তারিখ : ২৪ জুলাই ২০২১, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাণীনগরে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সমাবেশ

রাণীনগরে ভূমি কর্মকর্তার সীমাহীন ঘুষ-দুর্নীতি আর অনিয়মের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ সমাবেশ
[ভালুকা ডট কম : ১৪ জুন]
নওগাঁর রাণীনগরের ভান্ডারগ্রামে অবস্থিত পারইল-বড়গাছা ইউনিয়নের ভূমি অফিস। জনগুরুত্বপূর্ন এই অফিসে গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদের জমি সংক্রান্ত যে কোন বিষয়ে গেলেই প্রথমে তাদেরকে ঘুষ দিতে হয়। তারপর বিভিন্ন কাজের ধরন অনুসারে ফি তো রয়েছেই। অফিসের উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সীমাহীন ঘুষ, দূর্নীতি ও হয়রানীসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ভ’ক্তভোগী এলাকাবাসী।

ভান্ডারগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সামনে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন গবিন্দগঞ্জ সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আফজাল হোসেন, কামতা এস এন উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আব্দুল মান্নান, খাস কামতা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বীরমুক্তিযোদ্ধা এম এ মজিদ, বগারবাড়ী বাজারের বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী রানা প্রমূখ।

সভায় বক্তারা বলেন, উপ-সহকারী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান টাকা ছাড়া কিছুই বোঝেন না। এই চাকরী করে তিনি এখন লাখ লাখ টাকার মালিক বনে গেছেন। বিভিন্ন কৌশলে সেবা প্রার্থীদের কাছ থেকে তিনি ঘুষ নিয়ে থাকেন। ঘুষ নেওয়ার পাশাপাশি রয়েছে হয়রানী। বেশী টাকা নিয়ে খাজনা পরিশোধের রশিদে কম টাকা লিখে দেওয়াসহ নানা কৌশল অবলম্বন করেন তিনি। কোন কিছু বলতে গেলেই হয়রানির প্যাচে জড়িয়ে দেয়। তার বেপরোয়া ঘুষ দুর্নীতি আর অনিয়মে সাধারণ মানুষ ফুঁসে উঠেছে।

দেউলা মানিকহার গ্রামের ক্ষিতিশ চন্দ্র মন্ডলের ছেলে অসিত মন্ডল বলেন উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান আমার জমির খাজনা বাবদ ৩হাজার ৫শ টাকা নিয়েছে কিন্তু খাজনা পরিশোধিত রশিদে ৩শ ৩৫ টাকা লিখে দিয়েছেন।

উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান তার বিরুদ্ধে করা অভিযোগগুলো অস্বীকার করে জানান কয়েকদিন আগে অধ্যক্ষ আফজাল হোসেন অফিসে এসেছিলেন অফিস শেষ সময়ে। কিন্তু অফিস শেষ সময় হওয়াই এবং তার সম্পন্ন কাগজ না থাকায় আমি তার কাজ করে দিতে পারি নাই এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উনি এলাকাবাসীকে নিয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র রচনা করছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন এবিষয়ে কেউ আমাকে কিছু জানায়নি। এঘটনায় তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এছাড়াও সরকারী নিয়মের বাহিরে কাউকে কোন অতিরিক্ত টাকা না দিতে এলাকার সকল সেবা গ্রহিতাদের আহবান জানান তিনি।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকার বাইরে বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩১৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই