তারিখ : ২২ অক্টোবর ২০২১, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় সওজের জায়গা অবৈধ দখলে

নওগাঁয় সওজের জায়গা অবৈধ দখলে
[ভালুকা ডট কম : ২৬ সপ্টেম্বের]
নওগাঁয় সড়ক ও জনপথের (সওজ) জায়গা দখল করে সেখানে কাঠ রেখে অবাধে ব্যবসা করে যাচ্ছে একটি 'ছ' মিলের স্বত্বাধিকারী। এছাড়া বন বিভাগের গাছ কাটারও অভিযোগ আছে ওই 'ছ' মিলের স্বত্বাধিকারীর বিরুদ্ধে। সান্তাহার পশ্চিম ঢাকা রোড-নাটোর বাইপাস আঞ্চলিক সড়কে নওগাঁ সওজের রাস্তার পাশে অবস্থিত এ 'ছ' মিলটি। এই মিলের স্বত্বাধিকারী শহিদুল ইসলাম। তবে কর্তৃপক্ষ বলছেন এটা সওজের জায়গা আর শহিদুলের দাবী এই জয়াগাটা ব্যক্তি মালিকানা। এই জায়গাটি মূলত বগুড়ার সান্তাহার পশ্চিম ঢাকা রোড নামেই পরিচিত।

জানা যায়, শহিদুল ইসলাম তার ব্যক্তি মালিকানা আনুমানিক ৩ শতক জায়গায় গড়ে তুলেছেন একটি 'ছ' মিল। আর ওই মিলের সামনে সড়ক ও জনপথের প্রায় ১৫ শতক ফাঁকা জায়গা থাকায় সুযোগ নিয়েছেন তিনি। কৌশলে দখল করে গাছের গুল স্তুপ করে ফেলে রেখেছেন। চালিয়ে যাচ্ছেন ব্যবসা। শুধু সওজের জায়গা দখল করেই থেমে নেই তিনি। নওগাঁ বন বিভাগের প্রায় অর্ধ শতাধিক গাছ কেটে রাস্তা ফাঁকা করেছেন তার মিলে যাতায়াতের জন্য। এমনও অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সওজের জায়গা দখল করে অবাধে ব্যবসা করে যাওয়ায় কর্তৃপক্ষ কোন নজর না দেওয়ার কারণে তার দেখাদেখি আবার অনেকেই সড়কের আশেপাশের জায়গা দখল করে গড়ে তুলেছে ছোট-বড় বিভিন্ন রকমের দোকানসহ খাবারের হোটেল। আইনের নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে নিজের পৈতৃক সম্পত্তি ভেবে অবাধে ব্যবসা বাণিজ্য করে যাচ্ছে দখলদাররা।

‘ছ' মিলের স্বত্বাধিকারী শহিদুল ইসলাম বলেন, যেখানে কাঠের গুল রাখা হয়েছে সেই জায়গাটি ব্যক্তি মালিকানা। এছাড়া বন বিভাগের একপাশে গাছ আছে আরেকপাশে গাছ কাটা এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একপাশে গাছ লাগানোই হয়নি। তাছাড়া এই গাছের কমিটিতে আমরা আছি।

নওগাঁ সড়ক ও জনপথের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আহসান হাবীব বলেন, ওই 'ছ' মিলের সামনের জায়গা সড়ক ও জনপথের আর রাস্তার গাছগুলো বন বিভাগের। তবে শহিদুলের কতটুকু জায়গা আছে সরজমিনে তা গিয়ে দেখতে হবে। তার জায়গা ছেড়ে যদি সওজের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে তাহলে একটা নোটিশ করা হবে। তারপর নওগাঁ জেলা প্রাশাসক বরাবর লোটিশটি পাঠিয়ে দেওয়া হবে। তিনিই আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩২৪ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই