তারিখ : ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভিকারুননিসার অধ্যক্ষসহ ৩ শিক্ষক বরখাস্ত

ভিকারুননিসার অধ্যক্ষসহ ৩ শিক্ষক বরখাস্ত
[ভালুকা ডট কম : ০৫ ডিসেম্বর]
রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী অরিত্রী অধিকারীর (১৫) আত্মহননের ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষসহ তিন শিক্ষককে বরখাস্ত করা হয়েছে। একইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির এমপিও বাতিলের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ (বুধবার) সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। অভিযুক্ত তিন শিক্ষক হলেন- ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতী শাখার প্রধান জিন্নাত আরা এবং শ্রেণি শিক্ষক হাসনা হেনা।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের গঠিত তদন্ত কমিটি আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডিকে প্রিন্সিপাল (ভারপ্রাপ্ত) নাজনীন ফেরদৌস, বেইলি রোড ক্যাম্পাসের প্রভাতী শাখার প্রধান জিনাত আক্তার ও শিক্ষক হাসনা হেনাকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি এই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী। ওই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে গভর্নিং বডিকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের কথাও বলেন মন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের আরও বলেন,তদন্ত প্রতিবেদনে শিক্ষকদের অভিযুক্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি ওই প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন অনিয়মের কথাও প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। প্রতিষ্ঠানটিকে বারবার তাগিদ দেওয়া সত্ত্বেও তারা এখনও পূর্ণ অধ্যক্ষের ব্যবস্থা করেনি, এটাও অনিয়ম। তারা নিয়মের বাইরে শিক্ষার্থী ভর্তি করে, টাকা নেয় বেশি, শিক্ষার্থীও বেশি নেয়। অভিভাবকরা ভয়ে তেমন কোনও অভিযোগ করেন না। অপরাধে জড়িত থাকায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।

নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় টানা দু’দিন ধরে বেইলি রোডের স্কুল ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মধ্যে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল নাহিদ। এরপর গতরাতে অরিত্রীর বাবা দিলীপ অধিকারী তার মেয়ের আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের অধ্যক্ষসহ তিনজনকে আসামি করে রাজধানীর পল্টন থানায় একটি মামলা করেছেন।

এদিকে, অধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে আজ (বুধবার) দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ করছে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। সকাল থেকেই অধ্যক্ষের পদত্যাগের দাবিতে স্কুলের মূল ফটকে অবস্থান নিয়ে এ কর্মসূচি পালন করছেন তারা। আজকের কর্মসূচিতে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীরাও অংশগ্রহণ করছে বলে জানা গেছে।

বিক্ষোভকারীরা বলছেন, শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাস অনুযায়ী তিনদিনের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট দিয়ে দোষীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। এ সময় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা অধ্যক্ষ ও গভর্নিংবডির পদত্যাগের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেয়। এটি একটি হত্যাকাণ্ড উল্লেখ করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে তারা। তাছাড়া, অধ্যক্ষের ভর্তি-বাণিজ্যের কারণে তার শাস্তিও দাবি করা হয়েছে। অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের প্রেক্ষাপটে ভিকারুননিসার সব শাখার ক্লাস ও পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা করেছে বলে বেইলি রোড শাখার শিক্ষক মুশতারি সুলতানা জানিয়েছেন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৪২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই