তারিখ : ১৪ আগস্ট ২০২২, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

যমুনার পানি বাড়তে শুরু করেছে

যমুনার পানি বাড়তে শুরু করেছে
[ভালুকা ডট কম : ০১ আগস্ট]
পাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষনের কারণে দুদিন ধরে যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে বাড়তে শুরু করেছে। গতকাল সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৮ সেমি বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এখনো বিপদসীমার ১৩৯ সে.মি নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি বৃদ্ধির কারণে নিম্নাঞ্চল পানি উঠতে শুরু করেছে। 

ইতোমধ্যে খোকশাবাড়ী, কাওয়াকোলা ও মেছড়াসহ চরাঞ্চলের ইউপির নিম্নভুমি প্লাবিত হয়ে পড়েছে। এতে আমন ধান আবাদ ব্যাহত হবার শঙ্কায় রয়েছে কৃষকরা। অন্যদিকে পানি বাড়ায় যমুনার অরক্ষিত অঞ্চলে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে এনায়েতপুরে অন্তত ২৫টি বসতভিটা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। কাজীপুর উপজেলার তেকানী ইউনিয়নের হাড্ডি খোলা বেড়ি বাঁধের একশ মিটার নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। গত ১৫-২০ দিন চরাঞ্চলে ভাঙনে নদী তীরের আশপাশের প্রায় দুইশ হেক্টর আবাদি জমি, একটি স্কুল, পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র মসজিদসহ ২০টি বসতবাড়ি যমুনা নদীতে বিলীন হয়েছে।

কাজীপুর তেকানী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ জানান, হাড্ডি খোলা বেড়িবাঁধটি রক্ষা করা না গেলে ভাটিতে অবস্থিত তেকানীর পাঁচটি গ্রাম ও মেছড়া ইউনিয়নের সাতটি গ্রামের বিরাট এলাকা যমুনা নদীতে বিলীন হওয়ার আশংকা  রয়েছে।

শাহজাদপুর উপজেলার জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ বলেন, পানি বৃদ্ধির কারনে এনায়েতপুরে তীব্র নদী ভাঙন শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে ২৫টি বসতবাড়ি ফসলী জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে যমুনা পাড়ের মানুষ।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শফিকুল ইসলাম জানান, পাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণের কারণে যমুনায় পানি বাড়তে শুরু করেছে। তবে বন্যার কোনো আশংকা নেই। বৃষ্টি কমলেই পানি কমতে শুরু করবে।#






সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

জীবন যাত্রা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৪৯৬১ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই