তারিখ : ১৭ অক্টোবর ২০১৮, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় ইঁদুরের আক্রমনে আমন ধান নষ্ট

ভালুকায় ইঁদুরের আক্রমনে আমন ধান নষ্ট,ক্ষেতময় কলাপাতা, ছেঁড়া কাপড়, দিশেহারা কৃষক
[ভালুকা ডট কম : ০৮ অক্টোবর]
ভালুকা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকের আমন ক্ষেতে খোলপঁচা ও পাতামোড়ানো রোগ সেরে উঠতে না উঠতেই ব্যাপক আকারে ইঁদুরের আক্রমন দেখা দেয়ায় ঘরে ফসল উঠানোর  আশা অনেকেই ছেড়ে দিয়েছেন।কৃষি কর্মকর্তার দেখা না পেয়ে ইঁদুর দমনে অনেকে দ্বারস্থ্য হচ্ছেন স্থানীয় ডিলারদের কাছে পরামর্শ নিতে।

শনিবার সরজমিন কয়েকটি গ্রাম ঘুরে দেখা যায় ইঁদুরের হাত থেকে ফসল বাঁচাতে ক্ষেতজুরে ছেঁড়া কাপড়, কাগজ, শুকনা কলাপাতা টানিয়ে রাখা হয়েছে। মেদুয়ারী ইউনিয়নের বগাজান গ্রামের চাষী আঃ মালেক জানান তিনি ২০ কাঠা জমিতে আমন আবাদ করেছেন। কয়েকদিন যাবৎ ক্ষেতে ইঁদুরের আক্রমন দেখা দিয়েছে। ধানের গোছার মধ্য হতে দু’তিনটি করে চটা কেটে ফেলে চলে যায়। বগাজান বাজারের খুচরা সার বিক্রেতা আঃ মালেক মেম্বার জানান ইঁদুরের আক্রমন ব্যাপক আকার ধারণ করেছে, এমন কোন জমি নেই যেখানে ইঁদুর নেই এমনকি বাড়ীঘরেও ইঁদুরের উপদ্রব দেখা দিয়েছে। তিনি জানান ইঁদুর দমনে এ পর্যন্ত কৃষি বিভাগ কোন পদক্ষেপ নেয়নি।

উথুরা ইউনিয়নের মেঞ্জেনা গ্রামের কৃষক আঃ আউয়াল জানান ওই এলাকার কৃষক জাকারিয়ার ৪ কাঠা জমিতে পোকা ও ইঁদুরের আক্রমন দেখা দিলে নষ্ট ধান নিয়ে স্থানীয় ডিলারের দোকানে যান আর ডিলারের পরামর্শে ক্ষেতে ঔষধ দিয়ে কোন ফল পাননি। তারা ইঁদুরের হাত থেকে রক্ষাপেতে কাগজ, কাপড়, কলার মরাপাতা ইত্যাদি পুঁতে দিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি। তার নিজের ১২ কাঠা জমিতে ইঁদুরের আক্রমন দেখা দিয়েছে। তিনি জানান ক্ষেতের যে অবস্থা তাতে এক মুঠো ধানও পাবার আশা নেই। একই কথা বলেন ওই গ্রামের চাষী জবান মিয়া। তার ১৬ কাঠা জমিতে ইঁদুর লেগে ধান নষ্ট করছে, তিনিও কৃষি বিভাগের কোন পরামর্শ পাননি। নারাঙ্গী গ্রামের আসাদুল জানান তার ৭ কাঠা জমির মধ্যে ১ কাঠা জমির ধান ইঁদুরে কেটে নষ্ট করেছে। একই গ্রামের শাহজাহানের ১৫ কাঠা, হাতিবের গ্রামের আঃ মোতালেবের ৭ কাঠা জমির মধ্যে ৪ কাঠা জমির ধান ইঁদুরে নষ্ট করেছে, তিনি জানান আমন মৌসুম শুরুর পর এ পর্যন্ত কৃষি বিভাগের কারো সাথে সাক্ষাৎ হয়নি। ৫ কাঠা জমি আক্রান্ত একই কথা বলেন বনগাঁও গ্রামের ডাঃ ইছাক। ইন্তার ঘাট এলাকার কৃষক শাহজাহান মিয়া জানান তার ৬ কাঠা জমিতে খোলপঁচা ও ইঁদুরের আক্রমন দেখা দিয়েছে। একই এলাকার আহাম্মদ আলী জানান তার ৪ কাঠা জমিতে ইঁদুরের আক্রমন দেখা দিয়েছে। ডাকাতিয়া ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহম্মেদ জানান আমন ক্ষেতে ইঁদুরের উপদ্রব বেড়ে যাওয়ায় চাষীরা দিশেহারা হয়ে পরেছেন।

এ ছারাও উপজেলার ভালুকা, পৌর এলাকা, মল্লিকবাড়ী, কাচিনা, ভরাডোবা, ধীতপুর, বিরুনিয়া, রাজৈ, হবিরবাড়ী ইউনিয়নের বিভিন্ন ব্লকের গ্রাম গুলিতে কমবেশী ইঁদরের আক্রমনে আমন ধান নষ্ট হচ্ছে বলে চাষীরা জানায়।

৭ অক্টোবর রোববার সকাল সারে ১০ টায় উপজেলা কৃষি অফিসে গিয়ে কোন কর্মকর্তা না পেয়ে অপেক্ষমান অফিস সহকারীদের কাছে জিজ্ঞেস করলে তারা কিছু বলতে পারেননি। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার পালের ০১৭১৭৮৩৮০৮৫ নাম্বারের মোবাইল ফোনে বার বার রিং দিলেও রিসিভ না করায় তাঁর মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৩৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই