তারিখ : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

জাজিরার প্রতিবেদনে সরকারের পেট খারাপ হয়ে গেছে

আল জাজিরার প্রতিবেদনে সরকারের পেট খারাপ হয়ে গেছে-গয়েশ্বর
[ভালুকা ডট কম : ১৩ ফেব্রুয়ারী]
কাতার-ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরায় প্রকাশিত ‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ প্রতিবেদনে সরকারের পেট খারাপ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি) আয়োজিত এক মানব-বন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন। সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ‘বীর উত্তম’ খেতাব বাতিলের প্রতিবাদে এই মানব-বন্ধন হয়।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আল জাজিরার ঘটনা নিয়ে এতটা পেট খারাপ হওয়ার কথা তো না আপনাদের। কারণ আপনাদের হজম শক্তি কম না। অনেক কিছু হজম করেছেন। এটা তো হজম করতে পারবেন। এটা তো লক্ষ ঘটনার একটা ঘটনা মাত্র। এটাতে মাথা খারাপ হওয়ার এতো কী হল? আমি বলব- এসব গলাবাজি, চাপাবাজি ছেড়ে সঠিকভাবে আপনি মোকাবিলা করেন। প্রমাণ করে দেন যে, আল জাজিরা যা বলছে এটা সঠিক না, সত্য না মিথ্যা।

স্বাধীনতা যুদ্ধে জিয়াউর রহমানের ভূমিকার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান বীর উত্তম, সেই বীর উত্তমকে বলব সবচেয়ে উত্তম জিয়াউর রহমান। সবচেয়ে বেশি শহীদ হয়েছে তার ‘‘জেড ফোর্স’’ থেকে। সবচেয়ে বেশি পাকিস্তানি সেনাবাহিনী পরাস্ত হয়েছে তার ফোর্স থেকে, সবচেয়ে বেশি খেতাব পেয়েছেন ‘‘জেড ফোর্সে’’ যারা ছিলেন তারা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য আরও বলেন, জিয়াউর রহমান সংবিধানের মৌলিক অধিকারগুলো আপহোল্ড করেছেন। অর্থাৎ গণতন্ত্রে তিনি পরিপূর্ণতা এনেছেন, সকল স্তরে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া তিনি চালু করেছেন, সংবাদপত্র প্রকাশ করার অবাধ সুযোগ করে দিয়েছেন। সব মাপকাঠিতে মুক্তিযুদ্ধের যে মূল লক্ষ্য ছিল গণতন্ত্র, সেই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার সঙ্গে জিয়াউর রহমান সবসময় থেকেছেন, সাহসের সঙ্গে থেকেছেন।

সরকারকে গণতন্ত্রের পথে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়ে গয়েশ্বর বলেন, এটা রাজতন্ত্রের দেশ না। রাজা-রাজা যুদ্ধ করে পরাজিত হলে আরেক রাজা আসে। প্রজারা প্রজার জায়গায় থাকে। এটা জনগণের দেশ। জনগণের দেশটা জনগণের মতো চলতে দেন, জনগণের দেশটা জনগণের কাছে ছেড়ে দেন।

ওদিকে  মুক্তিযুদ্ধে খেতাব প্রাপ্ত বিএনপি’র  দুই নেতা বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজউদ্দিন আহমেদ ও শাহজাহান ওমর  বলেছেন মুক্তিযুদ্ধের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিলের কোনো এখতিয়ার জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) নেই।বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে গুলশান কার্যালয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এসব কথা বলেন।নেতৃদ্বয়  বলেন, জামুকার কাজ কে ভাতা পাবে কি পাবে না, কে মুক্তিযোদ্ধা, কে মুক্তিযোদ্ধা  নয়- এসব দেখা।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩০৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই