলাটি বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই