তারিখ : ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় দুইজনকে অপহরন করে মুক্তিপন দাবী

ভালুকায় দুইজনকে অপহরন করে মুক্তিপন দাবী
[ভালুকা ডট কম : ১৯ জুন]
ভালুকায় পোষাক কারখানার শ্রমিক ইঞ্জিনিয়ার মনিরুল ইসলাম (২৪) ও তার বন্ধু মোঃ রিয়েল(১৯)কে অপহরন করে মুক্তিপন দাবী করেছে অপহরনকারীরা। এঘটনায় অপহরিতার পিতা বাদী হয়ে ভালুকা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগকারী মনিরুলের পিতা আজিজুল হক জানান, সে একজন রিক্রা চালক। রিক্্রা চালিয়ে তার ছেলে মনিরুল ইসলামকে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়িয়েছে। মনিরুল উপজেলার ভরাডোবা এলাকায় স্মৃতি নামের একটি পোষাক করখানায় চাকুরী করে। ১৮ জুন শুক্রবার কারখানা ছুটি থাকায় সন্ধা ৭টার দিকে সে এবং রিয়েল নামের তার এক বন্ধুকে নিয়ে ঘোরতে বাহির হয় মনিরুলের মোবাইল ফোন বাসায় ছিল। অনেক রাত হওয়ার পরও তারা যখন বাড়ী ফিরছিল না তখন দুই পরিবারের লোকজন খুজাখোজি শুরু করে। রাত ১২টার দিকে মনিরুলের ভগ্নিপতি সোহেলের ফোনে অপহরনকারীরা ফোন করে বলে মনিরুল ও রিয়েলকে টাকার জন্য অপহরন করা হয়েছে। ৪০ হাজার টাকা পাঠালে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হবে এবং এঘটনা পুলিশকে জানালে দুইজনকে মেরে ফেলার কথা বলে। পড়ে দুই পরিবার অপহরনকারীদের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলে ১৫ হাজার টাকা পাঠালে দুইজনকে রাতেই ছেড়ে দেয়ার কথা বলে। মনিরুলের পিতা বিকাশের মাধ্যমে ১৫হাজার টাকা পাঠায়। অপহরনকারীরা রাতের মধ্যে তাদেরকে ছেড়ে কথা বলে টাকা নিয়েছে কিন্তু পরদিন সকাল ৯টার মধ্যে যখন মনিরুল ও রিয়েলকে ছেড়ে দেয়নি তখন তারা পুলিশের নিকট যায়। পুলিশ ওই ফোন নন্বরে ওদের সাথে কথা বলে। এরপর থেকে ফোন নন্ধ রয়েছে।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান । ওদের ফোন বন্ধ রয়েছে ,ফোন ট্যাকিং চলছে। উদ্ধারের জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে। গোপনীয়তার জন্য সকল তথ্য দেয়া যাবে না। আগে উদ্ধার হওক পড়ে বিস্তারিত জানাযাবে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই