তারিখ : ০১ মার্চ ২০২১, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

তজুমদ্দিনে ১৮টি পরিবার নতুন ঠিকানায়

তজুমদ্দিনে ১৮টি পরিবার নতুন ঠিকানায়
[ভালুকা ডট কম : ২১ জানুয়ারী]
আশ্রয়ণের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার" এই স্লোগানকে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ) উপলক্ষে ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলার ১৮টি গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারকে আগামী ২৩ জানুয়ারী দেয়া হবে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর।

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, তজুমদ্দিন উপজেলার দুইটি  ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর তৈরির কাজ চলছে। ঘরগুলোর নির্মাণ কাজে সর্বদা তদারকি ও খোঁজ-খবর নেন ভোলা-০৩ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন ও  তজুমদ্দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার পল্লব কুমার হাজরা, প্রকল্পবাস্তবায়ণ কর্মকর্তা রাশেদ খাঁন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আবুল হোসেন । এ উপজেলার প্রথম ধাপের ১৮ টি ঘরের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার  প্রকল্প আশ্রয়ণ-২ এর আওতায় দুইকক্ষ বিশিষ্ট এসব সেমিপাকা ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিটি ঘর নির্মাণ করতে সরকার বরাদ্দ দিয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। প্রতিটি বাসগৃহে দুটি কক্ষ, সংযুক্ত রান্নাঘর, টয়লেট রয়েছে। আগামী সুবিধাভোগীরা তাদের স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছাতে আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। মুজিববর্ষে বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আগামী ২৩ জানুয়ারি ঘরের চাবি বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর পরই তজুমদ্দিন উপজেলার ১৮টি পরিবারকে ঘরের চাবি হস্তান্তর করবেন উপজেলা প্রশাসন।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, নতুন ঘরগুলোতে বিদ্যুতের আলো পৌঁছে দেয়ার জন্য নতুন মিটারসহ বিদ্যুৎ  সংযোগ দেয়া হয়েছে। কথা হয় উপকারভোগী কুলসুম, জাহানারা, আবু তাহের, মঙ্গল দাস, লোকমান ও তাছনুরের সাথে তারা জানান, এতদিন বেড়িবাঁধে  অনেক কষ্ট করে থাকছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে নতুন ঘর পাচ্ছি, খুব আনন্দ লাগছে। আমাগো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য আমরা সারা জীবন দোয়া করবো।

তজুমদ্দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসার পল্লব কুমার হাজরা জানান, তজুমদ্দিন  উপজেলায় মোট ১৮টি  ঘর মুজিববর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে প্রদান করা হবে। প্রথম পর্যায়ে আমরা ১৮ টি ঘর বরাদ্দ পেয়েছি যার কাজ শেষ হয়েছে। যা আগামী ২৩ জানুয়ারী সুবিধাভোগীদের কাছে ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হবে।

ভোলা-০৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন জানান,  আমার নির্বাচনী এলাকা লালমোহন ও তজুমদ্দিনে কোন মানুষ গৃহহীন থাকবেনা। প্রত্যেক গৃহহীনদের কাছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার আমি পৌঁছে দেয়ার চেষ্ট করে যাচ্ছি।#




সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩০৭ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই