তারিখ : ২২ জুলাই ২০১৯, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সাজা দিতে চাচ্ছে সরকার

খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সাজা দিতে চাচ্ছে সরকার-আইনজীবী
[ভালুকা ডট কম : ১৪ মে]
সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে যেনতেন একটা নিয়ন্ত্রিত বিচার করে সাজা দিতে চাচ্ছে সরকার। এর পেছনে অনেক রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে আছে। বেগম জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট  মাসুদ আহমেদ তালুকদার আজ এমন অভিযোগ করেছেন। আজ (মঙ্গলবার) কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেনের আদালতে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার শুনানি শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

মাসুদ আহমেদ তালুকদার আরো বলেন, আমাদের দেশে আইন আছে আর আইন দ্বারা প্রতিষ্ঠিত আদালত আছে সব জায়গায়। কিন্তু মজার বা দুঃখের বিষয় হলো- খালেদা জিয়ার পেছনে পেছনে আদালত ঘুরছে।

এর আগে গতকাল (সোমবার) আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে একটি নবনির্মিত ভবনকে অস্থায়ী আদালত হিসেবে ঘোষণা করেছে। এ প্রজ্ঞাপন আরো জানানো  হয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাইকো, গ্যাটকো ও বড়পুকুরিয়া দুর্নীতির মামলাসহ অন্যান্য মামলার বিচারকার্য কেরানীগঞ্জে নতুন কেন্দ্রীয় কারারগারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে অনুষ্ঠিত হবে। সে অনুযায়ী আজকেই প্রথম কেরানীগঞ্জের কারাগারে স্থাপিত এ বিশেষ আদালতে বেগম জিয়ার একটি মামলার কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা দুর্নীতি মামলায় দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, আইনে বিধান আছে, যেকোনো জায়গায় আদালত নির্মাণ করা যায়। এখানে কারাগার স্থাপন আইনবহির্ভূত নয়। আইনবহির্ভূত যদি হতো তাহলে তো তারা (খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা) এর আগে পরিত্যক্ত জেলখানার আদালতে গেছেন। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিট্যাবল ট্রাস্ট মামলায় দণ্ডাপ্রাপ্ত হয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন। সেজন্য আজ তাকে এ মামলায় হাজির করা হয় নি।

ওদিকে, আদালত স্থানান্তর হওয়ায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। সোমবার বিকেলে তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, বিএনপি নেত্রী ন্যায় বিচার পাবেন কিনা তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন তৈরি হচ্ছে। কোর্ট সারাজীবন কোর্টেই থাকবে কিন্তু কোর্ট যদি জেলে জেলে ঘুরে বেড়ায় তাহলে এর সম্মান থাকে নাকি? আমি জানি না। এখানে কি ন্যায় বিচার প্রত্যাশা কতটুকুইবা থাকে।

তবে, এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ গতকালই মন্তব্য করেছেন, বিএনপি আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয় বলেই বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে মামলার বিচারে আদালত পরিবর্তন নিয়ে অপপ্রচার করছে। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার সার্বিক পরিস্থিতি ও মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্যই হয়তো আদালত যেখানে যোগ্য মনে করেছেন সেখানে স্থানান্তর করেছেন ।

এদিকে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আজ দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসকরা ছাড়পত্র দিলেই তাকে কেরানীগঞ্জ কারাগারে নেয়া হবে।  একটি আধুনিক কারাগার সেখানে তৈরি করেছি। এখন বেগম খালেদা জিয়াকে যদি আমাদের হাসপাতাল থেকে তাকে ডিসচার্জ করা হয়, তাহলে হয়তো তাকে ওইখানে নেওয়া হবে।এ সময় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ভালো আছেন বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

এর আগে বাংলাদেশের আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বিবিসিতে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন,  কারাবন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে সরিয়ে নেয়া হবে। তিনি আরো জানিয়েছেন, কেরানীগঞ্জের কারাগারের ভেতরে স্থাপিত বিশেষ আদালতে খালেদা জিয়ার মামলাগুলোর বিচার কার্যক্রম চলবে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই