তারিখ : ১৪ আগস্ট ২০২২, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় কিশোরীকে হত্যার অভিযোগে সৎ বাবা গ্রেপ্তার

ভালুকায় কিশোরীকে হত্যার অভিযোগে সৎ বাবা গ্রেপ্তার
[ভালুকা ডট কম : ২৫ জুন]
ভালুকায় উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত কিশোরীর লাশের পরিচয় মিলেছে। তার নাম মিনু আক্তার। বয়স ১৫বছর। সে কুড়িগ্রামের ওলিপুর থানার দীঘলআইলা গ্রামের মিলন মিয়ার মেয়ে। তার মায়ের নাম মাহমুদা বেগম। ওই ঘটনায় ওলিপুরের কাছুয়া শেখের ছেলে মিনুর সৎ বাবা শফিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ। আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে সকালে কুড়িগ্রামের নিজ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে শনিবার (২৫জুন) আদালতে পাঠায় ভালুকা মডেল থানা পুলিশ।

থানা ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী মো. শফিকুল ইসলাম ও পোশাককর্মী মাহমুদা বেগম তাদের আগের স্ত্রী এবং স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রায় এক দেড় বছর আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন এবং তারা কিশোরী মিনু আক্তারকে সাথে নিয়ে ভালুকা উপজেলার জামিরদিয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করেন। একপর্যায়ে শফিকুল ইসলাম ব্যবসা করার কথা বলে স্ত্রী মাহমুদা বেগমের কাছে তার আগের কর্মস্থল চট্রগামের একটি কারখানায় পাওনা ১লাখ ৩৫হাজার টাকা এনে দেওয়ার জন্যে চাপ দেন। কিন্তু, মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার কথা বলে মাহমুদা বেগম তার ওই টাকা স্বামী শফিকুলকে দিবেনা বলে জানিয়ে দেন। পরে, পাওনা টাকা আনার জন্যে মাহমুদা বেগম গত ৭জুন চট্রগ্রাম যান।

এদিকে, শফিকুল ইসলাম তার স্ত্রীর টাকা পাওয়ার জন্যে বন্ধু রিপনের সাথে পরামর্শ করে পথের কাঁটা মিনুকে সরিয়ে দেওয়ার সীদ্ধান্ত নেন। পরে, মায়ের অনুপস্থিতিতে শফিকুল গত ৮জুন রাতে ঘরে ঘুমন্ত মিনুকে শ্বাস রোধে হত্যা করে ভাড়া বাসার পাশের এক জঙ্গলে ফেলে আসেন এবং পরদিন রাতে ওই লাশ একই এলাকায় প্রস্তাবিত একটি কারখানায় বাউন্ডারীর ভিতর পুতে রাখেন। এদিকে, মিনুকে চাপা দেওয়া মাটি বৃষ্টির পানিতে সরে গিয়ে তার পা বেড় হয়ে আসে। পরে, স্থানীয়রা গত বৃহষ্পতিবার (২৩ জুন) সকালে লাশ দেখে পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ওইদিন দুপুরে লাশটি উদ্ধার এবং হত্যা মামলা নিয়ে তদন্ত শুরু করে। পরে, গোপন সূত্র এবং তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে কুড়িগ্রামের নিজ বাড়ি থেকে মিনুর সৎ বাবা শফিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামাল হেসেন জানান, মিনু আক্তারের সৎ বাবা শফিকুলকে গ্রেপ্তার করে আজ আদালতে পাঠানো হয়েছে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৪৯৬১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই