তারিখ : ২২ মার্চ ২০১৯, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

কালিয়াকৈরে পাচশতাধিক বিখ্যাত জনের ছবি নিয়ে যাদু ঘর

কালিয়াকৈরে পাচশতাধিক বিখ্যাত জনের ছবি নিয়ে যাদু ঘর  
[ভালুকা ডট কম : ১০ জানুয়ারী]
কোন ব্যবসার উদ্দেশ্যে নয়, নিজের আত্মতৃপ্তি আর শখ পূরণ করতেই ছবি সংগ্রহ করছেন মাখনালয় জুয়েলাসের মালিক নিখিল চন্দ্র কমকার। ১৫ বছর ধরে প্রায় সারে ৫শ জন বিখ্যাত জনের ছবি সংগ্রহ করেছেন তিনি। তার গহনা তৈরির দোকান যেন এক ছবির জাদুঘর।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিজের শখ আর সদিচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়ে ১৫ বছর ধরে বিখ্যাত ব্যক্তিদের ছবি সংগ্রহ করছেন কালিয়াকৈর উপজেলার মাখনালয় জুয়েলাসের মালিক নিখিল চন্দ্র কমকার। এক সময় তিনি কালিয়াকৈর বাজার এলাকার সেরা স্বণের দোকানের মালিক ছিলেন। ছিলেন ধনাট্য ব্যক্তিদের একজন। সময়ের সাথে আর ভাগ্যের নিমম পরিহাসে সব হারিয়ে ছোট এই জুয়েলারী দোকান নিয়ে বসে আছেন তিনি। তবে ব্যবসা নিয়ে আর কোন ভাবনা নেই তার। নিঃসঙ্গ জীবনে বেছে নিয়েছেন এক অন্যরকম শখ। সংগ্রহ করে চলেছেন পৃথিবীর বিখ্যাত জনদের ছবি। তিনি মনে করেন মানুষের মাঝেই সৃষ্টি কতা বিরাজমান।তিনি সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে প্রথমে ধুয়ে মুছে চকচকে করেন সবগুলো ছবি। সারাদিন থাকেন ছবির মাঝে। রাতে ঘুমুতে যাওয়ার আগেও ছবিগুলো পরিস্কার করেন। তিনি বলেন , একদিন চির বিদায় নিতে হবে তাকে। তাই সরকারের কাছে ছবি গুলো সংরক্ষণের দাবি জানায়।

এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেন টুটুল শিক্ষাথীদের পক্ষে দাবি জানায়, ছবি গুলো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারী কলেজে যথাযথ সম্মানের সাথে সংরক্ষণ করা হোক।

ওই কলেজের অধ্যক্ষ এসএম মোবারক হোসেন জানান, প্রশাসনিক ভাবে ব্যবস্থা প্রহণ করা হোক। তবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারী কলেজে ওই ছবি গুলো সংরক্ষণ করার ব্যবস্থা হলে কোন আপত্তি নেই বলেও জানান তিনি।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

বিনোদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৬০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই