তারিখ : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

শ্রীপুরে আর্থিক টানা পোড়েন পারিবারিক বিরোধে বৃদ্ধের আত্নহত্যা

শ্রীপুরে চলমান লকডাউনে কাজ না থাকায় ও আর্থিক টানা পোড়েন পারিবারিক বিরোধে বৃদ্ধের আত্নহত্যা
[ভালুকা ডট কম : ০২ আগস্ট]
গাজীপুরের শ্রীপুরে চলমান লকডাউনে কাজ না থাকায় ও আর্থিক টানা পোড়েন থাকায় পারিবারিক বিরোধে বৃদ্ধ আলম হোসেন (৬০) গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করেছে। সে উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বেলদিয়া গ্রামের মৃত ইউনুছ আলীর ছেলে। সোমবার (২ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৭ টায় ওই গ্রামের কালিবাড়ী এলাকার পরিত্যক্ত সরকারি খাদ্য গুদামের বারান্দায় তিনি আত্নহত্যা  করেন। শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিপন আলী খান এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কাওরাইদ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার নূরুল ইসলাম জানান, আলম হোসেন কাওরাইদ বাজারের ইমরান হোসেনের ভাংগারীর দোকানে কাজ করতো। সম্প্রতি দোকান বন্ধ থাকায় তার হাতো কোনো কাজ কর্ম নেই এবং হাতে টাকা পয়সা না থাকায় স্ত্রী রহিমা খাতুনের সাথে প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকতো। সোমবার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাড়ির পাশের নুরুল ইসলামের দোকানে চা পান করে। পরে পাশের পরিত্যাক্ত খাদ্য গুদামের বারান্দায় গিয়ে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করে। নিহতের স্ত্রী বাড়ির বাহিরে গেলে ওই স্থানে তাকে গালায় রশি পেঁচানো অবস্থায় ঝুলে থাকতে দেখে। পরে তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এসে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে।

এসআই রিপন আলী খান আরো জানান, সুরতহাল প্রতিবেদন ওই বৃদ্ধের শরীরের কোথাও কোনো আঘাতের চিহ্ন যাওয়া যায়নি। কোনো অভিযোগ না থাকায় নিহতের পরিবারের সদস্যদের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়না তদন্তে স্থানীয় মেম্বারের উপস্থিতিতে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই