তারিখ : ০১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাণীনগরের বাসস্ট্যান্ডে দুর্গন্ধে নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ

রাণীনগরের বাসস্ট্যান্ডের একমাত্র পাবলিক টয়লেটের জরাজীর্ন অবস্থা,দুর্গন্ধে নষ্ট হচ্ছে স্বাভাবিক পরিবেশ
[ভালুকা ডট কম : ১৯ অক্টোবর]
নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার বাসস্ট্যান্ড এলাকার একমাত্র পাবলিক টয়লেটের বেহাল অবস্থা। বর্তমানে এই টয়লেটের দুর্গন্ধে এই অঞ্চলে বসবাস করা খুবই কঠিন হয়ে দাড়িয়েছে। দ্রুত এমন  জনগুরুত্বপূর্ন স্থাপনাটি নতুন করে নির্মাণ করা কিংবা সংস্কার জন্য সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেছে স্থানীয় ব্যবসায়ী মহল।

সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার প্রাণকেন্দ্র হচ্ছে এই বাসস্ট্যান্ড। এই স্থান থেকে প্রতিদিনই শত শত মানুষ উপজেলাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলাচল করে। পথে মধ্যে যাত্রীসহ সাধারন মানুষদের জরুরী প্রাকৃতিক কাজ সম্পন্ন করার লক্ষ্যে বাসস্ট্যান্ডের পূর্বদিকে উপজেলা পরিষদের প্রাচীর সংলগ্ন স্থানে ৯০দশকে সরকারি ভাবে একটি পাবলিক টয়লেট নির্মাণ করা হয়। কিন্তু বছরের পর বছর টয়লেটের কোন সংস্কার কিংবা মেরামত না করায় বর্তমানে তা জরাজীর্ন অবস্থায় পরিণত হয়েছে। পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় প্রচন্ড দুর্গন্ধ পোহাতে হয় স্থানীয়দের। বিশেষ করে প্রতিদিন বিকেলে যখন পাবলিক টয়লেটের পাশে বাজার বসে তখন টয়লেটের দুর্গন্ধে আশেপাশে থাকা যায় না। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের জন্য এই টয়লেট বর্তমানে মরন ফাঁদে পরিণত হয়েছে।

পথচারী বীরমুক্তিযোদ্ধা শ্যাম, রফিকুল ইসলামসহ অনেকেই বলেন আমাদের প্রতিদিনই এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে হয় কিন্তু এই পাবলিক টয়লেটের দুর্গন্ধে চলাচল করা খুবই কঠিন হয়ে পড়েছে। পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। কিন্তু এমন জনগুরুত্বপূর্ন স্থাপনার দিকে কর্তৃপক্ষের নজর নেই। এই টয়লেটের কারণে অফিস শেষ করে এখানে বাজার করা মুশকিল হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ী রইচ উদ্দিন, আজমল হোসেনসহ অনেকেই বলেন ব্যবসার তাগিদে আমাদের প্রতিদিনই এই এলাকায় সকাল থেকে রাত পর্যন্ত থাকতে হয়। কিন্তু বর্তমানে এই পাবলিক টয়লেটের কারণে এখানে ব্যবসা করা কঠিন হয়ে পড়েছে। কোন মানুষ যে এই টয়লেটে জরুরী প্রাকৃতিক কাজ সম্পন্ন করবে তার কোন পরিবেশ নেই। আমরা অনেকবার কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি কিন্তু আজ পর্যন্ত কোন লাভ হয়নি।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের উপসহকারি প্রকৌশলী ইকরামুল বারী জানান, এই স্থানে নতুন করে একটি পাবলিক টয়লেট নির্মাণ করার দায়িত্ব পেয়েছে উপজেলা এলজিইডি বিভাগ। তারাই এই বিষয়ে ভালো বলতে পারবেন।

উপজেলা প্রকৌশলী শাহ মো: শহীদুল হক বলেন উপজেলা বাসস্ট্যান্ডে একটি নতুন পাবলিক টয়লেট নির্মানের একটি প্রস্তাবনা উপর মহলে পাঠানো হয়েছে। প্রস্তাবনা পাশ হয়ে অর্থ বরাদ্দ এলেই পুরাতন টয়লেট ভেঙ্গে একটি নতুন পাবলিক টয়লেট নির্মানের কাজ শুরু করা হবে।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১৩২৬ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই