তারিখ : ২০ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

যৌন রোগের ভেজাল ওষুধে ভয়াবহ স্বাস্থ্যঝুঁকি

যৌন রোগের ভেজাল ওষুধে ভয়াবহ স্বাস্থ্যঝুঁকি
[ভালুকা ডট কম : ২২ ফেব্রুয়ারী]
বর্তমানে তরুণ সমাজ যৌন রোগ সম্পর্কে ভ্রান্ত ধারণা থেকে ছুটছেন ভুয়া ডাক্তার, হারবাল, কবিরাজি ও হোমিওপ্যাথিসহ সব ধরনের হাতুড়ে ডাক্তারের কাছে। এসব ভেজাল ও নকল ওষুধ খেয়ে তারা রীতিমত হতাশায় নিমজ্জিত। তাদের জীবনে নেমে আসছে নেশার কালো ছায়া।

তরুণরা বছরে হাজার হাজার টাকা ওষুধ ও অন্যান্য অপচিকিৎসা বাবদ ব্যয় করেছেন। এসব ওষুধে কোনো কাজই হয়না, বরং লিভার, কিডনি সহ শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গপ্রত্যঙ্গ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করে ফেলে। উল্টো আরো স্থায়ী ভাবে তাদের যৌনশক্তি বিনষ্ট করে। বেশিরভাগ ভেজাল ওষুধে নেশা জাতীয় দ্রব্য মেশানো থাকে যেগুলো খেয়ে তারা নেশাগ্রস্থ হয়ে পরে। পরবর্তিতে লোকলজ্জার ভয়ে কাউকে বিষয়গুলি আর কারো সাথে শেয়ার করেনা। অথচ রেজিস্টার্ড যৌনরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শক্রমে সম্পুর্ণ সুস্থ থাকতে পারতো।

এই রোগীগুলি বেশিরভাগই সাইকো-সেক্সুয়াল ডিজঅর্ডার থাকে। বেশীরভাগেরই শারীরিক কোনো সমস্যা নাই। উপযুক্ত চিকিৎসা ও যথাযথ  কাউন্সিলিং করতে পারলেই এসব রোগের উপকার পাওয়া যায়। যদিও প্রায় শতকরা ৯৯ ভাগ ক্ষেত্রেই এ বয়সের তরুণদের কোনো ধরনের শারীরিক সমস্যা থাকে না। ভ্রান্ত ধারণার কারণে তারা মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। কখনো কাল্পনিক সমস্যা নিয়ে ভুয়া চিকিৎসকের কাছে যায়। এসব ওষুধের আদৌ কোনো প্রয়োজন নেই। যথাযথ পরামর্শেই অধিকাংশ সমস্যা নিরাময় হয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে রেজিস্টার্ড ওষুধ প্রয়োজন হয়। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই