তারিখ : ০১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

বদলগাছীতে ভাতিজা বউকে ধর্ষণের অভিযোগ

বদলগাছীতে ভাতিজা বউকে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রাম্য শালিশে গাছে ঝুলিয়ে ধর্ষকের পা ভেঙ্গে দিলো মেম্বার
[ভালুকা ডট কম : ১৮ অক্টোবর]
নওগাঁর বদলগাছীতে ভাতিজা বউকে ধর্ষন করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী এক চাচা আব্দুল লতিফের বিরুদ্ধে। রোববার রাতে এই ঘটনা ঘটেছে। অপরদিকে সোমবার গ্রাম্য সালিশের নামে স্থানীয় ইউপি সদস্য সাধন চন্দ্র ধর্ষক লতিফকে গাছে ঝুলিয়ে পিটিয়ে তার পা ভেঙ্গে দিয়েছে এবং বউকেও মারপিট করেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,  উপজেলার মিঠাপুর ইউপির উজালপুর গ্রামের ছহিম উদ্দীনের ছেলে আব্দুল লতিফ (৫০) একই গ্রামের পাশের বাড়ীর ভাতিজার স্ত্রীর সাথে অবৈধ কাজে লিপ্ত হলে প্রতিবেশীরা তাদের আটক করে। সোমবার গ্রাম শালিশ বসিয়ে মিঠাপুর ইউপি সদস্য সাধন চন্দ্র ও দেলোয়ার হোসেন, মাতব্বর এসকেন সোনার আব্দুল লতিফকে গাছের সাথে বেঁধে বেধরক মারপিট ও নির্যাতন করে। এসময় আব্দুল লতিবের ডান পা ভেঙ্গে যায় এবং মিঠাপুর ইউপির মহিলা গ্রাম পুলিশ ইউপি সদস্যদের হুকুমে আমিনাকে নির্যাতন করে মারপিট করে এবং বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার হুকুম দেন।

স্থানীয়রা বলেন, মুনজুরুল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে ঢাকাতে রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। তিনি অন্যায় করেছে ঠিক কিন্তু এভাবে রশি দিয়ে বেঁধে গাছে ঝুলিয়ে পা ভেঙ্গে দেওয়া এবং মারপিট করা ঠিক হয়নি। অপরদিকে নির্যাতনের সময় আমিনার ছোট ২টি বাচ্চাকে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়।

এব্যপারে ইউপি সদস্য সাধন চন্দ্র বলেন গ্রাম্য শালিশের সিদ্ধান্তে তাদেরকে শাসন করা হয়েছে। সত্যতা নিশ্চিত করে বদলগাছী থানার ওসি (তদন্ত) রায়হান হোসেন বলেন, খবর পেয়ে আব্দুল লতিফকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আমিনা খাতুনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এই বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই