তারিখ : ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাণীনগরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

রাণীনগরে হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলা নিয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
[ভালুকা ডট কম : ০৮ এপ্রিল]
দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলাগুলো। বর্তমান প্রজন্মদের অনেকেই হারিয়ে যাওয়া এই সব ঐতিহ্যবাহী খেলা সম্পর্কে জানে না। তাই নতুন প্রজন্মের কাছে হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যবাহী খেলাগুলোর প্রতি আকর্ষন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন দিবসে আয়োজন করা হয় বিভিন্ন প্রতিযোগিতার। তারই ধারাবাহিকতায় হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা নিয়ে নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিঠ আবাদপুকুর উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা।

সোমবার সকালে বিদ্যালয় মাঠে দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলার প্রতি আগ্রহী করে তোলার লক্ষ্যে এই বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজন করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। প্রতিযোগিতায় ছেলে শিক্ষার্থীদের জন্য হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ খেলাগুলোর মধ্যে ছিলো মোরগ যুদ্ধ, ব্যাঙ দৌড়, বস্তা দৌড়, দীর্ঘ লাফ, উচ্চ লাফ, দৌড়, তিন পায়ে দৌড়, মেয়েদের ছিলো দড়ি খেলা, চেয়ার খেলা, কলস মাথায় দৌড়, সূচে সুতা পড়িয়ে দৌড়, মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে দৌড়, চামচে মার্বেল নিয়ে দৌড়সহ আরো অনেক গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলা। খেলায় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশ গ্রহণ করে। এসময় খেলা দেখার জন্য আশেপাশের কয়েকশত মানুষ বিদ্যালয় মাঠে ভিড় করে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, প্রধান শিক্ষক আবদুস সোবহান, দাতা সদস্য শাহজাহান আলী, অভিভাবক সদস্য রুহুল আমীন, হাফিজার রহমান প্রমুখ। এছাড়াও বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও কর্মচারীসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

খেলাধুলা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই