তারিখ : ১৪ আগস্ট ২০২২, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নান্দাইলে মাদ্রাসায় অধ্যক্ষ নিয়োগে অনিয়ম

নান্দাইলে নিভিয়াঘাটা ফাযিল মাদ্রাসায় অধ্যক্ষ নিয়োগে ব্যাপক অনিয়ম
[ভালুকা ডট কম : ০১ আগস্ট]
ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার গাংগাইল ইউনিয়নের ঐহিত্যবাহী নিভিয়াঘাটা ফাযিল মাদ্রাসায় শূণ্য পদে রোববার (৩১ জুলাই) দিনব্যাপী নানা ঘটনার পর অবশেষে রাত ৮টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে মাওলানা আজিজুল ইসলামকে নিয়োগ বোর্ড অধ্যক্ষ পদের জন্য সুপারিশ করেছেন। গত বৃহস্পতিবার ( ২৮জুলাই) নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছিল।

মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহা পরিচালক সংশ্লিষ্ট মাদ্রাসায় নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়ার জন্য লিখিত নিদের্শনা প্রদান করলেও মাদ্রাসার গভনিং বডি রোববার বিকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কথিত পরীক্ষা গ্রহন করে। পূর্ব থেকে নির্ধারিত পানান ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মাওলানা আজিজুল ইসলামকে নিয়োগ প্রদান করা হবে বিষয়টি জানতে পেরে ৪জন আবেদনকারী পরীক্ষা বর্জন করে চলে যান। পরবর্তী সময়ে অধ্যক্ষ পদে আবেদন করার প্রয়োজনীয় যোগ্যতা না থাকার পরেও পানান ইসলামিয়া মাদ্রাসার প্রভাষক মো. আব্দুল জলিল, পিতাম্বর পাড়া হোসাইনিয়া মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক মো. খলিলুর রহমান এবং মাওলানা আব্দুল জলিলকে পক্সি পরীক্ষার্থী হিসাবে হাজির করে মাদ্রাসার গভনিং বডির সভাপতি মো. রুকন উদ্দিন ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রহিম তাদের নামে ইন্টারভিউ কার্ড প্রদান করে পক্সি পরীক্ষা প্রদানের সুযোগ প্রদান করেন। নিভিয়াঘাটা এলাকাবাসী ও অত্র মাদ্রাসায় কর্মরত ২৭জন শিক্ষক/কর্মচারী মাওলানা আজিজুল ইসলামকে অত্র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দান না করার জন্য মাদ্রাসার গভনিং বডির সভাপতির বরাবর লিখিত স্মারকলিপি প্রদান করে। যা অনুলিপি স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রদান করা হয়েছে।

এলাকাবাসীর নিয়োগের তীব্র বিরোধিতার পরেও সর্বশেষ মাওলানা আজিজুল ইসলামকে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ প্রদানের জন্য নিয়োগ বোর্ড সুপারিশ করেছে বলে জানাগেছে। নিয়োগ বোর্ডে মাদ্রাসা অধিদপ্তরের ডিজির প্রতিনিধি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবুল মনসুরের নিকট অধ্যক্ষ পদে আবেদন করার যোগ্যতা নাই এমন ব্যক্তিদের নামে ইন্টারভিউ কার্ড প্রদানের বিষয়টি অবহিত করা হলে তিনি জানান, আবেদন বাচাই-বাছাই করার জন্য আলাদা একটি কমিটি রয়েছে। এক্ষেত্রে আমার করার কিছু নাই।

মাওলানা আজিজুল ইসলামকে নিয়োগ দান করার সুপারিশ করার বিষয়টি নিয়ে এলাকা তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। নিয়োগের বিরুদ্ধে মামলা সহ আরও কঠোর কর্মসূচি প্রদান করার হবে বলে এলাকার অভিভাবকরা জানিয়েছেন। এদিকে মাদ্রাসার সভাপতি মো. রুকন উদ্দিন ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রহিম ডোনেশন গ্রহন করে অধ্যক্ষ নিয়োগ করা হয়নি বলে জানান।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৪৯৬১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই