তারিখ : ২১ জুলাই ২০২৪, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

আগুনে পুড়লো নওগাঁ-৬ নৌকার নির্বাচনী অফিস

উদ্বোধনের একদিন পরেই আগুনে পুড়লো নওগাঁ-৬ আসনের নৌকা প্রতিকের নির্বাচনী অফিস
[ভালুকা ডট কম : ২৭ ডিসেম্বর]
নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের রাণীনগর উপজেলার কাশিমপুর ইউনিয়নের এনায়েতপুর গ্রামের সোনারপাড়ার উদ্বোধনের একদিনের মাথায় নৌকা প্রতিকের অফিসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় কতিপয় দুর্বৃত্তরা অফিসে আগুন দিলে অফিসের পোস্টার ও কাপড় পুড়ে যায়। এতে করে ওই এলাকায় এক আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। খবর পাওয়ার পর বুধবার বিকেলে সহকারি কমিশনার (ভ’মি) ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অফিসের দায়িত্বে থাকা ৫নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি আব্দুল আজিজ জানান গত সোমবার এনায়েতপুর গ্রামের সোনারপাড়ায় নৌকা প্রতিকের এই নির্বাচনী অফিসটি উদ্বোধন করা হয়। গত মঙ্গলবার রাতে এলাকায় নৌকার পক্ষে নির্বাচনী কাজ শেষে অফিসে বসে ভোটারদের নিয়ে চা পানের পর তিনিসহ অন্যরা বাড়ি চলে যান। এরপর ভোররাতে ফজরের নামায পড়তে যাওয়ার সময় তিনি দেখতে পান যে কে বা কারা অফিসে আগুন দিলে পোস্টার ও কাপড় পুড়ে গেছে। আগুন দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা তা নিভিয়ে দেয়ার কারণে বড় ধরনের কোন দুর্ঘটনা ঘটেনি। বিষয়টি নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।

উপজেলা আ’লীগের সদস্য ও নৌকার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হেলাল এমপির ছেলে রাহিদ সরদার জানান নির্বাচনী প্রচার কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও তার কর্মী-সমর্থকরা গায়ে পড়ে দ্বন্দ্ব সৃষ্টির মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনী পরিবেশ অশান্ত করতে চাচ্ছেন। গত রবিবার দিবাগত রাতে আত্রাই উপজেলার শাহাগোলা এলাকায় নৌকা প্রতিকের নির্বাচনী অফিসেও স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকেরা হামলা চালিয়ে চেয়ার, টেবিল ভাংচুর ও পোস্টার ছিড়ে ফেলেছে। তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় ট্রাক প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রার্থী সুমনের লোকজনেরা এনায়েতপুর গ্রামের সোনারপাড়ার নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়েছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী যদি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষ হতো আর দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে ভালোবাসতেন তাহলে এমন জঘন্য কাজ করে সাধারণ মানুষদের মাঝে আ’লীগ সম্পর্কে মন্দ ধারণার সৃষ্টি করতেন না। আমি এই ধরণের কর্মকান্ডের জন্য স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জড়িত তার কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে আইনগত শাস্তি দাবী করছি।

স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাড. ওমর ফারুক সুমন জানান তার বিরুদ্ধে করা এমন অভিযোগ সম্পন্ন মিথ্যে ও বানোয়াট। নৌকা প্রতিকের প্রার্থী তার ট্রাক প্রতিকের পক্ষে গণজোয়ার দেখে নিজেরাই নিজেদের অফিসে আগুন দিয়ে তা তার উপর চাপিয়ে দিচ্ছেন। নৌকা প্রার্থী ও তার কর্মী-সমর্থকরা নির্বাচনী প্রচার কাজের শুরু থেকেই তাকে বাধা দিয়ে আসছেন এবং তার লোকদের ভয়ভীতি প্রদান অব্যাহত রেখেছেন।  

নির্বাচন পর্যবেক্ষণের মোবাইল কোর্টের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা সহকারি কমিশনার (ভ’মি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান খবর পেয়ে পুলিশ সদস্যসহ আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

নির্বাচন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৯৩৯১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই